রাত জেগে খেলা দেখার ফলে সৃষ্ট স্বাস্থ্যঝুঁকিগুলো এড়িয়ে চলবেন যেভাবে

713377-d8b6940c-f5ea-11e3-9227-d59f5c5d579bচলছে বিশ্বকাপ ফুটবল। চলছে রাত জেগে প্রিয় দলের খেলা দেখা। এছাড়াও রাত জেগে দেখা হয় ক্লাব ফুটবলের নিজের পছন্দের দলের খেলা। আবার অনেকে রাত জেগে সিনেমাও দেখে। এইভাবে রাত জেগে খেলা কিংবা সিনেমা দেখতে গিয়ে শরীরে নানা উপসর্গ দেখা দিতে পারে। তাই রাত জাগতে আপনাকে মাথায় রাখতে হবে বেশ কিছু বিষয়। আসুন দেখে নিই বিষয়গুলি।

১) চা-কফি কম খেতে হবেঃ
রাত জাগতে গিয়ে অনেকে চিন্তা করে, ঘুম কাটানোর জন্যে চা-কফির বিকল্প কিছু নেই। সেই ভাবনা থেকে বেশ কয়েক কাপ চা-কফি খাওয়া হয়ে যায়। তবে অধিক পরিমানে চা-কফি পান করা কিন্তু শরীরের জন্যে ক্ষতিকর। কারণ এইসবে থাকে প্রচুর পরিমাণে ক্যাফেইন। আর অধিক পরিমাণ ক্যাফেইন ক্ষতিকর শরীরের জন্য। সুতরাং চা-কফিকে ঘুম তাড়ানোর প্রধান অস্ত্র হিসেবে ধরা যাবে না।

২) ফাস্ট ফুড, স্ন্যাক্স কম খেতে হবেঃ
রাত জাগতে গিয়ে স্বাভাবিকভাবেই অনেকের ক্ষুধা লাগে। এক্ষেত্রে বেশিরভাগ সময় খাবারের মেন্যুতে থাকে বার্গার, চিপস, চকলেট জাতীয় খাবার। কিন্তু গভীর রাতে এইসব খাবার শরীরের জন্যে খুবই ক্ষতিকর। এতে গ্যাস্ট্রিক, বদহজম এইসব হতে পারে। তাই রাত জাগলে এইসব খাবার থেকে দূরে থেকে সহজপাচ্য কোন হালকা খাবার বেছে নিতে হবে।

৩) ঘুমের পরিমাণ যেন কম না হয়ঃ
একজন সুস্থ স্বাভাবিক পূর্ণ বয়স্ক মানুষের দৈনিক ৭-৮ ঘণ্টা ঘুমানো উচিৎ। রাত জাগতে গিয়ে আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে আপনি দৈনিক ৭-৮ ঘণ্টা ঘুমাচ্ছেন কিনা। কম ঘুমে পরদিন আপনার কর্মক্ষেত্রে নানা ধরণের সমস্যা হতে পারে। এছাড়া ঠিকভাবে না ঘুমালে আপনি বিভিন্ন রকম রোগের সম্মুখীন হতে পারেন। এই ক্ষেত্রে যে সময়ে খেলা শুরু হবে ঠিক ঐসময়েই উঠতে পারেন। বাকি সময়টা ঘুমিয়ে নিন।

৪) চোখকে বিশ্রাম দিনঃ
এক নাগাড়ে টেলিভিশন, কম্পিউটারের মনিটরের দিকে তাকিয়ে থাকলে চোখের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই প্রতি এক ঘণ্টা পরপর পাঁচ থেকে দশ মিনিট স্ক্রিন থেকে চোখ সরিয়ে নিন। কয়েকবার চোখের পলক ফেলুন, দূরে কোথাও তাকান।

৫) ধূমপান বর্জন করুনঃ
রাত জাগার ক্ষেত্রে অনেকের ধূমপান করার হার বেড়ে যায়। মাথায় রাখতে হবে খেলা দেখতে দেখতে অথবা সিনেমা দেখার সময় ধূমপান করা যাবে না।

রাত জেগে যাই করুন না কেন উপরের বিষয়গুলি মেনে চলতে হবে। এতে আপনি রাত জেগে খেলা দেখলেও বিভিন্ন সমস্যা থেকে বেঁচে থাকতে পারবেন।

পরামর্শ.কম এ স্বাস্থ্য ও রূপচর্চা বিভাগে প্রকাশিত লেখাগুলো সংশ্লিষ্ট লেখকের ব্যক্তিগত মতামত ও সাধারণ তথ্যের ভিত্তিতে লিখিত। তাই এসব লেখাকে সরাসরি চিকিৎসা বা স্বাস্থ্য অথবা রূপচর্চা বিষয়ক বিশেষজ্ঞ পরামর্শ হিসেবে গণ্য করা যাবে না। স্বাস্থ্য/ রূপচর্চা সংক্রান্ত যেকোন তথ্য কিংবা চিকিৎসার জন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের/বিউটিশিয়ানের শরণাপন্ন হোন।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।