সহজেই মনের মানুষটিকে জানান “ভালোবাসি”

1176323_534730759916010_1681665956_n
ছবির জন্য মডেল হয়েছেন- ফারজানা জামান এমি ও মাইনুল আলম মিশু

‘ভালোবাসি’ এই শক্তিশালী শব্দটা অনেকেই খুব দুর্বলভাবে ব্যবহার করে। শব্দটা খুব অর্থপূর্ণ। সুতরাং শব্দটা আপনাকে সেই অর্থেই বলতে হবে। অনেকদিন ধরে কাউকে ভালোবাসি বলতে চাইছেন। কিন্তু বলতে পারছেন না। তাহলে নিচের পরামর্শগুলো আপনার জন্যেই।

১) ভালবাসার সংজ্ঞা জানুনঃ

অনেকেই ভালোবাসার সংজ্ঞাটাই জানেন না। ভালোবাসাকে মোহ, শারীরিক চাহিদার সাথে গুলিয়ে ফেলেন অনেকেই। যাকে ভালোবাসি বলতে চান, প্রকৃত অর্থেই তাকে ভালোবাসেন নাকি সেই জিনিসটা অনুভব করুন মন থেকে। যখন আপনি মনে মনে ১০০ ভাগ নিশ্চিত যে আসলেই আপনার মন বলছে মানুষটাকে ভালোবাসি বলতে, কেবল তখনই সামনে এগোন।

২) অনুভব করুনঃ
যাকে ভালোবাসি বলতে চান সে যে আপনার বন্ধু বা তার চেয়েও বেশি সেটা একসময় আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন। বন্ধুত্ব এবং ভালোবাসার মাঝে একটা সীমা থাকে। আপনি যখন বুঝতে পারবেন আপনি সীমাটা পার করেছেন, তখনই উৎকৃষ্ট সময় ভালোবাসি বলার। শুধু অনুভব করুন সেই সীমাটা পার করেছেন কিনা।

৩) চোখে চোখ রেখে বলুনঃ
চোখে চোখ রেখে কথা বলা শুধু আন্তরিকতায় প্রকাশ করে না, এটি কথাটির বিশ্বাসযোগ্যতাও বাড়িয়ে তোলে। যখন আপনি প্রথম ভালোবাসি বলতে যাচ্ছেন, তা আপনার সঙ্গীর চোখের দিকে তাকিয়ে বলাটা অনেক আনন্দদায়ক। কেননা মুহূর্তটি আপনারা সারাজীবন মনে রাখবেন। অনুভূতিটা এমন হতে হবে, যেন মনে হয় আপনাদের দুজনের চোখের মাঝখানে আর কিছু নেই, এমনকি বাতাস পর্যন্ত না।

৪) সঠিক সময়ে বলুনঃ
সঠিক সময়ে ব্যাট না চালালে কি হয় ক্রিকেটে তো দেখেছেন, তাই না? আউট হয়ে সোজা ড্রেসিং রুমের দিকে হাঁটা ধরতে হবে। টাইমিং বা সময়জ্ঞান অনেক গুরুত্বপূর্ণ সবখানেই। ভালোবাসি বলার জন্যে ঠিক সময়টা বাছুন। আশেপাশে কোন শব্দ নেই, আপনি আর আপনার সঙ্গী একা কোন প্রাকৃতিক পরিবেশে বসে আছেন, এই একটু আগেই এক ঝলক বাতাস পাশ দিয়ে বয়ে গেল। ভালোবাসি বলার জন্যে এর চেয়ে উত্তম সময় আর কি হতে পারে। স্পষ্ট স্বরে, ধীরে সুস্থে বলে ফেলুন ‘ভালোবাসি।’

৫) প্রতিদান আশা করবেন নাঃ

কাউকে ‘ভালোবাসি’ বলে তার জবাবের জন্যে অপেক্ষা করুন। আপনি তাকে ভালোবাসি বলেছেন সুতরাং তাকেও সেটি বলতেই হবে এমনটি ভাবা যাবে না। আপনার কাছে সে কতটা দামি আপনি সেটাই প্রকাশ করেছেন। নিজে সৎ থেকে আপনার পছন্দের কথা জানিয়েছেন, ব্যস এটুকুই। এখন সেও যদি আপনাকে পছন্দ করে, তবে সে তার নিজের সময়ে, নিজের মত করে আপনাকে অবশ্যই জানাবে।

৬) সৃজনশীলতার সাথে প্রকাশ করুনঃ

‘ভালোবাসি’ এই কথাটা অনেকভাবেই বলা যায়। সৃজনশীল কিছু চেষ্টা করুন। কবিতা, অনুকাব্য, হাতে লেখা চিঠি, ভয়েস মেসেজ বিভিন্ন উপায়ে ভালোবাসি বলা যেতে পারে। যেটি মানানসই, আপনার সঙ্গী পছন্দ করতে পারে সেটিই ব্যবহার করুন।

৭) শারীরিক ভাষা ইতিবাচক রাখুনঃ

শুধু মুখে উচ্চারণ করে দিলেন ‘ভালোবাসি’ এতেই সব শুরু বা শেষ হয়ে গেল না। আপনার ভালোবাসা মৌখিক কিছু শব্দের মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে, কাজের মাধ্যমেও বুঝিয়ে দিন। ‘ভালোবাসি’ শব্দটি যে আপনি শুধু বলার জন্যেই বলেননি, আসলেই ভালোবাসেন তা বোঝাবার একটাই উপায়। ইতিবাচক শারীরিক ভাষা।

কাউকে ভালোবাসি বলাটা কিন্তু কঠিন কিছু নয়। শুধু মনে রাখবেন, শব্দটা যেন মন থেকে আসে। তবেই যাকে ভালোবাসি বলতে চাইছেন সে বুঝতে পারবে, আপনি তাকে আসলেই ভালোবাসেন। তো আর দেরি কেন, আজই বলে দিন প্রিয় মানুষটির চোখে চোখ রেখে। বেস্ট অফ লাক।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।