স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর সহজ কিছু কৌশল

How Can You Improve Your Memoryঘরের তালার চাবি খুঁজে পাচ্ছেন না? বাজারের তালিকাটা কোথায় রেখেছেন খুঁজে পাচ্ছেন না?  বা খুব প্রয়োজনীয় কোন বই কোথায় রেখেছেন খুঁজে পাচ্ছেন না? তবে বলব আপনি একা নন। সবাই কোন না কোন বিষয় মাঝে মাঝে ভুলে যায় এবং এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু তারপরেও ভুলে যাওয়ার বিষয়টি যদি ঘন ঘন হতে থাকে তবে তা আমাদের জন্য চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়ায়।

আসুন আমরা এখন কিছু সহজ উপায় জেনে নেই, কিভাবে আমাদের স্মৃতিশক্তিকে আরও শক্তিশালী করা যায়।

১) Brain Game খেলুন

পাযল, সুডোকু এবং শব্দ মেলানোর মত brain game গুলো স্মৃতি শক্তি উন্নত করতে সহায়তা করে। “Extreme Brain Workout” বইটির লেখক মারচেল দানেসি বলেছেন “যখন Brain game গুলো খেলা হয় তখন মস্তিস্কের স্মৃতি এলাকাগুলো সহ পুরো মস্তিস্কের সমস্ত স্নায়ুগুলো সক্রিয় হয় যা কিনা স্মৃতি বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।” তাই প্রতিদিন নাহলেও মাঝে মাঝে Brain Game খেলুন।

২) পুষ্টিকর খাবার গ্রহণ করুন

পুষ্টিকর খাবার আমাদের মস্তিস্ক এবং হার্ট এর জন্য খুবই দরকারি। শাক-সবজি এবং শস্য জাতীয় খাবার যেমন: গম, যব এগুলো খাদ্য তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করুন। নিম্ন মাত্রার চর্বিযুক্ত খাবার খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন এবং প্রোটিন যুক্ত খাবার খান; যেমনঃ মাছ, চর্বিহীন মাংস ইত্যাদি। এ খাবার গুলো আপনার মস্তিস্কে পুষ্টি সরবরাহ করে আপনার স্মৃতিকে উন্নত করবে।

৩) সামাজিক কর্মকাণ্ডে সময় দিন

বিষণ্ণতা এবং অতিরিক্ত মানসিক চাপ স্মৃতি শক্তি কমে যাওয়ার অন্যতম কারণ। তাই সামাজিক কর্মকাণ্ডে নিজেকে যুক্ত করুন। সামাজিক কর্মকাণ্ড বিষণ্ণতা এবং মানসিক চাপ থেকে বেরিয়ে আসতে সহায়তা করে। যদি আপনি একা একা থাকেন তবে দিনের কিছুটা সময় কাটান আপনার প্রিয় কোন বন্ধু বা প্রিয় কোন ব্যক্তির সাথে। এতে আপনার বিষণ্ণতা কমবে।

৪) পরিমিত ঘুম নিশ্চিত করুন

পেনিসিলভেনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা এটা আবিস্কার করেছেন যে ৩ বা ৪ ঘণ্টার জন্য অর্ধেক রাতের ঘুম কম হলে তা পরবর্তী সন্ধ্যার মধ্যেই স্মৃতি শক্তিকে ক্ষয় করে দিতে কার্যকর ভূমিকা রাখে। রাতে কম পক্ষে ৮ ঘণ্টা ঘুমালে তা আমাদের স্মৃতিকে ক্ষণস্থায়ী থেকে দীর্ঘস্থায়ী হতে সাহায্য করে তাই প্রতি রাতে অন্তত পক্ষে ৮ ঘণ্টা ঘুমানোর অভ্যাস করুন।

৫) একসাথে অনেক কাজ করা থেকে বিরত থাকুন

আমরা অনেকেই একসাথে অনেকগুলো কাজ করে থাকি। একসাথে অনেক কাজ করলে মস্তিষ্ক ঠিকমতো স্নায়ু সংযোগ করতে পারেনা সেই ক্ষেত্রে আমরা কাজগুলো করি ঠিকই কিন্তু সেগুলোর তথ্য ক্ষণস্থায়ী স্মৃতি থেকে দীর্ঘস্থায়ী স্মৃতিতে সংরক্ষিত হয় না এবং তখন আমরা ভুলে যাই । তাই স্মৃতি শক্তিকে উন্নত করতে হলে একসাথে অনেক কাজ করা থেকে বিরত থাকুন।

৬) নতুন নতুন দক্ষতাকে আয়ত্ত করুন

খুব সম্প্রতি একটি সুইডিশ গবেষণায় পাওয়া গেছে যে যারা নতুন ভাষা শিখেছে তাদের অন্যদের নাম মনে রাখার ক্ষেত্রে স্মৃতি শক্তি বেড়েছে। অন্যান্য কর্মকাণ্ড যেমন সেলাই শেখা বা স্কিইং শেখা ইত্যাদিও স্মৃতি বাড়াতে সহায়ক । সুতরাং, স্মৃতি বাড়াতে নতুন নতুন দক্ষতাকে আয়ত্ত করার অভ্যাস গড়ে তুলুন ।

৭) শারীরিক পরিশ্রম করুন

শারীরিক পরিশ্রম পুরো শরীর এবং মস্তিস্কে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে । এই রক্ত সঞ্চালন আমাদের স্মৃতিকে উন্নত করতে সহায়তা করে । সুতরাং দিনের কিছু সময় অতিবাহিত করুন শারীরিক পরিশ্রম বা ব্যায়াম করে।

যদি কারও স্মৃতি শক্তি কমে যাওয়াতে তার স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যাহত হয় অর্থাৎ কেউ যদি স্মৃতি শক্তি জনিত গুরুতর সমস্যায় ভোগেন তাহলে অবশ্যই তাকে ডাক্তারের শরণাপন্ন হতে হবে কেননা স্মৃতি শক্তি কমে যাওয়ার পেছনে অন্য কোন শারীরিক বা মানসিক সমস্যা থাকতে পারে।

পরামর্শ.কম এ স্বাস্থ্য ও রূপচর্চা বিভাগে প্রকাশিত লেখাগুলো সংশ্লিষ্ট লেখকের ব্যক্তিগত মতামত ও সাধারণ তথ্যের ভিত্তিতে লিখিত। তাই এসব লেখাকে সরাসরি চিকিৎসা বা স্বাস্থ্য অথবা রূপচর্চা বিষয়ক বিশেষজ্ঞ পরামর্শ হিসেবে গণ্য করা যাবে না। স্বাস্থ্য/ রূপচর্চা সংক্রান্ত যেকোন তথ্য কিংবা চিকিৎসার জন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের/বিউটিশিয়ানের শরণাপন্ন হোন।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।