গল্প- ভালবাসা, বন্ধুত্ব, স্বাধীনতাতেই প্রকৃত সুখ

happinessএকদিন এক বিত্তশালী পরিবারের ছেলেকে তার বাবা শহরের অদূরে কোন এক গ্রামে বেড়াতে নিয়ে গেল। তিনি ছেলেকে দেখাতে চাইলেন কিভাবে দরিদ্র মানুষ জীবন-যাপন করে এবং তারা সেখানে কিছুদিন থাকে।

কিছুদিন পর গ্রাম থেকে ফিরে এসে বাবা ছেলেকে জিজ্ঞেস করলেন কেমন লেগেছে তার। ছেলেটি বলল,”খুব চমৎকার”।

বাবা বলল,”তুমি কি খেয়াল করেছ তারা কিভাবে জীবন কাটায়’?”

“হ্যাঁ,করেছি” ছেলে উত্তর দেয়। বাবা তাকে বিস্তারিত বলতে বলল।

দেখ,যেখানে আমাদের একটি কুকুর তাদের চারটি। আমাদের বাগানে একটি পুল,তাদের একটি নদী যার কোন শেষ নেই।আমাদের রাতে আছে কিছু মূল্যবান আলোকবাতি,আর তাদের আকাশ ভরা তারা। আমাদের বাড়ির সামনে ছোট উঠান আর তাদের পুরো দিগন্ত। যেখানে আমাদের এক টুকরো জায়গা আর তাদের আছে এমন মাঠ যার কোন শেষ নেই। আমরা খাবার কিনি আর তারা এটা উৎপন্ন করে। আমাদের সম্পদ রক্ষার জন্য প্রতিরক্ষা বেষ্টনী দিয়ে রাখি আর সেখানে তাদের এর কোন প্রয়োজন নেই,তাদের বন্ধুরাই পাহারা দেয়।

সব শুনে বাবা খুব অবাক হয়ে গেল,কোন কথা বলতে পারল না!

ছেলেটি বলল, “বাবা ধন্যবাদ। আমাকে দেখানোর জন্য, “আমি জানতাম না আমরা এত গরিব”।

এতেই বোঝা যায় প্রকৃত সম্পদ এবং সুখ বস্তুগত জিনিস দিয়ে পরিমাপ করা যায়না, ভালবাসা-বন্ধুত্ব-স্বাধীনতাই মূল্যবান।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।