সহজ যে অভ্যাস গুলো আপনাকে বদলে দিবে এই ২০১৫ সালে

2015 habitsনতুন বছর এলেই আমরা অনেকেই অনেক পরিকল্পনা করি  কিন্তু অনেক  ক্ষেত্রেই তা আর করা হয়ে উঠে না। কারন আমরা অনেক কঠিন কঠিন পরিকল্পনা করি। আসুন দেখি কিছু সহজ অভ্যাস কি করে  অনায়েসে আপনাকে বদলে দিবে এই বছর ।

সকালে ঘুম থেকে উঠুন

উঠবো উঠবো করেও আমরা শুধু মাত্র অলসতার  জন্য উঠতে পারিনা। কিন্তু আমাদের সবাই জন্যই কিন্তু প্রভু  সমান সময় বরাদ্দ করেছেন। তাই আপনি যত  সকালে উঠবেন তত হাতে সময় পাবেন। আর এই সময়ই আপনাকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। সকালে না উঠার জন্য আপনি কি কি জীবনে আগে “মিস” করেছেন তা নিয়ে একটু ভাবলেই অতিরিক্ত ঘুমানোর ইচ্ছা থেকে বেরিয়ে আসতে পারবেন।

পড়ুন

নিয়মিত পড়ুন। যে বিষয় ভাল লাগে সেটাই পড়ুন। এক বসায় পুরো একটা বই শেষ করতে হবে তা নয়।প্রতিদিন ২০-৩০ মিনিট পড়া আপনার মনের চিন্তার দ্বার খুলে দেবে। আপনার মাথায় নতুন নতুন আইডিয়া আসবে। আপনার সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা বাড়বে।

ব্যায়াম করুন

নিয়মিত ব্যায়াম শরীর মন চাংগা করে। স্ট্রেস হরমোন কমিয়ে দেয়। প্রতিদিন ১০ -২০ কদম হাঁটুন। অল্প দূরতে যানবাহনে না উঠে হাঁটা ভালো। এতে একদিকে যেমন আপনার ব্যায়াম হবে আরেকদিকে  অর্থ ও সাশ্রয় হবে। সবচেয়ে ভালো সাইকেল চালানো। বর্তমানে অনেকেই  সাইকেল চালিয়ে  অফিসে যাচ্ছেন। এতে যেমন জ্যাম এর যন্ত্রনা  থেকে মুক্তি পাবেন আবার শরীর মনও ভাল থাকবে। নতুন এক গবেষণায় দেখা গেছে সাইকেল সেরেটোনিন এর মাত্রা বাড়িয়ে দেয়, যা নাকি মনে সুখভাব আনে এবং বিষণ্ণতা কমিয়ে দেয়।

মেডিটেশন

নিয়মিত মেডিটেশন আপনার মনকে বর্তমানে নিয়ে আসবে। আপনার মন প্রফুল্ল থাকবে। প্রথম দিকে ৬-১০ মিনিটের ছোট মেডিটেশন করতে পারেন। যত টাইম বাড়াবেন তত উপকার। ছোট ইংলিশ মেডিটেশন You tube থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারেন। এছাড়া বাংলাদেশে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান আছে যারা মেডিটেশন করায়।

কৃতজ্ঞতা প্রকাশ

দিন শুরু হক কৃতজ্ঞতা দিয়ে। আপনি যে এই শ্বাস প্রশ্বাস এটাই আপনার প্রথম সাফল্য। প্রতি  সপ্তাহে সারা পৃথিবীতে ১০ লাখ লোক এই দুনিয়া ছেড়ে চলে যায়। আপনি যে বেঁচে আছেন তার জন্য প্রভু কে ধন্যবাদ দিন। প্রতিদিন আমরা  হাজারো কাজ করি এর মধ্যে আপনিই হিসাব করে দেখুন আপনার কতটি কাজ হয়নি, দেখবেন দুই একটি ছাড়া সবই হয়েছে। তাই প্রতিটি কাজ শেষ করলেই কৃতজ্ঞতা  প্রকাশ করুন, সেটা নিজেকেই হোক আর অন্য কাউকেই হোক। এতে আপনার মনের সুখানুভুতি বাড়বে, আপনি ভাল থাকবেন।

দিনের শুরুতেই পরিকল্পনা করুন

নতুন একটি গবেষণাতে দেখা গেছে আপনার এক মিনিট এর পরিকল্পনা আপনার দশ মিনিট বাঁচিয়ে দিতে পারে। সকালে ঘুম থেকে উঠেই সারাদিনের কাজের পরিকল্পনা করে ফেলুন, দেখবেন আপনার কাজের গতি বেড়ে গেছে। সবচেয়ে ভাল হয় ছোট নোট বুক ব্যবহার করতে পারলে। প্রথমে গুরুত্বপূর্ণ কাজ গুলুর লিস্ট করে ফেলুন একটা একটা করে এই কাজগুলো করে ফেললে দেখবেন পরের কাজগুলো সহজেই হয়ে গেছে।

আমাদের মহানবী (সঃ) বলছেন “যার দুইটা দিন সমান গেল, সে ক্ষতিগ্রস্ত হল”  তার মানে আমাদের প্রতিদিনই উন্নতি করতে হবে। সেটা যে কোন ক্ষেত্রেই হোক যত ছোটই হোক। তাহলে আর দেরি কেন শুরু করে দিন এবং  আবিষ্কার করুন নিজের সম্ভবনাকে।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।