স্তন ক্যান্সারের জন্য দায়ী কিছু কাজ- আপনিও না জেনেই করছেন না তো?

Know About Breast Cancerবর্তমান সময়ে স্তন ক্যান্সার নারীদের কাছে একটি অন্যতম আতঙ্কের নাম। একটু খেয়াল করলে দেখা যাবে আমাদের চারপাশে অহরহ স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার কথা শুনতে পাওয়া যাচ্ছে। আজ অন্য কেউ এই রোগে আক্রান্ত হয়েছে বলে কাল যে আপনি নিজেও এই রোগে আক্রান্ত হবেন না এর কোন গ্যারান্টি নেই। তাই সময় থাকতে দরকার সচেতনতা। একটু সচেতনতার অভাবে বা আমাদের কিছু ভুল কাজের জন্য আমরা ও হতে পারি এই ভয়াবহ রোগে আক্রান্ত।

আজ আপনাদের জানাবো যে কারণগুলোর জন্য আপনিও পড়তে পারেন স্তন ক্যান্সারের কবলে।

অপ্রয়োজনীয় হরমোন গ্রহণ

হরমোন থেরাপি স্তন ক্যান্সার ঝুঁকি অনেক বেশি বাড়িয়ে তোলে। আপনি যদি হরমোন গ্রহণ করে থাকেন তাহলে সবার আগে এটা নিশ্চিত করুন যে হরমোন গ্রহণের সময়টা যেন খুব সংক্ষিপ্ত হয় অথবা সব থেকে ভালো হয় আপনি যদি পুরোপুরিভাবে হরমোন গ্রহণের প্রক্রিয়া এড়িয়ে যেতে পারেন।

পারিবারিক ইতিহাস

যদিও এটা একদম নিশ্চিত করে বলা যায়না যে পরিবারের কেউ স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হলে সেই একই পরিবারের অন্য সদস্যদেরও স্তন ক্যান্সার হবে তবে এটা সত্যি যে সামান্য হলেও স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি থেকে যায়। যেমন যদি আপনার রক্ত সম্পর্কীয় কোন নিকট আত্মীয় যেমন- মা, বোন কিংবা নিজের মেয়ে যদি স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হয় আর তার বয়স হয় ৫০ বছরের নিচে আপনার নিজেরও এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি থাকে। এক্ষেত্রে নিজে সচেতন থাকতে হবে , আপনার শরীরের কোনরূপ সমস্যা দেখা দিলে আগে ভাগেই ডাক্তারের শরণাপন্ন হতে হবে।

সঠিক সাইজের ব্রা না পরা

নারীর স্তন ক্যান্সারের আরও একটি কারণ হলো নিজের সাইজের নয় এই ধরণের বক্ষবন্ধনী বা অন্তর্বাস ব্যবহার করা ও সব সময় বক্ষবন্ধনী পরে থাকা। আপনি যদি আপনার স্তনের আকারের থেকে ছোট বা টাইট ব্রা ব্যবহার করেন তাহলে সেটি স্তনের টিস্যুগুলোকে ঠিকমতো ধরে রাখতে পারেনা ও স্তনের তরলবাহী লসিকাগুলো অনেকক্ষেত্রেই কেটে দেয় তাই খুব সচেতনভাবে বক্ষবন্ধনী নির্বাচন করতে হবে। আবার সারাক্ষণ বক্ষবন্ধনী পরিধান করলেও তা স্তন ক্যান্সারের কারন হয়ে দাঁড়ায়। সেজন্যই বাড়িতে থাকার সময়টুকু বক্ষবন্ধনী না পরার চেষ্টা করুন।

উপাদান না দেখে ডিওডোরেন্ট কেনা ও ব্যবহার করা

ডিওডোরেন্টে এলুমিনাম বেসড উপাদান থাকলে তা স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়। তাই ডিও কেনার সময় ভালোভাবে লেভেল দেখে কিনুন। ক্যান্সারের মতো প্রাণঘাতী রোগ থেকে সাবধানে থাকতে আপনার প্রতিদিন ব্যবহার করার ডিওটি ব্যবহারের আগে একজন স্কিন বিশেষজ্ঞের কাছ থেকে দেখিয়ে জেনে নিন এটির গুণগত মান বা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সম্পর্কে।

প্রতিষেধকের চেয়ে প্রতিরোধ উত্তম। তাই এই স্তন ক্যান্সারের কারণ লক্ষণ ও প্রতিরোধ সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান রাখুন এবং নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে চেষ্টা করুন।

পরামর্শ.কম এ স্বাস্থ্য ও রূপচর্চা বিভাগে প্রকাশিত লেখাগুলো সংশ্লিষ্ট লেখকের ব্যক্তিগত মতামত ও সাধারণ তথ্যের ভিত্তিতে লিখিত। তাই এসব লেখাকে সরাসরি চিকিৎসা বা স্বাস্থ্য অথবা রূপচর্চা বিষয়ক বিশেষজ্ঞ পরামর্শ হিসেবে গণ্য করা যাবে না। স্বাস্থ্য/ রূপচর্চা সংক্রান্ত যেকোন তথ্য কিংবা চিকিৎসার জন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের/বিউটিশিয়ানের শরণাপন্ন হোন।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।