আসুন জেনে নেই অলিভ অয়েলের কিছু ব্যতিক্রমধর্মী ব্যবহার

অলিভ অয়েল মানেই আমরা বুঝি এটা আমাদের ত্বকের যত্ন আর রান্না ছাড়া বুঝি আর কোন কাজের জিনিস নয়। আপনার এই ভুল ধারণা ভাঙতে আজকের এই লিখাটি।

আসুন দেখে নিই অলিভ অয়েলের কিছু ব্যতিক্রমধর্মী ব্যবহার।

*যাদের নাক ডাকার সমস্যা আছে তারা রাতে বিছানায় যাওয়ার আগে কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েল মুখে নিয়ে চেটে খেতে পারেন। আপনার নাক ডাকা সমস্যা কমে যাবে।

*কোষ্ঠ-কাঠিন্য সমস্যায় ভুগছেন? প্রতিদিন সকালে এক চা চামচ অলিভ অয়েল খেয়ে দেখতে পারেন। আপনার সমস্যার সামধান হবে আশা করা যায়।

*যারা হাতের নখ বড় রাখতে পছন্দ করেন কিন্তু অল্পকিছুদিন পরই নখ ভেঙ্গে যায়। তাদের জন্য সমাধান হল অলিভ অয়েল।

অলিভ অয়েল হালকা গরম করে ৫ থেকে ৭ মিনিট নখ এতে ডুবিয়ে রাখুন। নিয়মিত কিছুদিন এই পদ্ধতি অবলম্বন করলে নখ আর ভাঙবে না।


আরো পড়ুনসুন্দর ও শক্ত হাতের নখের বৃদ্ধি পেতে আপনাকে যা করতে হবে


*চোখের ভ্রু আর পাপড়িতে যদি নিয়মিত অলিভ অয়েল লাগান তাহলে চোখের ভ্রু আর পাপড়ি দুটোই ঘন কালো আর আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে।

*শ্যাম্পু করার পর চুলে কন্ডিশনার এর বদলে ব্যবহার করতে পারেন অলিভ অয়েল। শ্যাম্পুর পর হাতে কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েল নিয়ে চুলে ভালোভাবে লাগান। দেখুন চুল কেমন ম্যানেজেবল হয়ে যায়।

*মাথার খুশকি দূর করতে বাদাম তেল আর অলিভ অয়েল মিশিয়ে চুলের গোঁড়ায় লাগান। ৪০ মিনিট অপেক্ষা করে মাথা ধুয়ে ফেলুন দেখবেন খুশকি চলে যাবে।


আরো পড়ুনঅসহ্য খুশকির যন্ত্রনা থেকে মুক্তির জন্য ৭টি সহজ পরামর্শ


*নতুন চুল গজাতে মাথায় অলিভ অয়েল ম্যাসাজ করে একটি তোয়ালে গরম পানিতে ভিজিয়ে চুল মুড়িয়ে রাখুন। এতে মাথায় নতুন চুল গজাবে।

*পা ফাটা নিয়ে বিব্রতকর অবস্থার মধ্যে আছেন? প্রতিদিন রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে পায়ে অলিভ অয়েল ম্যাসাজ করে ঘুমান। পা ফাটা সেরে যাবে।

*চোখের চারপাশের কুচকে যাওয়া চামড়া স্বাভাবিক করতে অলিভ অয়েল খুব উপকারি।

সামান্য একটু অলিভ অয়েল নিয়ে চোখের চারপাশের চামড়ায় মৃদু ম্যাসাজ করুন আর বাড়তি তেলটুকু টিস্যু পেপার দিয়ে মুছে ফেলুন। দেখবেন জায়গাটা অনেকখানি স্বাভাবিক হয়ে আসবে।

*সেভিং ক্রিমের বিকল্প হিসেবে আপনি নির্দ্বিধায় ব্যবহার করতে পারেন অলিভ অয়েল। এটি আপনার ত্বকের কোন ক্ষতি সাধন না করেই খুব যত্ন সহকারে সেভ করতে সাহায্য করবে।

*চুলে যদি কখনো পেইন্ট লেগে যায় তাহলে খুব বেশী চিন্তিত না হয়ে একটি তুলার বলে অলিভ অয়েল লাগিয়ে চুলে ঘষুন। আপনার চুলের পেইন্টের দাগ চলে যাবে।


আরো পড়ুনচুলের যত্নে কাস্টার ওয়েল এর ব্যবহার


*কাঠের ফার্নিচার পলিস হিসেবে অলিভ অয়েল খুব কাজের।

একটি পাত্রে দুইভাগ অলিভ অয়েল ও একভাগ লেবুর রস অথবা সাদা ভিনেগার নিয়ে একটি স্প্রে বোতলে করে কাঠের ফার্নিচারে স্প্রে করুন তারপর একটি নরম কাপড় দিয়ে এটি মুছে ফেলুন।

কাঠের ফার্নিচার চকচকে আর সুন্দর থাকবে তাতে।


সোর্সঃ     http://www.rd.com/slideshows/7-extraordinary-uses-for-olive-oil/#slideshow=slide1


http://alcenero.asia/health-olive.html


সম্পর্কিত পোস্ট: