সুস্বাস্থ্যের গুণ সম্পন্ন ভুট্টার উপকারিতা

Benefits-of-Eating-Corn-compressorভুট্টার স্বাস্থ্য গুণ অনেকেরই অজানা। এটিকে শরীরের প্রয়োজনীয় উপাদানের প্যাকেজ বলে আখ্যায়িত করা যায়। স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ভীষণ উপকারী ভুট্টাকে নানাভাবে খাওয়া যায়- স্যুপ,সালাদ,নাস্তা হিসেবে অথবা অনান্য খাবারের সাথে যোগ করে। যা পুষ্টি করে দ্বিগুণ যেমনঃ নুডলস এর সাথে। তাছাড়া শারীরিক ও মানসিক শক্তির একটি বড় উৎস ভুট্টা।

খেলোয়াড়দের জন্য এটি বেশি জরুরী। কেননা তাদের শারীরিক কসরতের কারণে যে পরিমান শক্তি ক্ষয় হয়। তা পূরণে এটি খুবই সহায়ক। যা কার্যক্ষমতাকে বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে থাকে। জানা যাক তার নানবিধ উপকারিতা।

  • ক্যালরিঃ দেহের সুষ্ঠু কার্যপ্রণালীর জন্য একজন প্রাপ্ত বয়ষ্ক ব্যক্তির ১৩০ গ্রাম কার্বোহাইড্রেড প্রয়োজন। বহু পুষ্টি গুণসমৃদ্ধ ভুট্টায় তুলনামূলকভাবে অন্যান্য সবজির চেয়ে ক্যালরির পরিমাণ বেশি। প্রতি ১০০ গ্রামে ৮৬ ক্যালরি পাওয়া যায়।
  • প্রোটিনঃ মানুষের সুস্বাস্থ্যের জন্য শরীরে পর্যাপ্ত প্রোটিন আবশ্যক। যা কোষ,মাংসপেশিকে কর্মক্ষম রাখে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে বৃদ্ধি করে। দৈনিক হিসাবে নারীর শরীরে ৪৬ গ্রাম আর পুরুষের ৫৬ গ্রাম প্রোটিন দরকার। আর এই অত্যাবশ্যক উপাদানের অন্যতম উৎস হল ভুট্টা। যা প্রতি কাপে ৫ গ্রামের উপরে প্রোটিন সরবরাহ করে থাকে। দেহের প্রয়োজনীয় প্রোটিন পেতে খাবার তালিকায় ভুট্টা রাখা উচিত।
  • ফাইবারঃ ভুট্টার আরেকটি গুণ হল এটি ফাইবারেরও উৎস। প্রাপ্ত বয়ষ্ক পুরুষের দৈনিক ৩০ গ্রাম ও নারীর ২০ গ্রাম ফাইবার প্রয়োজন। আর ১কাপ ভুট্টা্য় ৩ গ্রামের বেশি ফাইবার পাওয়া যায়। ফাইবার দেহের ব্লাড সুগার লেভে্ল ঠিক রাখে,কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে, ওজন নিয়ন্ত্রিত রাখে আর কোলেষ্ট্রলের ঝুঁকি কমায়।
  • পটাসিয়ামঃ হার্ট, মাংসপেশি ও হাড়ের জন্য খুবই জরুরী পটাসিয়াম রয়েছে ভুট্টায় । প্রাপ্ত বয়ষ্কদের দৈনিক ৪,৭০০ মিলিগ্রাম পটাসিয়াম প্রয়োজন। আর এক কাপ ভুট্টায় পাওয়া যায় ৩২৫ মিলিগ্রাম। পটাসিয়ামের পুষ্টিগুনকে বাড়াতে আলু,পালং,ডালের সাথে ভুট্টা খাওয়া উচিত।
  • ‘এ’ভিটামিনঃ ভুট্টা ভিটামিন ” এ” এর একটি গুরুত্বপূর্ণ উৎস। আমাদের শরীরের টিস্যুকে দৃঢ রাখে এবং নাক,গলা,ফুসফুস এর মেমব্রেন স্তরকে আর্দ্র রাখে। পাশাপাশি এন্টিওক্সিডেন্ট হিসেবে দেহকে সুরক্ষা দেয়। মিষ্টি আলু বা গাজরের সাথে মিশিয়ে যদি ভুট্টা খাওয়া যায়, তবে ভিটামিন “এ’ এর গুণ বেড়ে যায়।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।