৭ টি মজার জোকস বলে হাসিয়ে দিতে পারেন যে কাউকে

funny-jokes

আমাদের আগের অনেক লেখাতেই আমরা বলেছি, যে কোন পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে একটু হেসে নিন, এক্ষেত্রে শোনাতে পারেন মজার কোন জোকস।

কিন্তু জোকসের খুব আকাল। নতুন জোকস খুঁজে বের করা, আবার সে জোকস বলে হাসানো। বিরাট চ্যালেঞ্জের কাজ।

সেই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় পরামর্শ.কম জানিয়ে দিচ্ছে সাতটি মজার জোকস। হেসে নিন খানিকক্ষণ। 🙂

১) কলা গাছ খাচ্ছিল এক হাতি।
এক সিংহ হেলতে দুলতে এল।

‘এই যে হাতি, এত যে গাছ সাবাড় করতেছস, জানস পৃথিবীর কি অবস্থা?’
হাতি চুপচাপ। কলা গাছ ভক্ষণে ব্যস্ত।

‘দিন দিন পৃথিবীর তাপ বাড়তেছে সেই খেয়াল আছে?

গ্রীন হাউস ইফেক্ট হইতে পারে জানস?’
হাতি চুপচাপ। কলা গাছ ভক্ষণে ব্যস্ত।

‘ঐ কালাপাহাড়, গ্রীন হাউস ইফেক্ট মানে কি জানস?’
এইবার হাতি শুঁড় দিয়ে পেছিয়ে, ধারাম করে এক আছাড় দিল সিংহকে।

সিংহ পিঠ ডলতে ডলতে বলল, ‘জানেন না বললেই পারতেন?’

২) একটা ছেলেকে যদি জিজ্ঞাসা করা হয়, তোমার ল্যাপটপটা কেমন?
‘আমার ল্যাপটপ? ৫০০ জিবি হার্ডডিস্ক, ৮ জিবি র্যােম, Windows 8, গ্রাফিক্স কার্ড ৫১২, প্রসেসর কোর আই 7.”

আর যদি কোন মেয়েকে জিজ্ঞাসা করা হয়, “তোমার ল্যাপটপটা কেমন?”
‘আমার না একটা পিংক কালারের ল্যাপটপ আছে!’

৩) স্বামী একটা বই পড়া শেষ করেছে। নাম ‘Man of the house.’
বইটি শেষ করে সে খুবই উত্তেজিত, তার স্ত্রীকে গিয়ে গম্ভীর স্বরে বলছে, ‘শুনে নাও, দুই কান খুলে শুনে নাও।

আজ থেকে এই ঘরের প্রধান হলাম আমি। আমি যা বলবো তাই হবে। আজ তুমি আমার প্রিয় চিকেন ফ্রাই করবে, পাস্তা করবে, ফ্রুট সালাদ করবে।

এরপর খাওয়ার পর ডেসার্ট হিসেবে রাখবে ফালুদা। তারপর আমি গোসল করবো, শ্যাম্পু করবো।

গোসলের পর মাথা আঁচড়িয়ে কে দিবে বলো দেখি?’

‘মনে হয় গোরস্থানের লোকেরা!’ হাই তুলতে তুলতে স্ত্রীর জবাব।

৪) হাইওয়েতে সড়ক দূর্ঘটনায় একটি প্রাইভেটকার সম্পূর্ন উল্টে গেল। গাড়ির চালক নিখোঁজ।
গাড়িকে ঘিরে জনতার বিশাল ভিড়।

এক টিভি নিউজ
রিপোর্টার কিছুতেই ভিড় ঠেলে ওই জায়গায় যেতে পারছিল না।

তাই সে বুদ্ধি করে জোরে জোরে চেঁচাতে লাগলো, “গাড়ির
সামনে যে মৃতদেহ আছে উনি আমার বাবা।

আমাকে সামনে যেতে দাও।”

জনতা অবাক হয়ে তার দিকে তাকালো এবং তাকে আগে যেতে দিল।
সাংবাদিক গাড়ির সামনে গিয়ে দেখল, একটি ছাগলের লাশ পড়ে আছে।

৫) ক্লাস ফোরে পড়ে এক ছেলে। খুবই বোকা, পড়ালেখা কিছুই পারে না। একদিন সাধারণ জ্ঞানের এক ক্লাসে স্যার একটি প্রশ্ন করলো।

ভাগ্যক্রমে ছেলেটির উত্তরটি জানা ছিল। সে হাত তুলে সবার আগে উত্তর দিয়ে দিল। স্যার সহ পুরো ক্লাস তো অবাক।
‘কিভাবে পারলি তুই এটা?’

ছাত্রটি মাথায় আঙ্গুল দিয়ে টোকা দিয়ে বলল, ‘আরে স্যার, কিডনি আছে না কিডনি!’

৬) বিয়ে খেতে গেছে এক পোস্টমাস্টার। সে খেয়াল করেনি যে তার প্যান্টের চেইন খোলা। তার এই অবস্থা দেখে বিয়েতে তাকে তার এক পরিচিত লোক বলল, ‘ভাই আপনার তো পোস্ট অফিস খোলা।’

পোস্ট মাস্টার বলল, ‘আরে না আমি আসার সময় অফিস বন্ধ করে এসেছি।’

লোকটি ফিসফিস করে আবার বলল, ‘ভাই আপনার পোস্ট অফিস খোলা।’

পোস্টমাস্টার রেগে গিয়ে বলল, ‘আরে মশাই! আমি বললাম না আসার আগে অফিস বন্ধ করে এসেছি!’

বিয়ে খেয়ে বাসায় কাপড় ছাড়ার সময় পোস্টমাস্টার তার প্যান্ট দেখেই যা বোঝার বুঝে গেল। সাথে সাথে ঐ লোককে ফোন দিল পোস্টমাস্টার।

“আচ্ছা ভাই, আমার যে ঐ সময় পোস্টঅফিস খোলা ছিল তখন কি পোস্টমাস্টার ভেতরে ছিল না বাইরে?”

৭) জহিরের শ্বশুর তার বাসায় ৭ দিন থাকবে বলে এসেছে। আজ ১৫ দিন হয়ে গেল যাওয়ার নাম নেই। জহির রেগেমেগে বলে ফেলেছে, ‘জাহান্নামে যান!’

শ্বশুর মশাই রেগে নিজ বাসায় চলে গিয়েছে। জহিরের স্ত্রী এসে জহিরকে বলল, ‘এক্ষুনি ফোন করে বাবাকে সরি বল। নইলে তোমার খবর আছে!’

জহির শ্বশুরকে ফোন করেছে।
‘হ্যালো, বাবা বলছেন?’
‘হ্যা বলছি।’
‘বাবা, একটু আগে যে আপনাকে বললাম জাহান্নামে যান?’
‘হ্যা। তো কি হয়েছে এখন?’

‘ইয়ে না মানে। পরে গেলেও চলবে!’

(Extra jokes. উপরের কোনটা বাতিল হলেঃ
ছেলে : আব্বু, আমি বিয়ে করবো।
বাবা : বাবা, তোমার তো এখনো বয়স
হয়নি। আরেকটু বড় হও তারপর তোমার
বিয়ে দিব।
ছেলে : আচ্ছা, আমি তাহলে খেলতে যাই।
বাবা: কোথায় খেলতে যাবা?
ছেলে : আব্বু , পাশের বাড়ির সুমির
সাথে।
বাবা : না বাবা, তুমি তো এখন বড় হইছো। এখন তো আর সুমির সাথে খেলা যাবেনা ।
ছেলে : আব্বু, তাহলে আমার বিয়ে!)

পাঠক জেনে তো গেলেন। এবার হাসি ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করুন প্রিয়জনের মুখে।

খেয়াল রাখবেন জোকস বলার সময় আপনার মুখ যেন হাসি হাসি থাকে। কিপ স্মাইলিং! 🙂

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।


সম্পর্কিত পোস্ট: