সারাদিন চাকরির ব্যস্ততার মাঝেও ফিট রাখুন নিজেকে

staying fit at officeবর্তমান সময়ে আমরা নারী পুরুষ উভয়েই কর্মস্থলে কাজের চাপে নিজেকে নিয়ে ভাববার কথাটা ভুলেই যাই। সারাদিন অফিস করে বাসায় ফিরে সবাই বিশ্রামের কথা চিন্তা করি। ভাবি যে সময় কোথায় ব্যায়াম করে নিজেকে ফিট রাখার। কিন্তু আমরা অফিসে কাজের ফাঁকেও কিছু ব্যায়াম করে নিজেকে ফিট রাখতে পারি।

আমরা অফিসে বেশিরভাগ সময়েই চেয়ারে বসে কাজ করি। দীর্ঘক্ষণ একভাবে বসে থেকে কাজ করার ফলে পিঠের মাংসপেশী গুলো অনেক সময় সংকুচিত হয়ে ব্যথার সৃষ্টি করে। মেরুদণ্ডে ব্যথাও হয় যা একটা দীর্ঘস্থায়ী সমস্যাও হতে পারে পরবর্তীতে। এছারাও পেটে ও শরীরের বিভিন্ন অংশে মেদ হওয়ার আশংকা তো আছেই। এছাড়াও মানসিক প্রশান্তির ব্যাপারও আছে। সে ক্ষেত্রে নিচের কিছু ছোট্ট কাজ আর ব্যায়াম আপনাকে এইসব সমস্যা থেকে দূরে রাখবে। খুব সহজেই আপনারা এই কাজগুলো করে নিতে পারেন।

  • চেয়ারে দীর্ঘক্ষণ বসে না থেকে মাঝে মাঝে উঠে দাঁড়ান। ১ থেকে ২ মিনিট দাঁড়িয়ে থেকে পরক্ষণে আবার চেয়ারে বসুন। এভাবে ঘণ্টায় ২ বার করলে আপনার মাংশ পেশী গুলো সময়ে রিলাক্স হওয়ার সুযোগ পাবে রক্ত চলাচল বাড়বে।
  • মাঝে মাঝে দুই পা একসাথে সামনে সোজা করে বাড়িয়ে ধরুন মেঝে থেকে একটু ওপরে। সাথে দুই হাতও একসাথে সামনে বাড়িয়ে ধরুন । জোরে জোরে নিঃশ্বাস ফেলুন। এভাবে এক মিনিট থাকুন। এতে আপনার পেটের মেদ কমতে সাহায্য করবে। সারাদিনে ৩/৪ বার এরকম করুন।
  • মাথা ব্যথা এড়াতে এবং চোখের আরামের জন্য আপনার ডেক্সটপ স্ক্রিনের ব্রাইটনেস সহায়ক পর্যায়ে রাখুন। খুব বেশী উজ্জ্বল স্ক্রিন আপনার চোখের জন্য ভালো নয়।
  • দুপুরের খাবার খেয়েই সাথে সাথে ডেস্কে যাবেন না। সে ক্ষেত্রে কিছুক্ষণ রিলাক্স করুন। তারপর কাজে ফিরে যান। আর যদি বেশী জরুরি কাজ থাকে তবে সে ক্ষেত্রে ১/২ মিনিট একটু হাঁটাহাঁটি করুন । তারপর কাজ শুরু করুন।
  • কাজ একটু আগেই শেষ হয়ে গেলে বা কাজের মাঝে রিলাক্স হওয়ার টাইম গুলোতে সৃষ্টিশীল কোন কাজে সময় দিতে পারেন। এই যেমন ছবি আঁকা, পছন্দের লেখকের কোন বই পড়া,অথবা কোন কাজের পরিকল্পনা করা যেটা করতে আপনি ভালবাসেন ইত্যাদি। এগুলো আপনাকে কাজের টেনশন থেকে কিছুটা হলেও দূরে রাখবে। আপনার মনে বাড়তি চাপ নেয়ার সুযোগ দেবেনা।
  • কাজের ফাঁকে ফাঁকে পানি পান করুন। এবং প্রয়োজনে ওয়াশরুম ব্যবহার করবেন। এতে কিডনি সমস্যা, ইউরিন ইনফেকশন এর মতন অসুখ খুব সহজেই এড়িয়ে যেতে পারবেন। আমাদের দেশের বেশির ভাগ চাকুরীজিবী বিশেষ করে মেয়েরা এই সমস্যায় বেশী ভোগেন। তাই বেশী করে পানি পান করুন।
  • যারা অফিসে আসা যাওয়ায় পাবলিক ট্রান্সপোর্ট মানে বাসে ব্যবহার করেন তাদের সুযোগ আছে হেঁটে নেয়ার যেটা খুবই ভালো আর শরীরের জন্য উপকারি ব্যায়াম । চেষ্টা করুন বাস স্টপ পর্যন্ত হেঁটে যেতে। এই অভ্যাস টা আপনার নিজের জন্য উপকার ই বয়ে আনবে।

নিয়মিত ছোট্ট এই কাজগুলোই আপনাকে আপনার কর্মস্থলেও শারীরিক ও মানসিক দুভাবেই ফিট রাখবে।
সুস্থ থাকুন, ভালো থাকুন সবসময়।

আরো পড়ুন
বাড়িয়ে তুলুন নিজের কর্মদক্ষতা

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।