প্রাণবন্ত ও হাস্যোজ্জ্বল থাকতে Relaxation বা শরীর শিথীলকরণ: পর্ব-৫

Relaxation Techniques for Stress Relief Part 5

আমরা ধারাবাহিকভাবে শরীর শিথিলকরণের অনেকগুলো পদ্ধতি সম্পর্কে জেনেছি। আশা করছি আপনারা এটি প্রয়োগ করা শুরু করে দিয়েছেন এবং ভাল ফল ও পাচ্ছেন। আজকে শরীর শিথিলকরণের জন্য আমরা খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি পদ্ধতি শিখব।

আমরা জানি যে আমাদের ছ’য়টি ইন্দ্রিয় রয়েছে। প্রতিটা ইন্দ্রিয় দিয়ে প্রতি সেকেন্ডেরও কম সময়ের মধ্যে প্রাকৃতিক বা পরিবেশগত তথ্য বা সিগন্যাল আমরা গ্রহণ করছি এবং সে অনুযায়ী প্রতিক্রিয়া করছি। যেমন চোখে দেখছি ও কাজ করছি। খাবারের ঘ্রাণ নেই আর ক্ষুধা অনুভব করি ইত্যাদি। আমরা জানি Relaxation এর মাধ্যমে এই ইন্দ্রিয়গুলো শিথিল হয় এবং শরীর ও শিথিলতা অর্জন করে। আসুন জেনে নেই Relaxation এর নতুন এই পদ্ধতিটি যা ইন্দ্রিয় সম্পর্কিত।

পদ্ধতি-৫ ( অনুভবে ইন্দ্রিয়)

  • একই ভাবে আরামদায়ক স্থানে বসতে হবে। যেখানে বসবেন তা যেন নিরিবিলি ও স্বস্তিকর হয়।
  • ধীরে ধীরে শ্বাস গ্রহণ করুন এবং ছাড়ুন। দুই থেকে চারবার লম্বা করে কিন্তু ধীরগতিতে নিঃশ্বাস-প্রশ্বাস নিন।
  • ধীরে ধীরে আপনার চোখ বন্ধ করুন। যারা চোখ বন্ধ করতে অসুবিধা হবে তারা চোখ খোলা রেখে একটি নির্দিষ্ট বিন্দুতে তাকিয়ে থাকতে পারেন। (তবে চোখ বন্ধ রাখলেই এই পদ্ধতি বেশী কার্যকর হয়)।
  • আপনি যেহেতু চোখ বন্ধ করে নিচ্ছেন দর্শন ইন্দ্রিয়কে আমরা পুরোপুরি বিশ্রাম দিয়ে আমাদের অন্যান্য ইন্দ্রিয়গুলোকে এবার একে একে মনোযোগ দিব। প্রথমে সমস্ত শরীরে কোথাও খুব শক্ত হয়ে আছে কিনা দেখুন। শরীরের কোন অংশ টাইট বা শক্ত হয়ে থাকলে সেটি শিথিল করে দিন।
  • যেখানে বসে আছেন সেই জায়গাটি স্পর্শ করুন। সেটি নরম নাকি শক্ত, কি উপাদানে তৈরি অনুভব করুন। যেখানে বসে আছেন সেখানে শীত নাকি গরম বা বায়ুর চাপ নাকি হালকা অনুভূতি হচ্ছে বুঝার চেষ্টা করুন।
  • স্পর্শ অনুভব বা ত্বক ইন্দ্রিয়ের অনুভূতি নেওয়ার পর আমরা শ্রবণ ইন্দ্রিয়ের অনুভূতি নিব। বুঝার চেষ্টা করুন আশে পাশে কি কি শব্দ আপনার কানে আসছে। পাখির ডাক, বাতাসের শব্দ, গাড়ির হর্ন, মানুষের কণ্ঠস্বর, হাঁটাচলার শব্দ বা যন্ত্রপাতির টুংটাং ইত্যাদি আলাদা করে শুনতে চেষ্টা করুন। শব্দগুলো কত দূর হতে আসছে সেটিও লক্ষ্য করুন।
  • এবার ঘ্রাণেন্দ্রিয় এর মাধ্যমে ঘ্রাণ নিন। নাকে কি কি ঘ্রাণ আসছে তা অনুভব করুন। এমন হতে পারে কোন ঘ্রাণ নাকে আসছে না এতে অবাক হওয়ার কিছু নাই। এমনটি হতেই পারে।
  • স্বাদ আর দর্শন ইন্দ্রিয় ছাড়া অন্য ইন্দ্রিয়ের অনুভব হয়ে গেলে সবগুলো ইন্দ্রিয়ের সমন্বয়ে এবার নিজেকে এবং নিজের অস্তিত্বকে অনুভব করুন।
  • পরিবেশের সাথে আপনার ইন্দ্রিয়ের সংযোগ লক্ষ্য করুন।
  • সবশেষে নিজেকে ধন্যবাদ দিন এত চমৎকার ভাবে শরীর শিথিলকরণের পর্বটি সম্পন্ন করার জন্য। এরপর প্রক্রিয়াটি থেকে বের হয়ে আসুন।

এই পদ্ধতিতে দর্শন এবং স্বাদ ইন্দ্রিয় কে ব্যবহার করা হয়নি কারণ স্বাভাবিকভাবে আমাদের এই দুটি ইন্দ্রিয় বেশী কাজ করে থাকে এবং আমরা অন্য ইন্দ্রিয়গুলোর অস্তিত্ব খুব একটা অনুভব করি না কিংবা করতে চাই না। তাই এই পদ্ধতিতে বহুল ব্যবহৃত ইন্দ্রিয় দুটি বিশ্রামে থাকবে। আসা করি এই পদ্ধতিটিও আপনাকে প্রাণবন্ত ও হাস্যোজ্জ্বল রাখবে কারণ ইন্দ্রিয়ের অফুরন্ত শক্তি আপনি সঞ্চয় করেছেন।

শরীর শিথিলকরণ সম্পর্কিত আরও লেখা পড়ুনঃ

১. প্রাণবন্ত ও হাস্যোজ্জ্বল থাকতে Relaxation বা শরীর শিথীলকরণ: পর্ব-১
২. প্রাণবন্ত ও হাস্যোজ্জ্বল থাকতে Relaxation বা শরীর শিথীলকরণ: পর্ব-২
৩. প্রাণবন্ত ও হাস্যোজ্জ্বল থাকতে Relaxation বা শরীর শিথীলকরণ: পর্ব-৩
৪. প্রাণবন্ত ও হাস্যোজ্জ্বল থাকতে Relaxation বা শরীর শিথিলকরণ: পর্ব-৪