ঘরোয়া উপাদান থেকেই সংগ্রহ করুন ‘প্রাকৃতিক পেইনকিলার’

pkমাথা ব্যথা থেকে শুরু করে দাঁত ব্যথা বা হাড়ের ব্যথায় আমরা সবসময় ট্যাবলেট বা ক্যাপসুল খেয়ে নিই। কিন্তু এভাবে যখন তখন পেইন কিলার খাওয়া উচিত নয়। আপনি চাইলেই আপনার রান্নাঘরে কিংবা ফ্রিজ থেকে নিতে পারেন প্রাকৃতিক পেইকিলার। আসুন নাম জেনে নিই এই প্রাকৃতিক পাঁচ পেইকিলারের নাম।

১) পিঠের ব্যথা কমাতে আঙুরঃ

Ohio University একটি গবেষণার মাধ্যমে দেখিয়েছে প্রতিদিন এক কাপ আঙুর পিঠের ব্যথা দূর করতে দারুণ উপকারী। এর কারণ আঙুরের মধ্যে রয়েছে resveratrol নামক উপাদান। আর শিকাগোর Rush University Medical Center ল্যাবে গবেষণার পর বের করেছে resveratrol অস্থিসন্ধির নানা অংশের ক্ষতি সাধনে বাধা সৃষ্টি করে। যার ফলে এটি পিঠের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে।

২) হাড়ের ব্যথা নিরসনে আনারসঃ

হাড়ের ব্যথা সারাতে আনারসের জুড়ি নেই। প্রচুর ম্যাংগানিজ থাকার কারণে এটি হাড়ের সুগঠন নিশ্চিত করে এবং আরথ্রাইটিসের ব্যথাসহ হাড়ের নানা ব্যথা উপশম করে।

৩) পুরনো গেঁটে বাত সারাবে কমলাঃ
কমলাতে Beta-cryptoxanthin নামক উপাদান রয়েছে। যা anti-inflammatory রোধে সাহায্য করে এবং গেঁটে বাত (rheumatoid arthritis) সারাতে অগ্রণী ভুমিকা পালন করে। কমলা বা কমলার রস দুটোই এক্ষেত্রে উপকারী। আরো জেনে নেওয়া ভাল শুধু কমলাতেই নয়, কমলা জাতীয় সব ফলগুলোতেও একই উপকার পেতে পারেন।

৪) দাঁত ও হাড় ব্যথা কমাতে রসুনঃ

সেই প্রাচীনকাল থেকেই বিভিন্ন ধরণের ব্যথা কমাতে রসুন দারুণ কার্যকর। রসুনের একটি কোয়া এক টেবিল চামচ অলিভ অয়েলে গরম করে তা হাড়ের সংযোগস্থলে মালিশ করুন। কিছুক্ষণের মধ্যেই দেখবেন আপনার ব্যথা অবিশ্বাস্যভাবে কমে যেতে শুরু করেছে। এছাড়া দাঁতের ব্যথা কমাতে রসুনের তিনটি কোয়া সাথে এক চিমটি লবণ নিন। এবার এগুলো ভাল করে কচলিয়ে যে দাঁতে ব্যথা ঐ স্থানে লাগান। এতে খুব দ্রুত ব্যথা কমে যাবে।

৫) লবঙ্গঃ
দাঁত ব্যথার বিরুদ্ধে লবঙ্গের কার্যকারিতা অনেক গবেষণায় প্রমাণিত।দাঁতের ব্যথা নিরসনে একটি লবঙ্গ নিয়ে তা মুখে নিন। এবার যে দাঁতে ব্যথা সে পাশে নিয়ে চিবোতে থাকুন। লবঙ্গের নির্যাস বের হয়ে আসলে দুই মিনিট অপেক্ষা করুন। এবার কুলি করে ফেলুন। এতে ব্যথা কমে যাবে।

আর দেরি না করে আজই ব্যথা উপশমে সাহায্য নিন এসব প্রাকৃতিক উপাদানের। তবে দীর্ঘ মেয়াদের কোন সমস্যায় অবশ্যই আপনার চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।

.