মেয়েদের সাথে কথা বলতে লজ্জা পান? জেনে নিন এ লাজুকতা কাটিয়ে উঠবেন যেভাবে

shynessমেয়েদের সাথে কথা বলতে লজ্জা পাওয়া (talk to girls) শুধু আমাদের দেশ নয় বরং বিশ্বের অধিকাংশ ছেলেরই একটি কমন সমস্যা। শুধু প্রেম নয়, পড়াশোনা, ক্যারিয়ার ইত্যাদি ক্ষেত্রেও ছেলেদের বেশ কিছু সমস্যায় পড়তে হয় শুধু মাত্র মেয়েদের সাথে কথা বলতে লজ্জা পাওয়ার কারণে। এই লজ্জা কাটিয়ে উঠার কিছু পদ্ধতি (overcoming shyness with girls) জানাচ্ছি এই লেখাটিতে।

  • আত্মবিশ্বাসী হোন, আত্মবিশ্বাস (confidence)আপনাকে এগিয়ে নিয়ে যাবে শুধুমাত্র মেয়েদের সাথে কথা বলাই নয় বরং আরও অনেক সম্ভাবনাময় ক্ষেত্রে।
  • মেয়েদের সাথে কথা বলতে যাওয়ার আগে আপনার সবচেয়ে ভাল পোশাকটি পড়ে নিন, যেটাতে আপনি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। ভাল পোশাক যেমন আপনাকে আত্মবিশ্বাসী করে তুলবে তেমনি মেয়েদেরও আগ্রহী করে তুলবে আপনার প্রতি।
  • শরীরের যত্ন নিন , নিয়মিত জিমে যান। সুন্দর এবং সুস্থ শরীর আমাদের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে তোলে অনেকখানি। এছাড়া সুন্দর ফিগারের অধিকারী কোন ছেলে যদি নিজ থেকে এগিয়ে এসে কথা বলে তবে খুব কম মেয়েই তাকে ফিরিয়ে দেয়।
  • মনে রাখবেন, এদেশের অধিকাংশ মেয়েই লাজুক প্রকৃতির। তারাও অপেক্ষায় থাকে কেউ একজন প্রথমে এসে তার সাথে কথা বলুক। তাই আপনি যদি নিজ থেকে তাদের সাথে কথা বলতে এগিয়ে যান তাহলে বরং তারা খুশিই হবে।
  • “আমি প্রথমে কি বলবো” এই চিন্তাটি ঝেড়ে ফেলুন। কথা শুরু করতে পারেন এইভাবে, “হ্যালো, আমার নাম …” । এর পর আলোচনা নিজ থেকেই চলতে থাকবে। কি বলবেন এটা নিয়ে যদি খুব বেশি চিন্তা করতে যান তাহলে কখনো কথাই শুরু করতে পারবেন না।
  • কথা শুরু করার পর প্রথমদিনেই খুব বেশি কথা বলে ফেলবেন না। এতে মেয়েরা সন্দেহপ্রবণ হয়ে উঠবে। প্রথম কিছুদিন আলোচনা ৫-১০ মিনিটের ভেতরেই সীমাবদ্ধ রাখুন। এছাড়া ব্যক্তিগত প্রশ্ন করা থেকে বিরত থাকুন। তারা যদি নিজ থেকে বলতে চায় শুধুমাত্র তখনই তাতে আগ্রহ দেখাবেন।
  • বিফল হলে ধৈর্য হারাবেন না। পৃথিবীর সব মানুষ আপনাকে পছন্দ করবে না। আপনি যতবার মেয়েদের সাথে কথা বলতে গিয়ে বিফল হবেন, আপনার সফল হবার সম্ভাবনা ততই কাছে চলে আসবে। কারণ আপনি কোথায় ভুল করছেন তা নিজ থেকেই বুঝতে পারবেন।
  • মেয়েদের সাথে কথা বলায় লজ্জা কাটানোর জন্য (overcoming shyness with girls) পরিচিত কারো সাহায্য নিতে পারেন। হতে পারে তা কাজিন , বন্ধু বা বন্ধুর বন্ধু । এদেরকে আপনার সমস্যাটি খোলামনে স্পষ্ট ভাবে বুঝিয়ে বলুন এবং কি ধরণের সাহায্য চাচ্ছেন তা পরিষ্কার করে বলুন। উল্লেখ্য ব্যক্তিদের সহযোগিতায় ধীরে ধীরে আপনার লাজুকতা কমে আসবে।

 

এ ধরণের আরও লেখা পড়ুনঃ

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।