ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি

Home Remedies For Diabetesডায়াবেটিস (diabetes) নিয়ে যন্ত্রণার মধ্যে জীবন যাপন করছেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়াটা বেশ কঠিন। কারণ বর্তমান সময়ের সব থেকে বহুল পরিচিত রোগের নাম হচ্ছে ডায়াবেটিস। তবে আশার বাণী হচ্ছে ডায়াবেটিস প্রতিরোধে আমরা প্রাকৃতিক ও ঘরোয়া পদ্ধতি ব্যবহার করে সহজেই এই রোগ নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারি। আসুন ডায়াবেটিস প্রতিরোধে কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের ঘরোয়া সমাধান

  • ডুমুর পাতা (fig leaves): ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে ডুমুর পাতা ব্যবহার খুব উপকারী। যদিও এটি তেমন প্রচলিত প্রতিষেধক নয়। ডায়াবেটিসে আক্রান্ত রোগী প্রতিদিন সকালে নাশতার সাথে ডুমুর পাতার রস গ্রহণ করতে পারেন। অথবা ডুমুরের পাতা পানিতে সিদ্ধ করে সেই পানি চা আকারে পান করলে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে থাকে।
  • দারুচিনি (cinnamon): আপনার রক্তে সুগারের মাত্রা কমিয়ে আনতে দারুচিনি খুব কার্যকরী। তাই ডায়াবেটিসে আক্রান্ত রোগীরা দারুচিনি গ্রহণ করার ফলে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রনে রাখতে পারেন।
  • আঙ্গুরের বীজের রস (grape seed extract): আপনার ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রনে রাখতে আঙ্গুরের বীজ ব্যবহার করতে পারেন। প্রতিদিন ৫০ গ্রাম আঙ্গুরের বীজের রস গ্রহণ করলে রক্তে সুগারের মাত্রা আশানুরূপ ভাবে কমতে থাকে।
  • অলিভ অয়েল (olive oil): অলিভ অয়েলের একগাদা গুনের মধ্যে একটি অন্যতম গুণ হল ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ। প্রতিদিন রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে এক কাপ অলিভ অয়েল পান করলে ডায়াবেটিস আপনার নিয়ন্ত্রণে থাকবে।
  • করলা (bitter melon): আপনার ডায়াবেটিস কমাতে করলার গুনের তুলনা হয়না। প্রতিদিন খালি পেটে একগ্লাস করলার জুস খেলে ডায়াবেটিস আপনাআপনি আপনার নিয়ন্ত্রণে থাকবে।

ডায়াবেটিস কোন জীবন নাশক রোগের নাম নয়। আপনি চাইলে ঘরোয়া ভাবেই এই রোগের প্রতিকার করে স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে পারেন।

আরো পড়ুন
ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে করলার জুস তৈরি করবেন যেভাবে
ডায়াবেটিস রোগীরা পান করতে পারেন যে ৩ টি উপকারী ফ্রুট জুস

পরামর্শ.কম এ স্বাস্থ্য বিভাগে প্রকাশিত লেখাগুলো সংশ্লিষ্ট লেখকের ব্যক্তিগত মতামত ও সাধারণ তথ্যের ভিত্তিতে লিখিত। তাই এসব লেখাকে সরাসরি চিকিৎসা বা স্বাস্থ্য বিষয়ক পরামর্শ হিসেবে গণ্য করা যাবে না। স্বাস্থ্য সংক্রান্ত যেকোন তথ্য কিংবা চিকিৎসার জন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের শরণাপন্ন হোন।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।