গরমে আপনার সাজ পোশাক কেমন হবে?

3372581036_0609e2eedc_oঋতু পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে বদল হয় মানুষের সাজ পোশাক। কিছুদিন আগেও ফুলহাতা, কলার দেয়া জামা পরলেও এই গরমে তা মোটেও আরামদায়ক নয়। তাই গরমে জামা-কাপড়ে আসে ব্যাপক পরিবর্তন। আর তার সাথে সাজগোজেও আসে ভিন্নতা। আসুন দেখা যাক কেমন হবে আপনার গরমের সাজ পোশাক।

বেছে নিন হালকা রঙের কাপড়
সাদা, হালকা গোলাপি, হালকা বেগুনী, হালকা নীল, বাদামি, আকাশি, হালকা হলুদ, ধূসরসহ হালকা রঙের পোশাকগুলো এই গরমে প্রাধান্য দিতে পারেন। গরমে সাদা ও অন্যান্য হালকা রঙের পোশাক শুধু তাপ শোষনই করে না, সেই সঙ্গে চোখকে দেয় প্রশান্তি। তবে গরমকালে সাদা রঙের পোশাকের জয়জয়কার সবসময়ই।

গরমে নরম কাপড়
গরমে ঢিলেঢালা সুতির নরম পোশাক বেশ আরামদায়ক। কেননা তা জামা-কাপড়ের অভ্যন্তরে বায়ু চলাচলে সাহায্য করে এবং শরীরকে ঠান্ডা রাখে। গরমে সুতি, তাঁত, খাদি কাপড় দিয়ে নিজের পছন্দমত পোশাক বানাতে পারেন। সুতি কাপড়ের পাশাপাশি গরমে শিফন,কটন, কোটা কাপড়ের পোশাকেরও জনপ্রিয়তা রয়েছে। তবে গরমে পোশাক নির্বাচনের ক্ষেত্রে স্বস্তির পাশাপাশি সৌন্দর্যটাকেও খেয়াল রাখতে হবে। এজন্য সুতি কাপড়ের ওপর ব্লকপ্রিন্ট, এমব্রয়ডারি, স্ক্রিন প্রিন্ট ও হালকা সুতার কাজের পোশাক পরা যায়। সুতি কাপড় কিনে নিজের পছন্দমত ডিজাইন, লেস, বোতাম, ইয়োক দিয়ে তৈরি করে নিতে পারেন আপনার গরমের পোশাক।

গরমের সাজ
এই গরমে পোশাকের পাশাপাশি চাই মানানসই সাজ। গরমে ভারি মেকআপ একদমই বেমানান। ঘাম, ধুলোবালিতে মেকআপ গলে একেবারে বাজে অবস্থা হয়। তাই মেকআপ করার আগে অবশ্যই কিছু বিষয় লক্ষ্য রাখতে হবে। এ সময়ে লিকুইড ফাউন্ডেশন না দেয়া ভালো। আর দিলেও অবশ্যই ওয়াটার বেইজড হতে হবে। আর দিনের মেকআপ অবশ্যই হালকা হবে। ভালো হয় যদি মেকআপ করার আগে মুখে এক টুকরো বরফ ঘষে নিতে পারেন। তারপর ফাউন্ডেশন লাগিয়ে ওপরে ফেস পাউডার দিয়ে ফিনিশিং দেবেন। চোখেও খুব বেশি এবং উজ্জ্বল রঙের অইশ্যাডো না লাগানোই ভালো। বরং এখন বাজারে পাওয়া যাচ্ছে বিভিন্ন রঙের আই পেন্সিল। সেগুলো দিয়ে আপনি চোখের ওপরে-নিচে লাইনার করে নিতে পারেন। গরমে লিপস্টিকও হালকা রঙের হওয়া উচিত ।

গরমে কেমন অলংকার পরবেন
গরমে মেয়েদের সাজসজ্জার ক্ষেত্রে কানে মুক্তার ছোট দুল এবং গলায় সরু চেইনের সঙ্গে মুক্তার লকেট পরতে পারেন। তাছাড়া পাথরের টপ বা ছোট ঝুমকা পরতে পারেন। বড় দুল একদম এড়িয়ে চলুন। হাতে হালকা একটা ব্রেসলেট থাকতে পারে। পায়ে আংটি বা পায়েল থাকতে পারে।

গরমে আরামদায়ক চুলের সাজ
যারা নিয়মিত অফিস করছেন এই গরমে, অফিসে চুল খোলা রাখা তাদের জন্য সম্ভব হয় না। চাকরিজীবী মেয়েরা চুল সামনে থেকে টেনে ‘পনিটেইল’ করে নিতে পারেন।আর যারা চুলটাকে একটু যত্ন করে রাখতে চান আবার একটু ফ্যাশন সচেতনও, তাঁরা সামনে ‘টু-স্প্রিং’ করে পেছনে ঝুঁটি করে নিতে পারেন। দেখতেও ভালো লাগবে আর গরম থেকেও পাবেন স্বস্তি।

একটু সচেতন হলেই এই প্রচণ্ড গরমেও আপনি থাকবেন প্রাণবন্ত এবং সাথে রুচিসম্মত পোশাক আর হালকা সাজগোজে আপনি হয়ে উঠবেন অনন্য।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইস বুক, টুইটার ,গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে