ফ্রিল্যান্সাররা তাদের ভবিষ্যত আর্থিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারেন যেভাবে

Pension planning for Freelancer and self-employed Personএকজন চাকুরিজীবী তার চাকুরী শেষে এককালীন বড় অংকের অর্থ পেয়ে থাকেন। এছাড়া সরকারি চাকুরির ক্ষেত্রে বিভিন্ন ধরনের অবসরকালীন ভাতা পাবেন। কিন্তু একজন ফ্রিল্যান্সার এসবের কোনটাই পাবেন না। একারণে এখনই অবসরকালীন ভাবনা ভাবা বুদ্ধিমানের কাজ হবে।

নিচের পদ্ধতিগুলো অনুসরণ করে সহজেই আপনি আপনার ভবিষ্যতের আর্থিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারেন।

  • আপনার সঞ্চয় এর পরিমাণ ঠিক করুন (decide your amount of savings): একজন ফ্রিল্যান্সারের প্রত্যেক মাসের আয়ের পরিমাণ সমান নয়। একারণে প্রতি মাসে একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ জমা করা কঠিন। এজন্য আপনি একটা শতকরা পরিমাণ অর্থ জমা করতে পারেন। আমার পরামর্শ মতে আপনি প্রতিমাসের আয়ের ৩৩% পরিমাণ অর্থ জমা করুন। আপনি যদি চলতি মাসে ১ লক্ষ টাকা আয় করেন, তাহলে আপনার উচিত ৩৩ হাজার টাকা জমা করা। যেই মাসে ৭০ হাজার আয় হবে সেই মাসে ২৩ হাজার টাকা জমা করুন।
  • বাংকে আলাদা সেভিংস অ্যাকাউন্ট খুলুন (open a savings account):আপনার সব অর্থ একই অ্যাকাউন্ট এ রাখবেন না। প্রতিমাসের সেভিংস আলাদা একটা অ্যাকাউন্ট জমা করতে থাকুন। যে অ্যাকাউন্ট এ চলতি সব-ধরনের লেনদেন করে থাকেন সেই অ্যাকাউন্ট ছাড়াও আলাদা একটা অ্যাকাউন্ট খুলবেন যেখানে শুধুমাত্র আপনার প্রতিমাসের জমানো অর্থ থাকবে। অন্য কোনধরনে লেনদেন এই সঞ্চয়ী অ্যাকাউন্ট থেকে করবেন না। তাহলে আপনি সহজে আপানার জমানো টাকার পরিমাণ জানতে পারবেন।
  • জন্মদিন, ঈদ, ঘোরাঘুরির জন্য আলাদা ফান্ড (keep a reserve fund): একটা গড় আয়ের পরিমাণ নির্ধারণ করুন। ধরুন, আপনার গড় আয় ১ লক্ষ টাকা। তারমানে আপনি মাঝে মাঝে ১ লক্ষ টাকার বেশি আবার মাঝে মাঝে কম আয় করে থাকেন। যদি কম হয়, তাহলে শুধু আপনার নির্ধারিত ৩৩% জমা করুন। কিন্তু যদি বেশি হয়, তাহলে যতটুকু বেশি হবে সেই পরিমাণ অর্থ বিভিন্ন অনুষ্ঠানের জন্য জমা রাখুন।
  • জরুরী প্রয়োজনে সঞ্চয় (emergency fund): ৩৩% সঞ্চয়ের পর বাকি টাকা থেকেই আপনার অসুস্থতা, দুর্ঘটনা, ইত্যাদি বিষয়ের জন্য আলাদা ভাবে সঞ্চয় করুন।

এছাড়া দৈনন্দিন জীবনের বিভিন্ন খাতে যতটুকু পারেন সেভ করুন। সুরক্ষিত রাখুন নিজের ভবিষ্যত।
আরো পড়ুন
ফ্রীল্যান্স বা মুক্ত পেশা বিষয়ক পরামর্শ (পর্ব-০১)
সফল ফ্রিল্যান্সার হতে চাইলে এড়িয়ে চলতে হবে যে ৫ টি ভুল

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।