আপনার কন্যা শিশুটিকে যৌন নিপীড়ন থেকে রক্ষা করতে কিছু পরামর্শ

protect your daughter

বর্তমানে আমরা সভ্যতার মোটামুটি শীর্ষে অবস্থান করলেও আমাদের সমাজে কতিপয় মানুষরূপী পশুর অস্তিত্ব এখনো বিলিন হয়ে যায়নি। আর এইসব পশুর বর্বরতা আর লোলুপ দৃষ্টির কাছে আপনার আমার কন্যা শিশুটিও নিরাপদ নয়।

আমাদের চারপাশে একটু নজর দিলেই এইসব ঘটনার অনেক নজির দেখতে পাবো। তাই আপনার কন্যা শিশুটির কোন রকম বিপদ আসার আগেই আপনাকেই তার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। আসুন আপনার কন্যা শিশুটিকে যৌন নিপীড়ন নামক ভয়াবহ অভিশাপ থেকে রক্ষা করার কিছু পরামর্শ দেওয়া যাক।

আপনার কন্যা শিশুকে যৌন নিপীড়ন থেকে রক্ষা করতে কিছু পরামর্শঃ

* আপনার কন্যা শিশুটিকে তার সারাদিনের কার্যক্রম সম্পর্কে জানতে চান। সে কোথায় কোথায় গিয়েছে, কার কার সাথে খেলা করেছে, কে কে তার গল্প করেছে সব সম্পর্কে খোঁজ নিন। খেয়াল করুন আপনার সন্তান অপ্রত্যাশিত কোন ব্যাপারে আপনাকে প্রশ্ন করে কিনা।

যদি তার শিশুসুলভ আচরণের বাইরে কোনরূপ কৌতুহল দেখায় তাহলে দেরি না করে আপনার সন্তানের কাছ থেকে সবটা জাআর চেষ্টা করুন। মনে রাখবেন আপনার কন্যা সন্তানটিকে যৌন নিপীড়ন থেকে রক্ষা করতে এটা হবে আপনার প্রথম পদক্ষেপ।

* আপনার সন্তানটির নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে তার সাথে মার্জিত ভাষা ব্যাবহারের মাধ্যমে সব বিষয় নিয়ে খোলামেলা কথা বলুন। তার শরীরের সাথে তাকে পরিচয় করান, শরীরের প্রতিটি অঙ্গ প্রত্যঙ্গ সম্পর্কে তাকে সচেতনভাবে জানাতে চেষ্টা করুন। তবে মনে রাখতে হবে এই পরিচয় প্রক্রিয়াটা যেন আপনার কোমলমতি বাচ্চার মনে কোন খারাপ ধারণার জন্ম না দেয়।

* আপনার কন্যা শিশুকে স্পর্শ সম্পর্কে জানান। কোনটি নিরাপদ স্পর্শ আর কোনটি অনিরাপদ বা খারাপ স্পর্শ এ সম্পর্কে তাকে অবহিত করুন। একটা কথা সব সময় মনে রাখবেন, আপনার সন্তানের উপর যৌন নিপীড়ন নামক অভিশাপটি আশেপাশের পরিচিত মানুষগুলোর মধ্য থেকে আসার সম্ভাবনা সব থেকে বেশী। আর তাই আপনার বাচ্চাকে যখনই ভালো খারাপ ছোঁয়া বা স্পর্শ সম্পর্কে জানাবেন সে আপনাকে তার প্রতি হওয়া অনাকাঙ্ক্ষিত স্পর্শ সম্পর্কে বলতে পারবে।

* লক্ষ্য রাখুন আপনার সন্তানটি যাদের সাথে দিনের বেশীরভাগ সময় অতিবাহিত করছে বা খেলা ধুলা করছে সেই গ্রুপে তার সমবয়সী ও বন্ধু ছাড়া আর কোন নতুন সদস্য যোগদান করছে কিনা। কেননা আপনার সন্তানের উপর আক্রমণটি সাধারনভাবে তার থেকে বড় বয়সী কারো মাধ্যমে হওয়ার সম্ভাবনা বেশী। আপনার সন্তানের নিরাপত্তার স্বার্থে আপনি নিজে তার প্রতি লক্ষ্য রাখুন এবং আপনার সন্তানের কাছ থেকে তথ্য নিতে চেষ্টা করুন।


আরো পড়ুন- যেভাবে আপনার সন্তানকে যৌন নিপীড়ন থেকে নিরাপদ রাখবেন


* আপনার কন্যা শিশুটির প্রতি আলাদা দৃষ্টি রাখুন। খেয়াল করুন তার ঘুম, খাওয়া দাওয়া, প্রতিদিনের ব্যাবহারে কোন পরিবর্তন আসছে কিনা। যদি তার মধ্যে কোন অদ্ভুত পরিবর্তন লক্ষ্য করে থাকেন তাহলে কোনরূপ ভয়ভীতি প্রদর্শন না করে ভালোবেসে তার পরিবর্তনের কারন অনুসন্ধান করতে থাকুন।

* যদি আপনি আপনার সন্তানের উপর যৌন নিপীড়ন হওয়ার কোন লক্ষণ দেখতে পান তবে দেরি না করে সাথে সাথে এই ব্যাপারটি নিয়ে সোচ্চার হয়ে পরুন। আপনার প্রথম কাজ হবে আপনার সন্তানের শারীরিক ও মানসিক সুস্থতা নিশ্চিত করা। এরপর খুঁজে বের করুন আক্রমণকারীকে, পারিপার্শ্বিক অবস্থা বা সামাজিক অবস্থার দোহায় না দিয়ে দোষীর বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করুন।

আপনার মৌনতা বা উদাসীনতা নিজের কন্যা সন্তানটি সহ সমাজের আর বাচ্চাদের জন্য হুমকিস্বরূপ হতে পারে। দেরি না করে আজই আপনার কন্যা সন্তানটিকে তার আশেপাশের ওতপেতে থাকা বিপদ সম্পর্কে একটু একটু করে জানাতে শুরু করুন, আপনার সন্তানের সুন্দর আর সুস্থ আগামির জন্য আপনাকেই পদক্ষেপ নিতে হবে।


সোর্সঃ http://www.psychologytoday.com/blog/stop-the-cycle/201112/child-sexual-abuse-ten-ways-protect-your-kids


সম্পর্কিত পোস্ট: