সতেজ থাকুন কর্মক্ষেত্রের প্রতিটি দিন

offc2দিনের একটা বড় অংশ আমাদের কাটাতে হয় কর্মক্ষেত্রে। প্রতিদিনকার গতানুগতিক কাজ আমাদের করে তোলে নিষ্প্রভ আর ক্লান্ত। আর এর প্রভাব পড়ে কাজেও। কিছু অত্যন্ত সাধারণ কিন্তু কার্যকর পরামর্শ আপনাকে রাখতে পারে প্রাণবন্ত এবং সতেজ।

১. কাজের ফাঁকে ছোট ছোট বিরতি নিনঃ
দীর্ঘক্ষণ একটানা কাজ, কাজে গতি আনতে পারে ঠিকই, কিন্তু নিখুঁত করতে পারে কি? কাজের ফাঁকে নিয়ে নিন ছোট বিরতি। প্রতি দেড় ঘণ্টা পর পর ১৫ মিনিটের বিরতি আপনাকে কর্মক্ষম রাখবে সারাদিন।

২. পর্যাপ্ত পানি পান করুনঃ
পানিশূন্যতা আমাদের কর্মক্ষমতা কমিয়ে দেয় এবং মানসিক অস্থিরতা সৃষ্টি করে। তাই পর্যাপ্ত পানি পান করুন।

৩. দুপুরের বিরতিতে হাঁটুনঃ
যদি আপনার দুপুরের খাবার জন্য এক ঘণ্টা বিরতি থাকে, তাহলে হাঁটুন ১ বা ২ কিলোমিটার। খাবার পর অনেকেরই ইচ্ছা থাকে একটু শুয়ে ক্লান্তি দূর করতে। কিন্তু ঘুমানো বা শুয়ে পড়ার চেয়ে হাঁটা ক্লান্তি দূর করার ক্ষেত্রে অনেক বেশি কার্যকর। হাঁটলে শরীরে রক্ত চলাচল বৃদ্ধি পাবে, দুশ্চিন্তা দূর হবে আর এগুলো আপনাকে বিরতির পর পূর্ণদ্দ্যোমে কাজ করতে সাহায্য করবে।

৪. ইতিবাচক চিন্তাধারার বন্ধু তৈরি করুনঃ
লক্ষ্য করলে দেখবেন আপনার কর্মস্থলে এমন ব্যক্তি আছেন যিনি সবসময় ইতিবাচক চিন্তা করেন। জটিল কোন পরিস্থিতিতে পড়লেও সহজ ভাবে তার সমাধান করে ফেলেন। যখন মনে হবে, আপনার সব কাজে ভুল হচ্ছে, আগ্রহ পাচ্ছেন না কিছুতেই তখন সেই ব্যক্তির সাথে কথা বলুন। আপনার সমস্যা সম্পর্কে আলোচনা করুন। কিছুক্ষণ তার সাথে কথা বললেই দেখবেন আপনি উৎসাহ ফিরে পাচ্ছেন।

৫. লেবু ব্যবহার করুনঃ
খুব ক্লান্তি বোধ করছেন? সামনের ফাইল, কম্পিউটার ছুড়ে ফেলে দিতে ইচ্ছা হচ্ছে? এক গ্লাস পানিতে লেবুর রস মিশিয়ে পান করুন, লেবু শুঁকে নিন বা স্প্রে করে নিন লেবুর সুবাস যুক্ত এয়ার ফ্রেশনার। নিমিষেই মন ভালো হয়ে যাবে। শুনতে অবাক লাগলেও লেবুতে আছে এমন উপাদান যা আপনাকে চাঙ্গা করে তোলে নিমিষেই।

৬. গান শুনুনঃ
কাজের ফাঁকে ফাঁকে গান শুনে নিতে পারেন। পছন্দের গান আপনার মন মুহূর্তেই ভাল করে তুলবে। পরবর্তী কাজ শুরু করার সময় এর সুপ্রভাব অনুভব করবেন।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।