অনলাইন মার্কেটিংয়ে পিন্টারেস্ট ব্যবহারের ৬টি পরামর্শ

Pinterest

Pinterestসামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের এ সময়ে বিশ্বব্যাপী “পিন্টারেস্ট” (Pinterest) ব্যবহারকারীর সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। এখানে ব্যবহারকারীরা বিভিন্ন বিষয়ের উপর ধারণা ও ছবি শেয়ার করেন। কিন্তু পিন্টারেস্টের ব্যবহার শুধু এসবের মাঝেই সীমাবদ্ধ, এটা ভাবলে ভুল হবে। অনলাইন ব্যবসার ক্ষেত্রে পিন্টারেস্টের রয়েছে বিশাল সম্ভাবনা, যদি আপনি এটাকে কাজে লাগাতে পারেন।

পিন্টারেস্টে নিজের একাউন্ট তৈরি করার পর নিচের যে কাজগুলো শুরু করতে পারেন।

১) আপনার গ্রাহকদের আগ্রহ জাগিয়ে তুলুন:
পিন্টারেস্টে আপনার যে গ্রাহকদের মনোযোগ আকর্ষণের লক্ষ্য থাকবে তাদের জন্য আকর্ষণীয় ও তথ্যভিত্তিক কন্টেন্ট বা লেখা তৈরি করুন। আর আপনার কন্টেন্টকে আকর্ষণীয় করার জন্য সেটাকে ইনফোগ্রাফিক্স বা চার্ট, গ্রাফের মাধ্যমে উপস্থাপন করুন। আর এগুলো যেন দেখতেও দৃষ্টিনন্দন হয় সেটা লক্ষ্য রাখবেন। আপনার প্রতি পিন্টারেস্ট ব্যবহারকারীদের আগ্রহ তখনোই তৈরি হবে যখন আপনি নিয়মিতভাবে খুব ভালো মানের ইনফোগ্রাফিক কন্টেন্ট তাদের সাথে শেয়ার করবেন।

২) হয়ে উঠুন অন্যদের তুলনায় আলাদা:
মনে রাখবেন, পিন্টারেস্ট ব্যবহারকারীদের বেশিরভাগই কিন্তু যথেষ্ঠ সৃজনশীল। তাই তাদের সাথে প্রতিযোগিতায় নামতে হলে আপনাকেও হতে হবে সৃজনশীল ও অন্যদের থেকে একদম আলাদা। আপনার অনলাইন ব্যবসার গ্রাহক তৈরি ও বৃদ্ধি করার মূল শর্ত হচ্ছে পিন্টারেস্টে একটি আকর্ষণীয় শো-কেস তৈরি করতে হবে। এছাড়া থাকতে হবে নিজস্ব স্টাইল বা কৌশল যা আকৃষ্ট করবে গ্রাহকদেরকে।

৩) নিয়মিত আপডেট দিন:
যেকোন ব্র্যান্ডের জনপ্রিয় হয়ে ওঠার নির্ভর করে সেটা তার নিজের যাত্রাপথে কতটুকু স্থির ও দৃঢ় নিয়ম অনুসরণ করে। তাই পিন্টারেস্টে নিয়মিতভাবে নতুন পিন আপ্লোড করুন। অন্য ব্যবহারকারীদের মতামত নিন। আপনার ব্যবসার সাফল্যের জন্য গ্রাহকদের সাথে নিয়মিত যোগাযোগের বিষয়টি খুবই গুরত্বপূর্ণ।

৪) নিজের ব্র্যান্ডের আলাদা পরিচিতি তৈরি করুন:
অনলাইন মার্কেটে নিজের ব্র্যান্ডের একটা আলাদা ইমেজ গড়ে তোলা খুবই গুরত্বপূর্ণ। পুরো পিন্টারেস্ট কমিউনিটিতে নিজের ব্যবসা বা পণ্য অথবা কন্টেন্টকে পরিচয় করিয়ে দিতে এর কোন বিকল্প নেই। এছাড়া আপনাকে আপনার ব্যবসার উদ্দেশ্য ও ধরণ সম্পর্কে জানতে হবে, ঠিক করতে হবে আপনার প্রকৃত গ্রাহক কারা। এর মাধ্যমে আপনাকে বাড়িয়ে নিতে হবে আপনার গ্রাহক সংখ্যা।

৫) লক্ষ্য রাখুন গ্রাহকদের চাহিদা ও আগ্রহের প্রতি:
আপনি যে মার্কেটে কাজ করতে চান তার সাথে সংশ্লিষ্ট মানুষদের আগ্রহ কি নিয়ে? সেটা জানার খুব কার্যকর একটা জায়গা হচ্ছে পিন্টারেস্ট। শুধু নিজের ব্যবসা নিয়েই ভাবলে হবে না। অন্যান্য পিন্টারেস্ট ব্যবহারকারীদের অনুসরণ করুন। এছাড়া সাম্প্রতিক সময়ে আলোচিত বিষয় কি, সে বিষয়েও লক্ষ্য রাখুন। গ্রাহকদের মনোভাব জানলে আপনার জন্য ব্যবসার পরিকল্পনা করা সহজ হবে এবং আপনি খুব সহজে মার্কেটপ্লেসে জায়গা করে নিতে পারবেন।

৬) যোগাযোগ বাড়িয়ে তুলুন আপনার গ্রাহকদের সাথে:
শুধু কন্টেন্টকে আকর্ষণীয় করলেই হবে না। আপনার কন্টেন্টের প্রতি যারা আগ্রহী হবেন তাদের বিভিন্ন প্রশ্ন, মন্তব্য ও অনুসন্ধানের নিয়মিত উত্তর দিন। সব সময় তাদের আগ্রহ ও মতামতের দিকে লক্ষ্য রাখুন ও গুরত্ব দিন।

আপনি যদি কোন ব্যবসায়িক ওয়েবসাইট তৈরি করেন, তবে সেটার ভিজিটর বা ট্রাফিক বাড়ানোর জন্য পিন্টারেস্ট হতে পারে দারুন একটি মাধ্যম। তো আজই যাত্রা শুরু করুন পিন্টারেস্টে।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।