যে ৫টি উপকারের জন্য রমজানে লেবুর শরবত প্রতিদিন খাবেন

Lemon-juice-for-good-healthলেবু সহজলভ্য এবং এর শরবত সহজেই তৈরি করা যায় বলে সারাবছর ধরেই এটি একটি জনপ্রিয় পানীয়। রমজান মাসে ইফতারে লেবুর শরবতের যেন কোন বিকল্প নেই। রমজানে অন্যান্য পানীয়ের চেয়ে কেন লেবুর শরবত এগিয়ে রাখবেন তা জানার জন্যে আমাদের এই পরিবেশনা। জেনে নিন লেবুর শরবতের পাঁচটি অনন্য গুণ।

১) পানিশূণ্যতা রোধেঃ
লেবুতে ভিটামিন বি, রিবোফ্লাভিন, ক্যালসিয়াম, ফরফরাস, ম্যাগনেসিয়াম ইত্যাদি উপাদান বিদ্যমান।
সারাদিন রোজা রাখার পর শরীরে যে পানিশূণ্যতার সৃষ্টি হয়, লেবুর শরবত তা পূরণে কার্যকর ভুমিকা পালন করে।

২) হজমে সহায়তা ও কোষ্ঠকাঠিন্য রোধেঃ

রমজান মাসে খাওয়ার রুটিনে পরিবর্তন আসার কারণে সাথে প্রচুর তেলের খাবার খাওয়ার ফলে প্রায় রোজাদারের পেটের নানা সমস্যায় ভুগতে হয়। লেবুর শরবতে ভিটামিন বি, ম্যাগনেসিয়াম প্রভৃতি উপাদান থাকার কারণে লেবু হজমে সহায়তা করে ও কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে।

৩) ওজন কমাতে সহায়তা করেঃ

অনেকেই ওজন কমানোর জন্যে রমজান মাসকে বেছে নেয়। সে ক্ষেত্রে লেবুর শরবত হতে পারে আপনার অন্যতম অস্ত্র। সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গেছে লেবুর মধ্যে ‘পেকটিন’ নামের একটি দ্রবণীয় ফাইবার আছে যা ওজন কমাতে সাহায্য করে।

৪) কর্মশক্তি বাড়ায়ঃ
লেবুর মধ্যে প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম থাকে। যা কর্ম উদ্যম বাড়াতে এবং আপনাকে চাঙ্গা করে তুলতে সাহায্য করে, রমজান মাসে যা খুবই দরকার।

৫) দাঁতের সুরক্ষা ও মুখের দুর্গন্ধ দূর করেঃ

লেবুর মধ্যে রয়েছে ক্যালসিয়াম যা দাঁতের জন্যে দরকারি। এছাড়া রমজান মাসে অনেকের মুখে দুর্গন্ধ হতে পারে। লেবুতে ভিটামিন সি সহ আরো বেশ কিছু উপাদান আছে যা মুখের দুর্গন্ধ কমায়।

এই পাঁচটি ছাড়াও লেবুর আরো অনেক গুনাগুন রয়েছে। তাই ইফতারে অবশ্যই লেবুর শরবত রাখুন, আর সতেজ থাকুন পুরো রমজান মাস।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।