বিবাহিত জীবনে এড়িয়ে চলুন সম্পর্কে ভাঙ্গন সৃষ্টিকারী মারাত্মক কিছু ভুল

relationshipকথায় আছে মানুষ মাত্রই ভুল। মানুষ তার জীবনের ভুল থেকে শিক্ষা গ্রহণ করে থাকে। আবার অনেকে একই ভুল বার বার করে। সব সম্পর্কে কোন না কোন ভুল হয়ে থাকে। বিবাহিত জীবনও তার ব্যাতিক্রম না। কিছু ভুল থাকে যা অনেক কিছুই কেড়ে নিতে পারে। পরে ভুল বুঝলেও আগের অবস্থান ফিরে পাওয়া সম্ভব হয় না।

বিশেষ করে সাংসারিক জীবনে। যার ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে সন্তানদের উপর। তাই এই সম্পর্কের ক্ষেত্রে সব সময় যত্নশীল থাকা জরুরী। জানা যাক তেমন ৩টি ভুল সম্পর্কে যা অবশ্যই এড়িয়ে চলা উচিত।

মিথ্যা কথা বলা

যেকোন সুন্দর সম্পর্কের মূলে থাকে স্বচ্ছতা। বিবাহিত জীবনে এটিকে বেশি গুরুত্ব দেয়া উচিত। বিয়ে আপনি প্রেম করে করেন আর পারিবারিক পছন্দে। অনুষ্ঠানিকতার শেষে কথা একটাই সংসার মিঁয়া-বিবির যৌথ অবদান। তাই দু’জনকেই এই বিষয়টি বজায় রাখতে হবে। আর স্বচ্ছতা তখনই আসবে যখন একে অপরকে মিথ্যা বলা এড়িয়ে চলবে। দু’জন ব্যাক্তির ব্যাক্তিত্ব, পছন্দ-অপছন্দ দুই রকম হতেই পারে। মিথ্যা দিয়ে সমস্যা সমাধান করতে চাইলে তা উল্টো জট পাকিয়ে দিবে। বরং আলাপ-আলোচনা করে একে অপরকে কিছু বিষয়ে ছাড় দেয়া শিখতে হবে। সাথে সাথে মেনে চলতে হবে। কেননা মিথ্যার ভিতরে রোপিত থাকে সন্দেহ নামক বীজ। যা একবার শিকড় গজিয়ে গেলে উপড়ে ফেলতে বেগ পেতে হয়। অনেক সময় সম্পর্কই শেষ হয়ে যেতে পারে।

দোষারোপ করা

ছেলে-মেয়ে কোন ভুল করলো কিংবা পরীক্ষায় নম্বর কম পেল। অমনি পতি দেব এসে বাচ্চাদের মা’কে বীর দর্পে দুকথা শুনিয়ে দিল। কেন বাবা হিসেবে আপনি তাদের সময় দিচ্ছেন না? এমনটা করে নিজেদের সম্পর্ক যেমন খারাপ হবে সাথে সাথে বাচ্চারাও ভুল শিক্ষা পাবে। কেননা আপনারা যাই করবেন তাই তারা শিখবে। পরিবারে সুন্দর পরিবেশ তখনই সৃষ্টি হবে যখন ঘরে সন্তানদের দেখাশুনা হোক আর অনান্য কাজ,দায়-দায়িত্ব হোক একে অপরকে সহযোগিতা করবেন। এক পক্ষকে সব সময় দোষারোপ করা হলে তার ফলাফল সুন্দর কিছু আসবে না।

সম্মান না করা

সম্মান দিতে না পারলে কেনই বা বিয়ে করা। সফল দাম্পত্য জীবনের অন্যতম রহস্য এটি। একে অপরকে মূল্যায়ন করতে হবে। মনে যদি কোন বিষয়ে সন্দেহ জাগে,যত তাড়াতাড়ি সম্ভব একান্তে বসে দুজনে কথা বলে সেই ব্যাপারে পরিষ্কার হয়ে যেতে হবে। অবশ্যই অপর পক্ষকের সহযোগি মনোভাব রাখতে হবে। যদি তা না করে উল্টো প্রতিক্রিয়া দেখান “কেন সন্দেহ করবে” তবে তা পরিষ্কার না হয়ে আরো খারাপ হয়ে যেতে পারে। কেননা কোন মানুষ ভুল করবে না তার কোন গ্যরান্টি নেই। একবার যদি কেউ কাউকে অপমান করে ফেলে তবে আগের সেই সম্মানের জায়গায় ফিরে যাওয়া বা পাওয়া কঠিন হয়। তাই একে অপরকে সম্মান যেমন দিতে হবে তেমনি এমন কোন কাজ করা থেকে বিরত থাকতে হবে। যা আপনাকে অপরের চোখে ছোট করে।

ভাঙ্গা জিনিস যত জোড়া লাগানো হোক তা ভাঙ্গাই থাকে। আর জোড়া লাগলেও দাগ থেকে যাবে। এটা অবশ্যই মনে রাখবেন।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।