আপনার ভালোবাসার মানুষটির খারাপ সময়ে তাকে সাহস যোগাতে যা করবেন

466109223জীবনে ভালো সময়ের সাথে সাথেই খারাপ সময়ও স্বাভাবিকভাবেই আসে। কিন্তু খারাপ সময়ের সাথে নিজেকে চলমান রাখা সহজ কাজ নয়। আর এই সময়টাই একজন কাছের মানুষই পারে অন্য আরেকজন মানুষের সাহস যোগাতে। সুখের সময় বা ভালো সময়ের থেকে খারাপ সময়েই আমাদের পাশে নিজের ভালোবাসার মানুষটির প্রয়োজন বেশি পড়ে।

একজন কাছের মানুষই কেবল এই খারাপ সময়ের ভেতর থেকে আমাদের বের করে নিয়ে আসতে পারে আর সাথে সাহসও যোগাতে পারে। কিন্তু শুধুমাত্র পাশে থাকলেই চলবে না, জানতে হবে কৌশল যার মাধ্যমে আপনার কথা ও কাজের দ্বারা আপনি আপনার ভালোবাসার মানুষটিকে সাহস যোগাতে পারেন।

আসুন দেখি কি উপায়ে আপনি আপনার ভালোবাসার মানুষটির খারাপ সময়ে তাকে সাহস যোগাতে পারেন।

তাকে একা ছাড়বেন না (don’t  leave him alone)

একাকীত্ব এমন একটি জিনিস যা আমাদের মানসিকভাবে ভীষণ দুর্বল করে তোলে। খারাপ সময়গুলোতে যদি আপনি আপনার ভালোবাসার মানুষটিকে একা ছেড়ে দেন তাহলে সে মনের দিক থেকে আরও ভেঙ্গে পড়বে। তাই একজন যোগ্য সঙ্গী হিসেবে এই সময়টাতে শক্ত হাতে তার হাতটি ধরুন। আপনার এই কাজটিই তাকে অনেকখানি সাহস যোগাবে।

তাকে দোষারোপ করবেন না (don’t blame him)

আপনার প্রিয় মানুষটি যখন খুব খারাপ সময়ের মাঝে দিয়ে যায় তখন তার দরকার এমন একজনকে যে কিনা তাকে আগলে রাখবে। সব সময় সাহস যোগাবে। আর আপনি যদি এসবের ধারে কাছে না যেয়ে তাকেই উল্টো দোষারোপ করেন তাহলে সে হেরে যেতে বাধ্য। তাই দোষারোপ না করে তাকে সাহস যোগাতে তার পাশেই থাকুন।

তার সাথে যতোটা পারেন সময় কাটান (spend time with him)

সমস্ত পৃথিবী যদি আপনার প্রতিকূলে থাকে আর আপনার ভালোবাসার মানুষটি যদি আপনার পাশে থাকে  তাহলে অনায়াসে সমস্ত পৃথিবীর সাথে যুদ্ধ করা যায়। ঠিক সেকারণেই আপনার প্রিয় মানুষটি খারাপ সময়ের মধ্য দিয়ে গেলে তার সাথে বেশি বেশি সময় কাটান। আপনার সান্নিধ্যই তাকে সব থেকে বেশি সাহস যোগাবে।

বলুন সে একা নয় (tell him he is not alone)

আপনার প্রিয় মানুষটি এখন একটি অন্ধকার রাস্তায় একা একা পদচারণা করছে। তার পাশে এমন একজনকে খুব দরকার যে এই রাস্তা চলার সাথী হবে। আর এই কাজটি আপনার থেকে বেশি ভালো ভাবে আর কেউ করতে পারবেনা। তাই আপনার ভালোবাসার মানুষটির খারাপ সময়ে তাকে বলুন যে সে একা নয়, আপনি তার সাথেই আছেন।

তাকে নিজের প্রতি খেয়াল রাখতে উদ্বুদ্ধ করুন (encourage them to focus on self-care)

হতাশা আর মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়া মানুষেরা নিজেদের খেয়াল নিতে ভুলে যায় বা নিজের যত্নের  নেওয়ার আগ্রহবোধ করেনা। আর তাই আপনার কাজ হবে এই সময় আপনার প্রিয় মানুষটির মনোবল বাড়াতে তার নিজের প্রতি খেয়াল নেওয়ার বিষয়টি মনে করিয়ে দেওয়া।

 তার সাথে হাসুন (lough with him)

যে কোন সমস্যার একটি অন্যতম সহজলভ্য ও উপকারি প্রতিষেধক হচ্ছে হাসা। তাই আপনার কাছের মানুষটির দুঃসময়ে তার সাথে হাসুন। তাকে হাসতে সাহায্য করুন খেয়াল রাখুন তার সময়গুলো যেন হাসি খুশীর মধ্য দিয়ে অতিবাহিত হয়।

আপনার ভালোবাসার মানুষটিকে এই খারাপ সময় থেকে বের করে নিয়ে আসতে তাকে বোঝান যা ঘতেছে বা যা হচ্ছে তার জন্য কেবলমাত্র সে দায়ী নয়। সে কেবল পরিস্থিতির শিকার। আপনি যদি আপনার এই কাছের মানুষের মনের চাপ কমাতে পারেন তাহলে আপনাআপনি সাহস সঞ্চার করতে পারবে।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।