শীতে আপনার শরীরকে দিন একটু বাড়তি যত্ন

Home Remedies For Stuffy Noseবছর ঘুরে আবারও দরজায় কড়া নাড়ছে শীত। শীতের নানা প্রাপ্তির সঙ্গে সঙ্গে ত্বক ফাটা, চুল রুক্ষ হওয়া, ঠোঁট ফাটাসহ কিছু উটকো ঝামেলাও রয়েছে। তবে একটু সতর্ক হলেই এই সমস্যাগুলো নিয়ে আসতে পারেন আপনার নিয়ন্ত্রণে। এজন্য আপনাকে মেনে চলতে হবে কিছু সহজ টিপস-

  • কুসুম কুসুম গরম পানি দিয়ে প্রতিদিন গোসল করুন। পানি খুব বেশি গরম বা ঠান্ডা হওয়া চলবে না। গোসলের সময় মশ্চেরাইজিং সাবান ব্যবহার করতে পারেন।
  • গোসল শেষে হাতে পায়ে লোশন মাখুন। লোশন ব্যবহারের সাথে সাথেই ঘর থেকে বেরুবেন না। ত্বকের সাথে লোশন ভাল ভাবে মিশে যাবার জন্য কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন। বেশিক্ষণ রোদে থাকতে হলে সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে পারেন।
  • সকালে ঘুম থেকে উঠে ফেসওয়াশ ব্যবহার করুন। যাদের ত্বকে তেলতেলে ভাব প্রবল, তারা অয়েল কন্ট্রোল ফেসওয়াশ ব্যবহার করতে পারেন। এটি দিনের বাকিটা সময় আপনার মুখমন্ডলকে সজীব রাখবে।
  • রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে ১/৪ কাপ দুধের সাথে ১ চামচ মধু আর ১ চামচ অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে মুখে ২০ মিনিট লাগিয়ে রাখতে পারেন। এটি আপনার ত্বককে উজ্জ্বল করে তুলবে।
  • অনেকেরই হাতের কনুই কালো ও খসখসে হয়ে থাকে। এই সমস্যা প্রতিরোধে কনুইতে গরম ভাব নিতে পারেন।
  • ঠোঁট ফাটা প্রতিরোধে লিপজেল ব্যবহার করতে পারেন। ম্যাট লিপস্টিক ব্যবহার না করাই ভাল। ঠোঁটে কাল দাগ থাকলে গ্লিসারিন ও লেবুর রস লাগান, উপকার পাবেন। এছাড়া প্রতিদিন রাতে গ্লিসারিন, মধু ও গোলাপজল মিশিয়ে ৩-৪ মিনিট ঠোঁটে লাগিয়ে রাখুন। এতে আপনার ঠোঁট নরম ও উজ্জ্বল হবে।
  • পায়ের গোড়ালি ফাটা রোধ করতে গোসলের সময় প্রতিদিন ভাল ভাবে পা পরিষ্কার করুন , এতে করে পায়ের মৃত কোষ আলাদা হয়ে যাবে। সবসময় পা পরিষ্কার রাখার চেষ্টা করুন। জুতা ব্যবহার করলে প্রতিদিন পরিষ্কার মোজা পরুন। রাতে ঘুমানোর আগে পায়ে পেট্রলিয়াম জেলি ব্যবহার করতে পারেন।
  • চুলের জট বেঁধে যাওয়া ও রুক্ষভাব এড়াতে রাতে ঘুমানোর আগে চুলে হালকা গরম তেল লাগান। নারিকেল তেলের তুলনায় অলিভ অয়েল হলে ভাল হয়। তেলের সাথে এক টুকরো আমলকি মিশিয়ে নিলে ভাল ফল পাবেন। খুশকির সমস্যা দূর করতে সপ্তাহে কমপক্ষে দুই দিন এন্টি-ডেনড্রাফ শ্যাম্পু ব্যবহার করতে পারেন।
  • যতটা সম্ভব ধূলি-বালি এড়িয়ে চলুন, ছেলেরা মাথায় ক্যাপ আর মেয়েরা স্ক্যার্ফ ব্যবহার করতে পারেন। হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার না করাই ভাল।
  • ভেজা অবস্থায় কখনো চুল আঁচড়াবেন না। চিকন দাঁতের চিরুনি এড়িয়ে চলুন।
  • ছুটির দিনগুলিতে মধু, পাকা কলা, ডিম, চায়ের লিকার দিয়ে তৈরি পেস্ট চুলে লাগাতে পারেন। আধা ঘন্টা পর ধুয়ে ফেলুন। এটি চুলের জন্য বিশেষ উপকারী।

শাক-সবজি বেশি করে খান। পান করতে হবে প্রচুর পানি। শুধুমাত্র পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান করেই ত্বকের ও পাকস্থলির অনেক সমস্যা থেকে নিজেকে দূরে রাখতে পারবেন।

শীতে ত্বকের যত্ন নিয়ে আরও পড়ুন

পরামর্শ.কম এ স্বাস্থ্য ও রূপচর্চা বিভাগে প্রকাশিত লেখাগুলো সংশ্লিষ্ট লেখকের ব্যক্তিগত মতামত ও সাধারণ তথ্যের ভিত্তিতে লিখিত। তাই এসব লেখাকে সরাসরি চিকিৎসা বা স্বাস্থ্য অথবা রূপচর্চা বিষয়ক বিশেষজ্ঞ পরামর্শ হিসেবে গণ্য করা যাবে না। স্বাস্থ্য/ রূপচর্চা সংক্রান্ত যেকোন তথ্য কিংবা চিকিৎসার জন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের/বিউটিশিয়ানের শরণাপন্ন হোন।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।