ঈদে আপনার রান্নাঘরের প্রস্তুতি

cleaningযেহেতু এবারের ঈদটা কোরবানির ঈদ তাই আপনার রান্নাঘরের ব্যবহার বলে শেষ করা যাবেনা। দেখা যাবে আপনার সারাটাদিন রান্নাঘরকে ঘিরেই কেটে ভাবে। রান্নাঘরটি গুছিয়ে রাখা, পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করে তোলা ও কোরবানির মাংসের সঠিক ব্যবহার ও বণ্টন ইত্যাদি কাজগুলো সম্পন্ন হবে রান্নাঘরে। তাই ঈদের আগেই রান্নাঘরটা একটু গুছিয়ে রাখা প্রয়োজন।

পাশাপাশি ঈদের দিন যেসব জিনিস দরকার পড়বে সেগুলো হাতের কাছে মজুদ রাখতে হবে আগেই। ঈদের আগেই যেসব জিনিস গুছিয়ে রাখতে হবে সেগুলো হলো- হাঁড়ি, পাতিল ছুরি, চাকু, বটি, মসলা তৈরির যন্ত্রপাতি ইত্যাদি। আসুন ঈদে আপনার রান্নাঘরের প্রস্তুতি নিয়ে কিছু পরামর্শ দেওয়া যাক।

ঈদে আপনার রান্নাঘরের প্রস্তুতি

  • কোরবানির ঈদে আপনার রান্নাঘরের সবচেয়ে বেশি যে জিনিসটি প্রয়োজনে পড়বে সেটা হল ফ্রিজ। আর তাই আগে ভাগে ফ্রিজটি ধুয়ে মুছে পরিষ্কার করে রাখুন, সাথে মাংসগুলো যাতে সাচ্ছন্দে রাখতে পারেন তার জন্য ফ্রিজের মধ্যে জায়গা রেডি করুন।
  • ঈদে প্রয়োজনীয় জিনিসত্র যেমন, ছুরি, বটি, দা, কাঁচি, চপার বোর্ড, হাড়ি পাতিল সবগুলো গুছিয়ে রাখুন। তাছাড়া যেসব জিনিসগুলোতে শাণ দেওয়া প্রয়োজন সেগুলো আগে থেকেই শাণ দিয়ে রাখুন।
  • ঈদে রান্নাঘরে যেহেতু মাংস চর্বির ছড়াছড়ি থাকবে তাই আগেভাগে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার ব্যাপারে সচেতন হন। আগে থেকে একটি ঢাকনাওয়ালা ডাস্টবিন এর বাবস্থা করে ফেলুন।
  • ঈদের দিন আপনার রান্নার কাজে প্রয়োজনীয় সামগ্রী যেমন ওভেন, রাইসকুকার, ব্লেন্ডার ও ফুড প্রসেসর এসবগুলো পরিষ্কার করে পরিপাটি করে রাখুন। রান্নাঘরে স্বভাবতই পিঁপড়ার উৎপাত বাড়তে পারে আর তাই পিঁপড়া দূর করার প্রস্তুতিও আগে থেকে নিয়ে রাখুন।
  • রান্নাঘরটি স্বাভাবিকভাবেই রক্ত আর মাংসের গন্ধ ও দাগে ভরে যাবে। তাই যাতে তাড়াতাড়ি এসব নোংরা ময়লা পরিষ্কার করে ফেলা যায় তার সব রকম আয়োজন করে রাখুন। ভিনেগার, ক্লিনার, ডেটল, স্যাভলন অথবা ব্লিচিং পাউডার হাতের কাছে রাখুন।

আপনার ঈদের দিনটি আনন্দঘন করে তুলতে সব প্রস্তুতি একটু আগেই সেরে রাখুন। যাবতীয় প্রয়োজনীয় উপকরণ হাতের কাছে থাকলে আপনার কষ্ট ও সময় দুটোই অনেকটা বেঁচে যাবে।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।