দীর্ঘক্ষণ কম্পিউটারে কাজ করার পরও চোখকে রাখুন সুস্থ

pc eyeবর্তমানে দেশের প্রায় সব অফিস এবং ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কম্পিউটারের বহুল ব্যবহার শুরু হয়েছে। এমন অনেক প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে কম্পিউটার ছাড়া যাদের ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ড একেবারেই অচল। আর এসব কম্পিউটারে দীর্ঘক্ষণ কাজ করছেন যারা, তাদের প্রায় সবারই একটি নির্দিষ্ট অভিযোগ আছে, আর তা হল চোখের সমস্যা। এই সমস্যা থেকে কিন্তু খুব সহজেই মুক্তি পাওয়া যায়। জেনে নিন কিছু পদ্ধতি যা অনুসরণ করলে দীর্ঘক্ষণ কম্পিউটারে কাজ করার পরেও আপনার চোখ সুস্থ থাকবে।

১. মনিটর রাখুন চোখ থেকে ২০-৩০ ইঞ্চি দূরে। গবেষণায় দেখা গেছে এই দূরত্বে মনিটর রাখা হলে তাতে কাজ করতে যেমন সুবিধা হয় তেমনি মুক্তি পাওয়া যায় চোখের ব্যথা থেকে।

২. ফন্ট এবং আইকনগুলো যতটা সম্ভব বড় করে রাখুন। কারণ ছোট ফন্ট এবং আইকন ভালভাবে দেখার জন্য আপনাকে মনিটরের দিকে বেশ অনেকটাই ঝুঁকে পড়তে হয়। Windows Xp থেকে শুরু করে Windows 7 বা 8 সবগুলোতেই ফন্ট এবং আইকন ছোট বড় করার সহজ অপশন দেয়া থাকে।

৩. মনিটর এমন ভাবে রাখুন যাতে তার সর্বোচ্চ অংশ আপনার দৃষ্টিসীমার নিচে অবস্থান করে। এতে করে কাজ করার সময় খুব স্বাভাবিকভাবেই আপনার চোখের খুব অল্প অংশ মনিটরের সামনে উন্মুক্ত হবে। এছাড়া আপনার অজান্তেই বার বার চোখের পলক পড়বে যা চোখকে আর্দ্র রাখবে।

৪. যে কক্ষে কাজ করছেন তাতে যেন পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা থাকে তা নিশ্চিত করুন। খুব উজ্জ্বল বা খুব স্বল্প আলো উভয়ই চোখের জন্য ক্ষতিকর।

৫. মনিটরে ব্যবহার করুন এন্টি গ্লেয়ার ফিল্টার লাগিয়ে নিন। চোখ অনেকটাই ভাল রাখতে সাহায্য করবে এটি।

৬. মনিটরের ধুলো বালি নিয়মিত পরিষ্কার রাখুন। কারণ দীর্ঘদিন ধুলো জমে মনিটর ঝাপসা হয়ে পড়ে। এতে আপনার চোখে অনেক বেশি চাপ পড়বে কাজ করার সময়।

৭. বিরতি নিন কাজের ফাঁকে ফাঁকে। কম্পিউটারে কাজের সময় নিয়ম হল প্রতি ২০ মিনিট পর পর ২০ সেকেন্ডের জন্য বিরতি নেয়া এবং দূরে তাকানো। এতে আপনার চোখ বিশ্রাম পায়। অনেক সফটওয়্যার এবং ওয়েব সাইট আছে যারা আপনাকে প্রতি ২০ মিনিট পর পর সতর্ক বার্তা পাঠাবে বিরতি নেয়ার জন্য। তেমনই একটি কার্যকর এবং ঝামেলা মুক্ত ওয়েব সাইট হল প্রটেক্ট ইউর ভিশন.অর্গ। এই ওয়েব সাইটটি প্রতি ২০ মিনিট পর পর নিজ থেকেই আপনাকে জানিয়ে দিবে আপনার বিরতি নেয়ার সময়।

চোখ সুস্থ রাখার ব্যাপারে আরো জানতে পড়ুন পরামর্শ.কম এ প্রকাশিতঃ
জেনে নিন চোখের ৫ টি সহজ ব্যায়াম সংক্রান্ত পরামর্শ

পরামর্শ.কম এ স্বাস্থ্য ও রূপচর্চা বিভাগে প্রকাশিত লেখাগুলো সংশ্লিষ্ট লেখকের ব্যক্তিগত মতামত ও সাধারণ তথ্যের ভিত্তিতে লিখিত। তাই এসব লেখাকে সরাসরি চিকিৎসা বা স্বাস্থ্য অথবা রূপচর্চা বিষয়ক বিশেষজ্ঞ পরামর্শ হিসেবে গণ্য করা যাবে না। স্বাস্থ্য/ রূপচর্চা সংক্রান্ত যেকোন তথ্য কিংবা চিকিৎসার জন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের/বিউটিশিয়ানের শরণাপন্ন হোন।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।