বাবা দিবসে বাবাকে দিতে পারেন যে উপহারগুলো

happy-fathers-day-2012আজ ১৫ই জুন। বিশ্ব বাবা দিবস। প্রতি বছর জুন মাসের তৃতীয় রোববার বিশ্বব্যাপী এ দিনটি পালিত হয় বাবার প্রতি শ্রদ্ধা এবং অকৃত্রিম ভালবাসার নিদর্শন হিসেবে। যদিও মা দিবসের মত ঘটা করে পালন করা হয় না। আসলে বাবা-মা এর প্রতি সন্তানের ভালোবাসা একদিনের নয়, প্রতি দিনের, প্রতি মুহূর্তের, সারা জীবনের। তবু এ বিশেষ দিনগুলো একটু আলাদাভাবে পালিত হয় আসছে আমাদের ভালবাসার ব্যারোমিটারটিকে একটু বাড়িয়ে নেয়ার জন্য।

আমরা প্রিয়জনদের বিভিন্ন উপহার দিয়ে আমরা প্রিয়জনদের প্রতি আমাদের ভালোবাসা প্রকাশ করে থাকি। তাই এবারের বাবা দিবসে বাবাকে কি উপহার দিবেন বা দিতে পারেন তাই নিয়ে কিছু পরামর্শ।

ঘড়ি-আপনার বাবা যদি ঘড়ি পরতে ভালবাসেন তাহলে যেকোনো ভাল ব্র্যান্ডের ঘড়ি দিতে পারেন। বর্তমানে আমদের দেশে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ঘড়ি পাওয়া যায়। যদি আপনার বাজেট না থাকে তবে ভাল মানের রেপ্লিকা কিনতে পারেন।

মগ- বর্তমানে মগে ছবি প্রিন্ট করা যাই আপনি আর আপনার বাবার যুগল ছবি মগে প্রিন্ট করে বাবাকে দিতে পারেন।

টাই-আপনার বাবা যদি এখনো টাই পরে অফিসে যান তাহলে উনাকে চমৎকার একটি টাই উপহার দিতে পারেন।

পাঞ্জাবি-পাঞ্জাবি পছন্দ করেন না এমন মানুষ খুবই কম। আপনার বাবার পছন্দের রঙ যদি সাদা হয় তাহলে সাদা রঙের পাঞ্জাবি দিন কারণ এই গরমে সাদার চেয়ে আর ভালো কোন রঙ হতে পারে না।

পারফিউম-উপহার হিসেবে পারফিউম এর তুলনা নেই। সিকে, ক্যারোলিনা, বারবেরি, আরমানি, ডিওর, হুগো বস, ইথারনিটি সহ নানা ব্যান্ডের যেকোনো পারফিউম দিতে পারেন।

ট্যাব– আপনার বাবা যদি প্রযুক্তি প্রেমী হন তাহলে একটি ট্যাব উপহার দিতে পারেন। সাথে দিতে পারেন আপনার বাবার পছন্দের সব গান।

বই– আপনার বাবা কি বই পড়তে ভালবাসেন? তাহলে উনার প্রিয় লেখকের বই উপহার দিতে পারেন। আর যদি কবিতা আবৃত্তি করেন তাহলে কিছু বিখ্যাত কবির কবিতার বই বাবাকে উপহার দিন।

মানিব্যাগ– লেভিস ডিএন্ডজি, সিকে, ব্যালি, লি, অ্যাপল গার্ডেন, যেকোনো ব্র্যান্ডের মানিব্যাগ উপহার দিতে পারেন।

বাবার পছন্দের বিষয়টি মাথায় রেখে কিনবেন বাবা দিবসের সেরা উপহারটি। এছাড়াও আপনি বাবাকে নিয়ে ঘুরে আসতে পারেন বাবার পছন্দের জায়গায় অথবা নিয়ে জেতে পারেন কোন রেস্টুরেন্টে যেখানে খাওয়াতে পারেন তার পছন্দের খাবার। হয়ত আপনি অনেক ব্যস্ত তবু চেষ্টা করুন এই ব্যস্ততার মাঝে একটু সময় বের করে বাবাকে সময় দেওয়ার। একটা সময় বাবা আমাদের হাত ধরে চলতে শিখিয়েছেন আজ যেন তার প্রতি ভালবাসা প্রকাশে আমাদের কোন কার্পণ্য না থাকে।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।