আপনার প্রিয় ঘর সব সময় চকচকে রাখতে চান? আসুন জেনে নেই যা যা করবেন

favorite-house

ঘরকে পরিষ্কার আর চকচকে রাখতে চাননা এমন কাউকে খুঁজে পাওয়া অসম্ভব। আমরা সবাই নিজেদের প্রিয় ঘরদোর সাজিয়ে গুছিয়ে রাখার পাশাপাশি চাই তা যেন পরিষ্কার আর চকচকে থাকে।

কিন্তু শুধু কি সকাল, দুপুর আর বিকেল এই তিনবেলা ঘর ঝাড়ু মারলেই ঘর পরিষ্কার থাকে?

দিনে একবার যদি আপনি আপনার ঘরদোর পরিষ্কার করেন আর সেই পরিষ্কার করাটাই যদি হয় একটু কৌশলি তাহলে একবার পরিষ্কারই যথেষ্ট।

আসুন আজ আপনাদের জানাবো কি উপায়ে আপনি আপনার ঘর চকচকে রাখবেনঃ

*ঘরে কমবেশি আসবাবপত্র সবারই থাকে। আমরা ঠিক মতো লক্ষ্য করলে দেখতে পাই যে এই আসবাবপত্রগুলো প্রতিদিনই একটু একটু করে ময়লা ধুলোর আস্তরণে ঢেকে যায়। যার ফলে আপনার ঘরের উজ্জ্বলতা ম্লান হয়ে যায়।

তাই প্রতিদিন একবার করে আপনার ঘরের আসবাবপত্রগুলো মুছে দিন। দেখবেন আর ধুলো ময়লার আস্তরণ জমছে না।


আরো পড়ুনঈদের পর পরিচ্ছন্ন রান্নাঘর পেতে টিপস


*আপনার ঘরের আয়নাটির উজ্জ্বলতাও কিন্তু সম্পূর্ণ ঘরের চকচকেভাব  ধরে রাখতে ভীষণ সাহায্য করে। আপনার ঘরের আয়নাটি যদি হয় ময়লা দাগে ভরে ম্লান হয়ে যাওয়া তাহলে ঘরের উজ্জ্বলতা এমনিতেই নষ্ট হয়ে যায়।

তাই আপনার ঘরের চকচকেভাব ধরে রাখতে ঘরের আয়নাটি পরিষ্কার রাখুন। এ জন্য ব্যবহার করতে পারেন কাঁচ পরিষ্কারক তরল ও টিস্যু।

*আপনার ঘরের শোভা বাড়াতে যে পেইন্টিং আর ফটো ফ্রেমগুলো দেওয়ালে লাগিয়েছেন সেগুলোর নিয়মিত ঝার পোছ করুন।

তানা হলে এগুলো আপনার ঘরের শোভা বর্ধন না করে বরং ঘরের শোভা বিনষ্ট করবে। তাই এই জিনিসগুলো পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখুন।

*ঘরের চকচকেভাব কমিয়ে ফেলতে আরও যে কারণটি দায়ী তা হল অপরিচ্ছন্ন পর্দা, সোফার কভার ও কুশন কাপড়। তাই ঘর চকচকে দেখাতে পুরনো হলেও ঘরের এসব কাপড়গুলো পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখুন।

*আপনার ঘরের বেসিনটি যদি হয় নোংরা আর হলদে রঙের তাহলে পুরো ঘরের উজ্জ্বলতা নষ্ট হতে সময় লাগবে মাত্র কয়েক মিনিট।

তাই যদি ঘর দেখাতে চান উজ্জ্বল আর রাখতে চান চকচকে তাহলে শুধু ঘর নয় সাথে আপনার ঘরের বেসিনটিও পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখুন। এতে আপনার ঘরের আবেদন কয়েকগুণ বেড়ে যাবে।


আরো পড়ুন– আপনার রান্নাঘরের ষ্টীলের সিংকটি আবার করে তুলুন ঝকঝকে পরিষ্কার


*আপনার ঘরে প্রবেশের দরজার পাশে একটু শু (রাক) রাখার ব্যবস্থা রাখুন সাথে দরজার সামনে একটা পাপোশ।

এতে করে বাইরে থেকে যেই ঘরে ঢুকুক না কেন সাথে নিয়ে ময়লা ধুলো নিয়ে আসতে পারবে না। এতে করে ঘর আর ধুলোময় হতে পারবে না তাই উজ্জ্বলতাও হারাবে না।

*খেয়াল রাখুন আপনার ঘর মোছার পোঁছা যেন অপরিষ্কার কাপড়ের না হয়। যদি ঘর মোছার জিনিস নোংরা হয় তাহলে ঘর পরিষ্কার করা বা রাখা অসম্ভব ব্যাপার।

ঘরের মেঝে পরিষ্কারের জন্য মপ, নাইলনের সুতা বাঁধা ঝাড়নগুলো ব্যবহার করতে পারেন।


আরো পড়ুনরাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে রান্নাঘরের যে কাজগুলো করতে ভুলবেন না


সবশেষে বলবো ঘরে যেহেতু ঝুল অথবা মাকড়শার জাল এই দুই ব্যাপার হওয়া খুব স্বাভাবিক ঘটনা সেহেতু এই ব্যাপারগুলো অবহেলা না করে দুই একদিন পর পর ঘরের ঝুল ঝেড়ে ফেলুন। এতে ঘর চকচকে তো থাকবেই সাথে থাকবে ফ্রেশ আর চনমনে।


সম্পর্কিত পোস্ট: