যেভাবে কাটিয়ে উঠবেন “লোকে কি ভাববে!” ভীতি

Ignore

বন্ধুর বিয়ের অনুষ্ঠানে সবাই নেচে গেয়ে আনন্দ করছে, আর আপনি চুপচাপ এক পাশে দাঁড়িয়ে হাততালি দিচ্ছেন। খুব পছন্দ করেন এমন কাউকে কথাটা বারবার বলতে গিয়েও ফিরে এসেছেন। নিজের প্রিয় ঢিলেঢালা প্যান্ট না পরে খুব টাইট এবং অপছন্দের জিন্স পরে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। খুব ভাল গান গাইতে পারেন, কিন্তু আপনার হাতে গিটার নেই, আছে বিশাল একটা ক্যালকুলেটর যা নিয়ে দিনের পর দিন বিরক্তিকর হিসাব নিকাশের চাকরী করে যাচ্ছেন।

একবার পেছন ফিরে নিজের জীবনের দিকে তাকান। কত আনন্দ মিস করেছেন, কত সুযোগ আপনার হাতের পাশ দিয়ে চলে গেছে শুধু মাত্র এই একটা ভীতির কারণে “লোকে কি ভাববে!” (worrying about what others think)
আজকের এই লেখায় আপনাদের জানাচ্ছি কিভাবে এই “লোকে কি ভাববে!” ভীতি কাটিয়ে উঠবেন।

১. নিজের সম্পর্কে পূর্ণ ধারণা রাখুন (know your values):

আপনার কতটুকু যোগ্যতা রয়েছে, আপনি কতদূর যেতে পারেন, আপনার জীবনের লক্ষ্য কি এবং তা অর্জনের জন্য কি কি করতে আপনি প্রস্তুত এসব বিষয়ে পূর্ণ ধারণা রাখুন। পৃথিবীর কোন মানুষই অকাজের নয়, কোন না কোন প্রতিভা তাদের রয়েছেই। যখনই আপনি নিজকে সঠিকভাবে চিনতে পারবেন, তখন কে আপনার সম্পর্কে কি ভাবলো (people worrying) তা আর গুরুত্বপূর্ণ মনে হবে না।

২. পরিবর্তন করুন নিজের মানসিকতাকে (change own mentality):

এই গল্পটা নিশ্চয় অনেকবারই শুনেছেন। ‘ একটা পুকুরের দুই পাড়ে খুব ভোরে একজন চোর এবং একজন মৌলভী একই সাথে হাত-মুখ ধুচ্ছিলেন। চোরকে দেখে মৌলভী ভাবলেন, এই লোকটি কত ভাল সকাল সকাল ওযু করতে এসেছে। আর মৌলভীকে দেখে চোর ভাবলো, এই লোক নিশ্চয় আমার মতই চোর।’
আপনি নিজের মানসিকতা প্রথমে পরিবর্তন করে নিন। অন্যের ইতিবাচক (positive thinking) এবং ভাল দিকগুলো দেখার চেষ্টা করুন। তখন আপনার মনে হবে অন্যেরাও আপনার ভাল দিকগুলোই দেখছে।

৩. ভিত্তিহীন সমালোচনা উপেক্ষা করুন (ignore animadversion):

আপনি কি করছেন তা নিয়ে লোকে অনেক কথাই বলবে। কিন্তু একদিন নিরিবিলিতে বসে ভেবে দেখুন তাদের বলা কথাগুলো আপনার কোন উপকার করেছে কি? আপনি আজ সবার সামনে বেশ ভয়ে ভয়ে বক্তৃতা দিলেন, লোকে আপনার সম্পর্কে অনেক কিছুই ভাবলো। কিন্তু আজ থেকে ১ সপ্তাহ পর বা ১ মাস পর এসব কি আপনার জীবনে কোন প্রভাব ফেলবে? বরং আজ যে ইতস্তত করে সবার সামনে বক্তৃতা দিলেন, তাতে আপনার আত্মবিশ্বাস (confidence) এবং অভিজ্ঞতা বাড়লো। ১ মাস পর যদি আবারো বক্তৃতা দেয়ার প্রয়োজন হয় তা আপনাকে অনেক সাহায্য করবে। তাই লোকের ভিত্তিহীন সমালোচনাকে উপেক্ষা করতে শিখুন।

৪. আত্মবিশ্বাসী মানুষের সাথে মিশুন (surround yourself with pros):

এমন মানুষের সাথে মিশুন যারা আত্মপ্রত্যয়ী। নিজেদের কাজ সম্পর্কে সচেতন। ফলে খুব অল্প দিনেই আপনার “লোকে কি ভাববে!” (worrying about what others think) ভীতি দূর হয়ে যাবে।

৫. সবাইকেই সন্তুষ্ট করার মানসিকতা ত্যাগ করুন (you can’t please everyone):

আপনি কখনোই আশেপাশের সবাইকে সন্তুষ্ট করতে পারবেন না। কিছু মানুষ হয়তো বিনা কারণেই আপনার সমালোচনা করবে। আপনি আশে-পাশে লক্ষ্য করলে তিন ধরণের মানুষ পাবেনঃ

  1. যারা আপনার কাজকে উৎসাহ দেয়
  2. যারা আপনি কি করছেন তা নিয়ে মোটেই মাথা ঘামায় না
  3. যারা আপনার ভাল মন্দ সব কাজেরই খুঁত খুঁজে বের করে।

1 এবং 2 নাম্বার মানসিকতার অধিকারী মানুষকেই আপনি প্রাধান্য দিন,  3 নাম্বার এর কথা ভুলে যান কারণ কোন ভাবেই তাদের সন্তুষ্ট করা সম্ভব না।

এই ধরণের আরও কিছু লেখা পড়তে ক্লিক করুনঃ

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।