কোমল পানীয় যখন নীরব ঘাতক, সতর্ক হোন আজই

Soft-Drink riskকোমল পানীয় (soft drinks) পান করেন না, এমন মানুষ খুব কম পাওয়া যাবে। দৈনন্দিন জীবনে হোটেল, রেস্টুরেন্টে, বিয়ের অনুষ্ঠানে কিংবা ঘরোয়া কোন উৎসবে কোমল পানীয় ছাড়া ভাবাই যায় না।

কিন্তু বিস্ময়কর হলেও এটা সত্যি যে কোমল পানীয়র উপকারী দিকের চাইতে অপকারিতাই বেশি। এই কোমল পানীয় আমাদের শরীরে মারাত্মক কিছু ক্ষতি (affects of soft drinks) করে থাকে, যার কারণে আমাদের আজ থেকেই কোমল পানীয় পান করার অভ্যাস ত্যাগ করতে হবে।

  • ডায়াবেটিস এর ঝুঁকি বৃদ্ধি (diabetes risk) : ডায়াবেটিস (diabetes) এর অন্যতম কারণ হলো কোমল পানীয় গ্রহণ করা। যেকোন কোমল পানীয়তে স্বাভাবিক এর তুলনায় ১০ গুণ বেশ চিনি থাকে, যা আমাদের রক্তের ব্লাড সুগার লেভেলকে বাড়িয়ে দেয় এবং ইনসুলিনের যে স্বাভাবিক প্রক্রিয়া, তাকে বাধাগ্রস্ত করে। আর সেই কারণে ডায়াবেটিস এর ঝুঁকি বেড়ে যায় বহু গুনে। কোমল পানীয় প্রস্তুতকারক কোম্পানিগুলো সবচাইতে বেশি চিনি ব্যবহার করে পৃথিবীতে। তাই এড়িয়ে চলুন কোমল পানীয়।
  • দ্রুত ওজন বাড়ায় (weight gain): আপনি যদি প্রতিদিন ব্যায়াম করেন, কিন্তু একইসাথে থাকে কোমল পানীয় পানের অভ্যাস, ্তাহলে এই ব্যায়াম আপনার কোন কাজে আসবে না। বরং বাড়তেই থাকবে আপনার দেহের ওজন। কাজেই কোমল পানীয় ত্যাগ করুন।
  • দেহের হাড় ক্ষয় করে (bone loss) : কোমল পানীয়তে প্রচুর পরিমাণে ফসফরিক এসিড (phosphoric acid) থাকে, যা দেহের প্রয়োজনীয় ক্যালসিয়াম শুষে নেয় এবং দেহের হাড়কে দুর্বল করে দেয়। সাথে সাথে যকৃতের এসিড বৃদ্ধি করে, পরিপাক ক্রিয়া ঠিক ভাবে হয় না।
  • উচ্চ রক্তচাপ এবং ক্যানসার এর ঝুঁকি বৃদ্ধি (high blood pressure and cancer) : কোমল পানীয় গুলোতে প্রচুর পরিমাণে ক্যাফেইন (caffeine) থাকে, যা মানবদেহের ক্যানসার এবং উচ্চ রক্তচাপ এর ঝুঁকি বৃদ্ধি করে।
  • দাঁতের ক্ষয় এবং পানিশূন্যতা (tooth decay and dehydration) : যেহেতু কোমল পানীয় তে প্রচুর চিনি থাকে, সেটা সহজেই দেহে পানিশূন্যতা সৃষ্টি করে। তাছাড়া নিয়মিত এসব পান করলে দাঁতের ক্ষয় হয়।

আরো জেনে নিন (know more)

গবেষণায় বিজ্ঞানীরা কোমল পানীয় এর কোন উপকারী দিক খুঁজে পান নি। এতে যে সোডা থাকে সেটা প্রক্রিয়াজাত, যা মানবদেহের জন্য চরম ভাবে ক্ষতিকর। কোমল পানীয়তে দেয়া হয় ক্লোরিন এবং ফ্লুরাইড এর মত ধাতু, যা আমাদের কিডনিকে বিকল করে দিতে পারে। যারা কোমল পানীয় নিয়মিত পান করে, তাদের দেহে অস্বাভাবিক ভাবে ওজন বৃদ্ধি পায়।

এসব কারণে আমাদেরকে সাবধান হতে হবে এবং অবশ্যই কোমল পানীয় পান ত্যাগ করতে হবে সম্পূর্ণভাবে।

বিকল্প পানীয় পান করতে চান?
আপনি চাইলে বাসাতে খুব সহজেই স্বাস্থ্যকর জুস বানিয়ে পান করতে পারেন। পড়ুন পরামর্শ.কম এ প্রকাশিত কিছু সুস্বাদু ও স্বাস্থ্যকর জুসের প্রস্তুত প্রণালী।

  1. জেনে নিন কয়েকটি জুসের প্রস্তুত প্রণালী যা বৃদ্ধি করে হজম শক্তি
  2. ডায়াবেটিস রোগীরা পান করতে পারেন যে ৩ টি উপকারী ফ্রুট জুস

আরো পড়ুন এই লিঙ্কে

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।