ইন্টারভিউতে মেয়েদের সাজসজ্জায় যা এড়িয়ে চলা উচিত

rimi
ছবি কৃতজ্ঞতা- রিমি শারমিন

দিন দিন যুগের সাথে তাল মিলিয়ে নানা কাজের ক্ষেত্র তৈরী হচ্ছে। প্রতিদিনই কোথাও না কোথাও চাকরীপ্রার্থীদের ইন্টারভিউ দিতে হচ্ছে। আর এই সময় নিজেকে গুছিয়ে সুন্দর করে উপস্থাপন করতে একটু বাড়তি প্রস্তুতি নিতেই হয়। কেননা শিক্ষাজীবনের সার্টিফিকেটই সব নয়। চাকরী বা পদ অনুযায়ী বাড়তি কিছু দক্ষতা ও সংশ্লিষ্ট অনেক কিছু যাচাই করা হয়।

আর প্রথমেই ব্যক্তির আউটফিট নজরে আসে বিধায় এই ব্যাপারে প্রথমেই যত্নশীল হতে হয়। আবহাওয়া, চাকরীর ধরণ ও পারিপার্শ্বিকতা মাথায় রেখে ভেবে-চিন্তে পোশাক ও অন্যান্য সাজ নির্বাচন করা উচিত। এই ক্ষেত্রে ছেলেদের যেমন কিছু বিষয় মেনে চলতে হয়। ঠিক তেমনি মেয়েদেরও কিছু বিষয়ে সর্তক থাকা জরুরী। জানা যাক ইন্টারভিউতে মেয়েদের কোন বিষয় গুলো এড়িয়ে যাওয়া উচিত।

  • অতিরিক্ত অলংকারঃ অলংকার মেয়েদের শোভা বাড়ায় ঠিক তবে অতিরিক্ত কোন কিছু সেই শোভা ম্লান করে দিতেও পারে। আপনার অলংকারের প্রতি ভালোবাসা থাকলেও ইন্টারভিউর দিনে সেটা কমালেই আপনার মঙ্গল হবে। এই সময় যতদূর সম্ভব হালকা অলংকার নির্বাচন আপনার চিন্তা-দৃষ্টিভঙ্গিরই বহিঃপ্রকাশ হবে। হাতে ব্রেসলেট, বড় ঝুলানো দুল, গলায় নেকলেস না পরে দেখতে ছোট কিন্তু সুন্দর, শৈল্পিক ধাঁচের হালকা কিছু পরিধান করুন। যেমনঃ মুক্তার তৈরি কানের দুল,হাতে ঘড়ি ইত্যাদি।
  • কড়া সুগন্ধিঃ নিজেকে ফুটিয়ে তুলতে, নিজের আত্মবিশ্বাস বাড়াতে একটু সুগন্ধি সবাই দিতে চায়। দেয়াও যায় তবে খেয়াল রাখতে হবে তা যেন কড়া ঘ্রাণের না হয়। এমন কখনো ভাববেন না কড়া ঘ্রাণ শুঁকে শুঁকে চাকরী আপনার পিছু নিবে। এমনটা হলে বিরক্তিকর পরিবেশ সৃষ্টি হবে। সাথে আপনি নিজেকে যেভাবে তুলে ধরতে চাইবেন নিয়োগকারী ঠিক তার উল্টোটাই ধরে নিবে।
  • উগ্র রং: আপনি শাড়ি, থ্রি-পিছ যাই পরেন না কেন, রংয়ের ব্যাপারে অবশ্যই সর্তক থাকবেন। উগ্র, কড়া রং পরিহার করে হালকা, স্নিগ্ধ রংয়ের কাপড় পরিধান করুন। যেমনঃ সাদা, হালকা নীল ইত্যাদি।
  • মানানসই জুতা: জুতা বলে জুতাকে হেলাফেলা ভাবলে চলবে না। কোন জুতা শাড়িতে মানায়, কোন জুতা থ্রিপিছে যায় তা আপনাকে বুঝতে হবে। আপনাকে বুঝতে হবে কোন জায়গায় হাই হিল যাবে, আর কোথায় স্যান্ডেল, কোথায় সেমি হিল পরবেন। আরামদায়ক মানানসই জুতা আপনাকে স্বস্থির সাথে সাথে আত্মবিশ্বাস দিবে।
  • ঢিলেঢালা কাপড়: এমন কাপড় কখনো পরবেন না যা দেখতে আপনার চেয়ে  সাইজে বড় বা ছোট দেখায়। নিয়োগকর্তা নিশ্চয় ভাববেন না আপনি হয়ত মুটিয়ে গেছেন কিংবা আপনার ওজন কমে গেছে। তাই ঢিলেঢালা কাপড় যেমন পড়া উচিত না আবার আঁটসাট কাপড়ও পড়া উচিত না। দুটোই আপনার ব্যক্তিত্বকে নড়বড় করে দিতে সক্ষম। তাই এই ব্যাপারে খেয়াল রাখা জরুরী।
  • কড়া মেকাপ: চোখে উপরে রঙ্গিন আই শ্যাডো, মুখে শীমার, টকটকে লিপষ্টিক দিয়ে চাকরী আপনার হবে না। বরং “না” শুনতে শুনতে আপনি ফ্যকাশে হয়ে যাবেন। নিজেকে সাবলীলভাবে নমনীয়তার সাথে প্রকাশ করতে পারলে আপনার চাকরী আর ব্যক্তিত্ব দুটোই রক্ষা হবে। তাই কড়া মেকাপ নয়, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতাকে আর শালীনতাকে প্রাধান্য দিন।

আরো পড়ুন
ইন্টারভিউতে ছেলেদের যা পরা ও ব্যবহার করা উচিত নয়
লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।