সুন্দর চোখের জন্য চোখের পাঁপড়িগুলো করে তুলুন আরেকটু বড়

Home Remedies For Eyelash Growthপ্রতিটি নারীর কাঙ্ক্ষিত একটি স্বপ্ন হলো তাদের চোখের পাঁপড়িগুলো (eyelashes) আরও একটু বড় আর ঘন হোক। লম্বা ও ঘন চোখের পাঁপড়ি চোখের সৌন্দর্য অনেকাংশে বাড়িয়ে তোলে। চোখকে করে তোলে মায়াময়। দেখতে ভালো লাগে বলে অনেকে ব্যবহার করেন নকল চোখের পাঁপড়ি।

কিন্তু এই দুটি পদ্ধতিরই রয়েছে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া। যাদের চোখে অ্যালার্জি আছে তারা মাসকারা ব্যবহার করতে পারেন না। এবং নকল পাঁপড়ি লাগাতে যে আঠা ব্যবহার করা হয় তা চোখের জন্য বেশি ভালো নয়। কিন্তু চোখের সাজে এই দুটি আবশ্যক। তাই আসুন জেনে নেই কিভাবে প্রাকৃতিক উপায়ে আপনার চোখের পাঁপড়িগুলো করে তুলবেন আরও বড় ও ঘন।

  • অলিভ অয়েল(olive oil): চোখের পাঁপড়ি ঘন আর বড় করতে প্রতিদিন রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে কটন বলে করে কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েল নিয়ে চোখের পাঁপড়িতে লাগান। সকালে উঠে ভালো করে চোখটা ধুয়ে ফেলুন। আপনি চাইলে বাদাম তেল ও ব্যবহার করতে পারেন।
  • গ্রিন টি (green tea): চিনি ছাড়া গ্রিন টি যদি কটন বলে করে আপনার চোখের পাঁপড়িটিতে লাগান তাহলে চোখের পাঁপড়ি ঘন ও বড় হয়ে উঠবে। তবে মনে রাখতে হবে গ্রিন টি লাগানোর পর ৪ থেকে ৫ মিনিট এর মধ্যে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।
  • পেট্রোলিয়াম জেলি লাগান (apply vaseline): চোখের পাঁপড়ি বড় আর ঘন করতে পেট্রোলিয়াম জেলি খুব কাজের জিনিস। মাসকারা লাগানোর ব্রাশে করে সামান্য পেট্রোলিয়াম জেলি নিয়ে ঘুমাতে যাওয়ার আগে তা আপনার চোখের পাঁপড়িতে লাগান। সকালে উঠে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
  • গ্লিসারিন ব্যবহার করুন (use glycerin): দুই থেকে তিন ফোঁটা গ্লিসারিন এর সাথে এক টেবিল চামচ কাস্টার অয়েল মিশিয়ে একটি মিক্সার বানিয়ে সেটা চোখের পাঁপড়িতে লাগান। দেখবেন অল্পদিনে ফল পাবেন।

এছাড়া চোখের পাঁপড়ি বড় আর ঘন করতে আপনার চোখের ভ্রূতে আলতো ম্যাসাজ করুন। এতে চোখের পাতা ও আশেপাশের এলাকায় রক্ত চলাচল বেড়ে চোখের পাঁপড়ি বড় আর ঘন হয়ে উঠবে।

পরামর্শ.কম এ স্বাস্থ্য ও রূপচর্চা বিভাগে প্রকাশিত লেখাগুলো সংশ্লিষ্ট লেখকের ব্যক্তিগত মতামত ও সাধারণ তথ্যের ভিত্তিতে লিখিত। তাই এসব লেখাকে সরাসরি চিকিৎসা বা স্বাস্থ্য অথবা রূপচর্চা বিষয়ক বিশেষজ্ঞ পরামর্শ হিসেবে গণ্য করা যাবে না। স্বাস্থ্য/ রূপচর্চা সংক্রান্ত যেকোন তথ্য কিংবা চিকিৎসার জন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের/বিউটিশিয়ানের শরণাপন্ন হোন।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।