যেভাবে যত্ন নেবেন আপনার ঘরের ল্যাম্পশেডটির

lampshade

“ল্যাম্পশেড”  আপনার ঘরের চেনা পরিবেশ বদলে দিতে আর ঘরের শোভাবর্ধন করতে এই জিনিসটির তুলনা হয়না।

যারা মোটামুটি একটু শৌখিন আর আভিজাত্যের মাধ্যমে নিজেদের ঘরের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে আগ্রহী তারা কোনভাবেই ল্যাম্পশেড ব্যবহার করতে ভোলেন না।

শুধুমাত্র টেবিল ল্যাম্প নয় স্ট্যান্ড ল্যাম্পশেড, ঝুলন্ত ল্যাম্পশেড ও নানা ধরণের ল্যাম্পশেড ব্যবহার করে আমরা আমাদের ঘরের পরিবেশ আমূল বদলে দিতে পারি।

ল্যাম্পশেডের মৃদু রঙিন আলোর ছটায় মুহূর্তের মধ্যে ঘরের সম্পূর্ণ পরিবেশ বদলে তৈরি হয় এক স্নিগ্ধ আর মায়াময় আবহাওয়া।


আরো পড়ুনঘরে বৈচিত্র্য আনতে মাটির পাত্র আর ফুলের ব্যবহার


কিন্তু শুধু ল্যাম্পশেড ঘরে সাজিয়ে রাখলেই কি আপনার কাজ শেষ হয়ে যায়?

একদম না। আপনি যদি আপনার ল্যাম্পশেডটির সঠিক যত্ন না করেন তাহলে খুব অল্পদিনেই সেটি তার সব সৌন্দর্য হারিয়ে নষ্ট হয়ে যাবে।

তাই আপনার কাজ হবে ল্যাম্পশেডের নিয়মিত যত্ন করা। আসুন দেখি কি উপায়ে আপনি আপনার ঘরের ল্যাম্পশেডটির যত্নআত্তি করবেন।

*ল্যাম্পশেড যত্ন করতে চাইলে আপনাকে প্রথমে যা করতে হবে তা হল প্রতিদিন একবার নরম কাপড় দিয়ে ল্যাম্পশেডটি মুছে ফেলা। এতে করে ময়লা জমার চান্স থাকেনা।

তবে অবশ্যই মনে রাখতে হবে খুব প্রয়োজন না পড়লে ভেজা কাপড় ব্যবহার থেকে বিরত থাকা।

*আপনার ল্যাম্পশেডটি যদি হয় সুতির তাহলে এটি পরিষ্কার করতে যা যা করতে হবে তা হল সবার আগে ল্যাম্পশেড থেকে একটি ব্রাশের দ্বারা ধুলাময়লা ঝেড়ে ফেলতে হবে।

এরপর পানিতে অল্প গুঁড়া সাবান দিয়ে ল্যাম্পশেড মৃদুভাবে ধুয়ে ফেলুন। এরপর ভালোভাবে রোদে শুকিয়ে নিন।


আরো পড়ুনঘরের সৌন্দর্য বাড়িয়ে তুলবে বুক শেলফ


*অনেক সময় দেখা যায় বিভিন্ন ল্যাম্পশেডের গায়ে চুমকি, পুথি ও কাগজের কাজ থাকে। এক্ষেত্রে ল্যাম্পশেড পরিষ্কারের সময় একটি পরিষ্কার ব্রাশ ব্যবহার করুন। কারণ এগুলো ধুতে গেলে নষ্ট হয়ে যায়।

তাই ব্রাশ দিয়ে উপর নীচে ভালোভাবে ব্রাশ ঘষে পরিষ্কার করে ফেলুন। এতে করে ল্যাম্পশেড অনেকদিন পর্যন্ত নতুন আর চকচকে থাকবে।

*শেড পরিষ্কার করার সময় বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করুন। খুব বেশী জোরে চেপে ধরে শেড পরিষ্কার করতে যাবেন না।

এতে কাঁচ ভেঙ্গে দুর্ঘটনা ঘটার সমভাবনা থেকে যায়। একহাতে শেড ধরে অন্য হাতে শেড পরিষ্কার করুন।


আরো পড়ুনঘরের ছোট বাগানটি ভরিয়ে তুলুন শীতকালের উজ্জ্বল সব ফুলের সমাহারে


*ল্যাম্পশেডে ধুলা ময়লা জমার ফলে আলো অনুজ্জ্বল আর ম্যাড়মেড়ে হয়ে থাকে। তাই টিস্যু পেপার দিয়ে শেডের ভেতরটাও পরিষ্কার  করুন।

কাপড় বা হাতে তৈরি কাগজের শেডে ৪০ বা ৬০ পাওয়ারের বেশি বাল্ব ব্যবহার করা ঠিক নয়। অনেকক্ষণ বাতি জ্বালিয়ে রাখবেন না।

আপনার শখ করে কেনা ল্যাম্পশেডের নিয়মিত পরিচর্যা পারে এর দীর্ঘস্থায়িত্ব আর উজ্জ্বলতা বাড়িয়ে তুলতে।


সম্পর্কিত পোস্ট: