যে ৫টি কারণে ওজন কমাতে গ্রীন টি পান করবেন

Green-Tea

গ্রীন টি এর অসংখ্য গুণের অন্যতম হল ওজন কমানোর ক্ষেত্রে এর কার্যকারিতা। যারা অতিরিক্ত ওজন নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছেন তারা গ্রীন টি নিয়মিত পান করে এ থেকে সহজেই মুক্তি পেতে পারেন। জেনে নিন যে ৫টি কারণে ওজন কমাতে গ্রীন টি পান করবেন।

১. গ্রীন টি তে আছে ক্যাফেইন। ক্যাফেইন আমাদের দেহের চর্বি ক্ষয় করতে সাহায্য করে। তবে এক কাপ কফিতে যে পরিমাণ ক্যাফেইন থাকে (১০০-২০০ মি.গ্রা.) তার চেয়ে অনেকগুণ কম থাকে গ্রীন টি তে (২৪-৪০ মি.গ্রা.)। অতিরিক্ত ক্যাফেইন অনিদ্রা সহ আরও অনেক অসুস্থতার কারণ হতে পারে। শরীরের জন্য পর্যাপ্ত ক্যাফেইন পেতে প্রতিদিন ২-৩ কাপ গ্রীন টি পান করুন ।

২. গ্রীন টি তে আছে EGCG (Epigallocatechin gallate)। এটি এমন একটি উপাদান যা আমাদের শরীরে থাকা মেটাবোলিজমের উন্নতি ঘটায়। এই মেটাবোলিজম এর স্বল্পতা ওজন বৃদ্ধির জন্য দায়ী। তাই শরীরে পর্যাপ্ত মেটাবোলিজমের জন্য গ্রীন টি পান করুন।

৩. Norepinephrine নামক হরমোনের কাজ হচ্ছে অতিরিক্ত চর্বি ক্ষয়ের জন্য আমাদের স্নায়ু তন্ত্রকে নির্দেশ দেয়া। কিন্তু আমাদের কোষে উৎপন্ন কিছু এনজাইম আছে যা এই হরমোনকে ধ্বংস করে। গ্রীন টি তে থাকা EGCG এই এনজাইমকে ধ্বংস করে , ফলে Norepinephrine হরমোন এর পরিমাণ বৃদ্ধি পায়। অতিরিক্ত চর্বি ক্ষয়ের জন্য নিয়মিত ব্যায়ামের পাশাপাশি পান করুন গ্রীন টি।

৪.  দেহের ওজন বৃদ্ধিকারী অতিরিক্ত তরল উৎপাদন থেকে রক্ষা পেতে পান করুন গ্রীন টি।  এতে থাকা উপাদান এই অতিরিক্ত তরল ঘাম এবং প্রস্রাবের মাধ্যমে বের করে দিতে সাহায্য করে। এবং পরবর্তীতে দেহে প্রয়োজনাতিরিক্ত তরল উৎপাদনে বাধা দেয়।

৫. ব্যায়াম শুরু করার পূর্বে নিয়মিত পান করুন গ্রীন টি।  গ্রীন টি তে থাকা catechin আমাদের শরীরের অতিরিক্ত চর্বিকে শক্তিতে পরিণত করে। এতে করে ব্যায়াম করার সময় আমাদের সহিষ্ণুতা বৃদ্ধি পায়। ফলে আমাদের পক্ষে স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক বেশি সময় ধরে ব্যায়াম করে ব্যায়াম করা সম্ভব হয়। যা শরীরের ওজন কমাতে ভূমিকা রাখে।

গ্রীন টি নিয়ে পরামর্শ.কম এর আরো লেখা পড়ুনঃ
১. যে সব রোগের প্রতিষেধক হিসেবে গ্রীন টি পান করতে পারেন
২. ত্বকের যত্নে ব্যবহার করুন গ্রিন টি

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।