সঠিক নিয়মে যত্ন নিন কাঠের আসবাবপত্রের

wood-furniture-care-tipsটেকসই গুণের কারণে ঘরের প্রয়োজনীয় এবং সাজানোর আসবাবপত্র কাঁচের চেয়ে কাঠের চাহিদা বেশি হয়ে থাকে। খাবার টেবিল,টিভি ষ্ট্যান্ড,ডাইনিং ক্যাবিনেট, খাট ইত্যাদি মানুষ যে যার পছন্দ মোতাবেক ডিজাইন ও কাঠ দিয়ে বানিয়ে থাকেন। যা ঘরের সৌন্দর্যকে বাড়িয়ে আকর্ষণীয় করে তোলে। তবে যত্নবান না হলে এইসব কাঠের আসবাবপত্রের সৌন্দর্য ও টেকসই গুণ হারায় তাড়াতাড়ি। তাই কিছু বিষয় অবশ্যই খেয়াল করা জরুরী।

ধূলাবালি মুক্ত রাখা

কাঠের আসবাব পত্রের চমক ধরে রাখতে হলে অবশ্যই ধূলাবালি জমতে দেয়া যাবে না। দরজা-জানালা দিয়ে যে ধূলা বালি প্রবেশ করে তা আসবাবপত্রে এক ধরণের বালির আস্তরণ তৈরী করে। যা দীর্ঘসময় পড়ে থাকলে পলিশকে নষ্ট করার পাশাপাশি আঁচড় ফেলতে দেরি করে না। তাই ধুলাবালি জমতে দেখলেই সাথে সাথে পাতলা , নরম কাপড় বা তুলা দিয়ে পরিষ্কার করে নিতে হবে। চাইলে কুসুম গরম পানিতে কাপড় চুবিয়ে ভালো ভাবে নিংড়ে নিয়ে সেটি দিয়ে মুছে পরিষ্কার করা যাবে। তবে কোনভাবে পানি ঢেলে পরিষ্কার করা উচিত না। খসখসে কাপড় ব্যবহার করা যাবে না। এতে হিতে বিপরীত হবে।

দাগ-হীন রাখা

খাবার টেবিল যখন কাঠের হয় তখন ইচ্ছা অনিচ্ছায় পানির দাগ পড়ে যায়। কখনো পানির গ্লাস থেকে তো কখনো ধোয়া থালা-বাটির তলার পানি থেকে বৃত্তাকারে পানির দাগ বসে যায়। এমনটা হলে রান্নার ঘরের মেয়নেজ কাজে দিবে। অল্প মেয়নেজ পাতলা কাপড়ে লাগিয়ে সেটা দিয়ে দাগের উপর ঘষা দিতে হবে। দেখবেন উঠে গিয়ে আগের মত দাগহীন হয়ে যাবে। চাইলে রান্না করা তেল ও ব্যবহার করা যায়। আবার নন জেল টুথপেষ্ট থাকলে সেটিও ক্ষতি ছাড়া দাগ দূর করতে সক্ষম।

অবস্থানগত সতর্কতা

একটু লক্ষ্য করলে দেখা যায় যে আসবাব পত্র চুলা বা রান্না ঘরের আশে পাশে বা বদ্ধ ঘরে থাকে সেটি শীঘ্রই নষ্ট হয়ে যায়। সূর্যের তাপ যেন সরাসরি আসবাব এ না পড়ে সেদিকেও নজর দিতে হবে। কেননা এর ফলে আসবাবপত্র ফ্যাকাসে হয়ে যায়। অবস্থানগত ত্রুটির কারণেই মূলত আসবাব পত্র বেঁকে যাওয়া, ফেটে গিয়ে ফাঁক হয়ে যায়। তাই এই ব্যাপারে সতর্ক থাকার পাশাপাশি ঘরে পর্যাপ্ত আলো বাতাস প্রবেশের ব্যবস্থা রাখতে হবে।

আর্দ্রতা দূরে রাখা

স্বাভাবিক ভাবে আর্দ্রতা কাঠের আসবাবপত্রের শত্রু। এই বিষয়টি বেশি চোখে পড়বে বর্ষা কালে। বৃষ্টিতে ,ঠান্ডায় ঘরে এক ধরণের স্যাতঁস্যাতে ভাব তৈরী হয়। যা কাঠের আসবাবের জন্য মোটেও ভালো কিছু রাখে না। এটি আসবাবের আঁয়ু কমিয়ে দেয়। স্যাঁতস্যাতে জায়গায় আসবাব থাকলে বা আসবাবের আশপাশ স্যাতঁস্যাতে থাকলে এটি সহজে চিড় ধরায়। অনেক সময় মুচড়ে যায়।তাই অবশ্যই শুকনো জায়গায় আসবাব রাখতে হবে ।আসবাবের আশেপাশে পানি বা তরল জাতীয় কিছু পড়লে সাথে সাথে মুছে শুকনো রাখতে হবে।

চকচকে রাখা

উপরোক্ত বিষয় গুলোর মেনে চলার পাশাপাশি বছরে দুই বার পলিশ করতে হবে। বিশেষ করে মোম পলিশ। এতে টেকসইয়ের মাত্রা দীর্ঘ হবে। আসবাবের চকচকে ভাব ঘরের চমক ধরে রাখবে।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।