সুন্দরভাবে সাজিয়ে তুলুন আপনার বুকশেলফ

Tips for Arranging & Organizing Bookshelvesপ্রায়ই দেখা যায় প্রয়োজনের সময় প্রয়োজনীয় বইটি খুঁজে পাওয়া যায় না। আর যাদের বুকসেলফে প্রচুর বই তাদের জন্য এই ঝামেলা আরো বেশি। একটি সুন্দরভাবে সাজানো, গোছানো বুকসেলফ যেমন আপনার মনন-রুচিশীলতার পরিচয় দেয় তেমনি তা ঘরের সৌন্দর্য বাড়িয়ে তোলে বহুগুন। আসুনে জেনে নেই কিভাবে আমরা সহজেই বই গুছিয়ে রাখতে পারি।

  • প্রথমেই সব বই নামিয়ে মেঝেতে রাখুন। বুকসেলফ পরিষ্কার করে নিন।
  • অপ্রয়োজনীয় বইগুলো বেছে বেছে আলাদা করে ফেলুন। ফেলে দেয়ার চেয়ে কোন লাইব্রেরী বা কাউকে দিয়ে দিন।
  • বইগুলো তাদের ধরণ অনুযায়ী ভাগ করে ফেলুন। যেমন, ছোটদের বই, গল্প, উপন্যাস, কবিতা, ধর্মীয় বই-ইত্যাদি।
  • এবার একেক ধরনের বই একেক সেলফে রাখুন। এরপর ছোট্ট একটি কাগজে “ধরণের” নাম লিখে সেলফের গায়ে আঠা বা টেপ দিয়ে লাগিয়ে রাখতে পারেন।
  • ঠাসাঠাসি করে না রেখে একটু হালকাভাবে বই রাখুন। এতে প্রয়োজনে বই বের করতে এবং পরিষ্কার করতে সুবিধা হবে।
  • বই রাখার সময় খেয়াল রাখবেন যেন বাইন্ডিং করা অংশ (যেখানে বইয়ের নাম লেখা থাকে) বাইরের দিকে থাকে।
  • ভারী বইগুলো নিচের দিকের তাকে রাখুন। এতে বইয়ের ভারে তাক বাঁকা হয়ে যাবার সম্ভবনা কমে যাবে।
  • প্রতিমাসে একবার হলেও বইগুলো বের করে মুছে রাখুন। বুকসেলফ পরিষ্কার করুন।
  • বুকসেলফ কিছুটা রঙ্গিন করতে একপাশে ছোট্ট ফুলদানী অথবা পারিবারিক ছবি রাখতে পারেন।
  • আপনার যদি বই ধার দেবার অভ্যাস থাকে তবে সেলফের একপাশে ছোট একটি খাতা বা ডায়রিতে গ্রহীতার নাম, তারিখ, মোবাইল নং লিখে রাখুন। এতে বই হারানোর সম্ভবনা কমে যাবে।

সাজানো হয়ে গেলে এবার বাইরে থেকে দেখুন ধরণ অনুযায়ী বইগুলো ঠিক ঠিক জায়গায় রাখতে পেরেছেন কিনা। প্রয়োজনে আরো একবার সাজাতে চেষ্টা করুন। শুভকামনা রইলো।

এক্সট্রা টিপস
জায়গা থাকলে বুক শেলফে ফুলদানি বা শো-পিস রাখতে পারেন, যা আপনার শেলফের সৌন্দর্য বাড়িয়ে তুলবে। এ বিষয়ে আরো ধারণা পেতে দেখতে পারেন-

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।