নখের কোণা বৃদ্ধি ও সংক্রমণ রোধ করার কিছু পরামর্শ

How To Get Rid of Ingrown Toenailsনখের কোণা বিশেষ পায়ের বৃদ্ধাঙ্গুলির নখের কোণা বৃদ্ধি (ingrown toenails) খুবই বিব্রতকর, বেদনাদায়ক এবং বিপজ্জনক একটি সমস্যা। ঠিকভাবে পরিচর্যা না করলে নখের অপারেশন থেকে শুরু করে সম্পূর্ণ আঙ্গুলটি পর্যন্ত কেটে ফেলতে হতে পারে। তাই উপস্থাপন করছি কিছু পরামর্শ যা নখের কোণা বৃদ্ধি রোধ ও এর সংক্রমণের হাত থেকে আপনাকে রক্ষা পেতে সাহায্য করবে।

নখের কোণা বৃদ্ধি প্রতিরোধে যা করবেন (get rid of ingrown toenails):

  • নখ কাটার সময় গোলাকার ভাবে না কেটে সোজা ভাবে কাটুন। বিশেষ করে গোলাকার ভাবে কাটা নখের কোনা আঙ্গুলের ভেতর ঢুকে যাওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে।
  • হাত এবং পায়ের নখ কাটার জন্য আলাদা নেইল কাটার ব্যবহার করুন। হাতের নখ কাটার নেইলকাটার সাইজে ছোট হয় যা পায়ের নখ কাটার জন্য ব্যবহার করলে ধারালো কোণা রয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।
  • সঠিক সাইজের জুতা পরুন। টাইট জুতা পরার ফলে পায়ের নখে অনেক বেশি চাপ পড়ে, ফলে নখ আঙ্গুলের ভেতর ঢুকে যায়।
  • নখ কাটার জন্য কখনোই ব্লেড, কাঁচি বা এমন অপ্রচলিত কিছু ব্যবহার করবেন না। এছাড়া নখের ভেতর কাঠি বা কলমের ডগা ইত্যাদি দিয়ে খোঁচাবেন না। যে কোন শপিং মলে বা বড় ডিপার্টমেন্টাল স্টোরে নেইল কাটারের সেট পাওয়া যায়। তা সংগ্রহ করে নিন। এছাড়া আমাদের দেশের বিভিন্ন অনলাইন শপিং ওয়েবসাইটে সহজেই পেয়ে যাবেন এমন নেইল কাটারের সেট।

সংক্রমণ প্রতিরোধে যা করবেন (prevent infection):

  • নখ আঙ্গুলের ভেতর ঢুকে গেলে (ingrown toenails) পেডিকিউর বা পার্লারে গিয়ে নখের পরিচর্যা থেকে বিরত থাকুন।
  • একটি বড় পাত্রে পানি নিয়ে তাতে কয়েক ফোটা পটাশিয়াম পারম্যাঙ্গানেট দিন। প্রতিদিন নিয়মিত ১০-১৫ মিনিট এই মিশ্রণে পা ডুবিয়ে রাখুন। আপনার পা এতে সামান্য খয়েরি বর্ণ ধারণ করবে কিন্তু নখের কোণা এবং পা জীবাণু মুক্ত রাখবে।
  • পা খোলামেলা রাখার চেষ্টা করুন। ধুলো বালি থেকে দূরে থাকার চেষ্টা করুন। সারাদিন জুতা-মোজা পরে থাকবেন না। নিতান্তই বাধ্য হলে কিছুক্ষণ পর পর মোজা খুলে পায়ে বাতাস লাগার সুযোগ করে দিন।
  • আক্রান্ত স্থানে এবং সারা পায়ে প্রতিদিন দুইবার এন্টিবায়োটিক ক্রিম লাগান। সকালে গোসলের পর এবং রাতে ঘুমানোর আগে এন্টিবায়োটিক ক্রিম লাগাবেন।
  • নখের কোণা আঙ্গুলের ভেতর ঢুকে গেলে (ingrown toenails) আরও বেশি ঢুকার অপেক্ষা না করে চিকিৎসকের সাথে যোগাযোগ করুন। খুব সহজ একটি অপারেশনের মাধ্যমে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। হাসপাতাল ভেদে অপারেশনে ৩-৫ হাজার টাকা খরচ হয়। অপারেশনের পর ৭-১০ দিনের ভেতরেই নখ সুস্থ হয়ে যাবে।

এ ধরণের আরও লেখা পড়ুনঃ

পরামর্শ.কম এ স্বাস্থ্য ও রূপচর্চা বিভাগে প্রকাশিত লেখাগুলো সংশ্লিষ্ট লেখকের ব্যক্তিগত মতামত ও সাধারণ তথ্যের ভিত্তিতে লিখিত। তাই এসব লেখাকে সরাসরি চিকিৎসা বা স্বাস্থ্য অথবা রূপচর্চা বিষয়ক বিশেষজ্ঞ পরামর্শ হিসেবে গণ্য করা যাবে না। স্বাস্থ্য/ রূপচর্চা সংক্রান্ত যেকোন তথ্য কিংবা চিকিৎসার জন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের/বিউটিশিয়ানের শরণাপন্ন হোন।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।