অতিরিক্ত অভিযোগকারী ব্যক্তিকে যেভাবে সামলাবেন

How to Deal With Chronic Complainersকোন কিছুর ভাল এবং মন্দ উভয় দিকই থাকতে পারে। কিন্তু যখন একজন ব্যক্তি শুধুমাত্র মন্দ দিকগুলো নিয়ে ঘন ঘন অভিযোগ করে যেতেই থাকে তবে তা একদিক থেকে যেমন বিরক্তিকর তেমনি বিপজ্জনকও। এছাড়া এ ধরণের ব্যক্তিরা সময় নষ্টের অন্যতম কারণ। আগের একটি লেখায় ঘন ঘন অভিযোগের অভ্যাস কমিয়ে আনার ব্যাপারে লিখেছিলাম। এ লেখায় আপনাদের জানাচ্ছি কিভাবে এ ধরণের মানুষদের সামলাবেন (deal with chronic complainers)

১. কথা বলার জন্য সময় নির্ধারণ করুন (schedule a sit-down):

এড়িয়ে যাওয়ার উপায় না থাকলে এদের সাথে কথা বলার জন্য একটি নির্দিষ্ট সময় ঠিক করুন যা ১০-১৫ মিনিটের বেশি নয়। এবং তাদের জানিয়ে দিন আপনার সময় স্বল্পতার ব্যাপারটি। এইটুকু সময়ের ভেতরেই তাদের কথা শেষ করতে বলুন।

২. সহানুভূতি প্রকাশ করুন (express empathy):

অতিরিক্ত খুঁত সন্ধানী ব্যক্তিরা সাধারণত এমন বিষয় নিয়ে অভিযোগ করে যার কোন তাৎক্ষণিক বা সহজ সমাধান নেই। এই ক্ষেত্রে তারা যে সমস্যায় ভুগছে তার প্রতি সহানুভূতি প্রকাশ করুন।

৩. তাদের সাথে তর্ক করবেন না (don’t try to convince them):

এ ধরণের ব্যক্তিদের সাথে তর্ক করবেন না। তাদের বুঝানোর চেষ্টা করবেন না , যে ব্যাপারটি তারা যেভাবে ভাবছে আসলে তা নয়। কারণ এ ধরণের ব্যক্তিরা নিজ যুক্তিতেই অটল থাকে। তাদেরকে বোঝানোর চেষ্টা করলেই বিতর্কের সৃষ্টি হবে।

৪. সমস্যার সমাধান চান তার কাছেই (Ask for a solution):

খুঁত সন্ধানী ব্যক্তি (chronic complainer) কোন বিষয়ে বার বার আপনার কাছে অভিযোগ করতে থাকলে সমাধান চান তার কাছেই। জিজ্ঞেস করুন এমন কোন বাস্তবসম্মত পদ্ধতি তার জানা আছে কি না যা সমস্যাটির সমাধান এনে দিতে পারে। নিজে কখনোই তাদের সমস্যার সমাধান করতে যাবেন না।

৫. জিজ্ঞেস করুন তারা আপনার মতামত চায় কি না (Ask if they want your opinion):

এ ধরণের ব্যক্তিরা চায় কেউ তার কথা গুলো শুনুক। সমাধান চায় না। তাই যখনই এমন কারো সম্মুখীন হবেন, জিজ্ঞেস করুন যে সে আপনার মতামত চায় কি না? যদি আপনার মতামত তার প্রয়োজন না হয় তবে তাকে এমন কারো কাছে যেতে বলুন যে তার সমস্যার সমাধান করতে পারবে।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।