ফ্রিজ ছাড়াই ঘরোয়া পদ্ধতিতে সংরক্ষণ করুন কোরবানির পশুর মাংস

Beef_Jerkyসামনে ঈদ, কোরবানির ঈদ। আর তাই আপনার চিন্তার অন্যতম কেন্দ্রবিন্দুতে আছে ঈদের মাংস সংরক্ষণ করবেন কিভাবে? যাদের ফ্রিজ আছে তাদের অবশ্য চিন্তা ভাবনা নেই কিন্তু যাদের ফ্রিজ নেই তাদের চিন্তারও শেষ নেই।

এছাড়াও দেখা যায় ফ্রিজ থাকলেও জায়গা স্বল্পতার জন্য আপনার মাংস সংরক্ষণ নিয়ে বেশ ঝামেলায় পড়তে হয়। আপনাদের এই চিন্তা আর ঝামেলার বোঝা একটু কমিয়ে দিতে আসুন ঘরোয়া পদ্ধতিতে মাংস সংরক্ষণ করা নিয়ে কিছু টিপস দেওয়া যাক।

মাংস সংরক্ষণের কিছু প্রয়োজনীয় টিপস

  • মাংস খুব সহজে সংরক্ষণ করতে ভালোভাবে ধুয়ে বেশী করে আদা, রসুন ও পেঁয়াজ দিয়ে জ্বাল দিয়ে রাখুন। একদিন পর পর এই মাংস জ্বাল দিয়ে কমপক্ষে ১৫ থেকে ২০ দিন মাংস ভালো রাখতে পারবেন।
  • মাংস লম্বা লম্বা করে কেটে নিন। এরপর এতে লবণ হলুদ মেখে রোদে শুকিয়ে রাখুন। দেখবেন মাংস অনেক দিন অবধি ঘরে থাকবে।
    মাংসের বড় বড় টুকরা ও কুচি মাংস কিমা করে আপনি তা সংরক্ষণ করতে পারেন।
  • মাংসের বেশ লম্বা আর বড় করে কাঁটা কিছু টুকরা নিয়ে তা ছুরি বা কাঁটা চামচ দিয়ে কেটে তাতে লবণ ও লেবুর রস মিশিয়ে মাংস সংরক্ষণ করতে পারেন।
  • আপনি শক্ত মাংসগুলো বেছে আলাদা করে নিয়ে সেগুলো সিদ্ধ করে কাবাবের জন্য তৈরি রাখতে পারেন।
  • মাংসে লবণ আর হলুদ মিশিয়ে ডুবো তেলে ভেজেও তা সংরক্ষণ করতে পারেন। এতে মাংস নষ্ট হবে না।
  • রাখার জায়গা বাঁচাতে মাংস পুটলি করে রাখবেন না । বরং প্যাকেটে বিছিয়ে রেখে দিন। এতে জায়গা বেঁচে যাবার সাথে সাথে মাংস অনেকদিন ভালো থাকবে।

আপনার কোরবানির মাংসগুলো সুষ্ঠুভাবে বণ্টন করে নিজের জন্য রাখা মাংসগুলো সুন্দর আর গোছালো হাতে তুলে রাখুন। আপনার নিজের অংশের মাংসগুলো সঠিকভাবে সংরক্ষণ করতে পারলে অনেক দিন বেশ ভালোভাবেই তা খেতে পারবেন।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।