প্রয়োজনের মুহুর্তে আরও কিছু সময়ের জন্য বাড়িয়ে নিন ল্যাপটপের ব্যাটারি লাইফ

Extend Your Laptop’s Battery Lifeজরুরী কোন ইমেইল পাঠানো বা পড়া প্রয়োজন, অথবা কাউকে একটি ফাইল অবশ্যই সেন্ড করতে হবে কিন্তু ল্যাপটপে চার্জ প্রায় শেষ এমন অবস্থায় পড়েছেন অনেকেই। ল্যাপটপ আর এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোন, এই দুটি জিনিসের চার্জ বা ব্যাটারি লাইফ (laptop charge) নিয়ে প্রায় সবারই অসন্তুষ্টি রয়েছে। ল্যাপটপ চার্জে না লাগিয়ে এর ব্যাটারির চার্জ বাড়ানোর অন্য কোন পন্থা নেই। তবে এমন কিছু পদ্ধতি আছে যার প্রয়োগে প্রায় শেষ হয়ে যাওয়া চার্জ দিয়েও প্রয়োজনীয় কাজগুলো সেরে ফেলতে পারবেন।

১. ব্যাকলাইট বন্ধ করুন (turn off backlight)

যদি না আপনি রাতে কাজ করে থাকেন, তবে কী-বোর্ডের ব্যাকলাইট বন্ধ করে রাখুন। এর যোগ হবে আরও অতিরিক্ত কিছু মিনিট।

২. সব ব্যাকগ্রাউন্ড প্রোগ্রাম বন্ধ করুন (cut down background programs)

এন্টিভাইরাস, ইউটিলিটি টুলস, উইন্ডোজ সার্চ সহ আরও অনেক ব্যাকগ্রাউন্ড প্রোগ্রাম চালু রয়েছে যা গোপনে শেষ করছে আপনার ল্যাপটপের চার্জ। Task Manager খুলে এসব ব্যাকগ্রাউন্ড প্রোগ্রাম বন্ধ রাখুন ল্যাপটপ চার্জে দেয়ার সুযোগ পাওয়া পর্যন্ত।

৩. সকল এক্সটার্নাল ডিভাইসের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করুন (cut down external devices)

এক্সটার্নাল হার্ডডিস্ক, মাউস, কী-বোর্ড এসবের সংযোগ আপাতত বন্ধ করে দিন। ল্যাপটপে পেন-ড্রাইভ লাগানো থাকলে খুলে ফেলুন সেটিও। এ ধরণের ছোটখাটো ডিভাইসেও কিন্তু অনেকটাই বিদ্যুৎ প্রয়োজন হয়। এগুলো খুলে রাখলে কিছু অতিরিক্ত মিনিট হাতে পেয়ে যাবেন।

৪. মাল্টিটাস্ক করবেন না (do not multitask)

ল্যাপটপের চার্জ যখন প্রায় শেষ তখন একের বেশি প্রোগ্রাম বা সফটওয়্যার চালু রাখবেন না। আপনি একই সাথে মাইক্রোসফট অফিস, ইন্টারনেট ব্রাউজার, অডিও প্লেয়ার ইত্যাদি চালু রাখলে যে পরিমাণ চার্জে শেষ হবে, তার চেয়ে অনেক কম চার্জ শেষ হবে এর মধ্যে প্রয়োজনীয় যে কোন একটি প্রোগ্রাম চালু রাখলে।

৫. স্ক্রীনের আলো কমিয়ে দিন (dim your screen)

ল্যাপটপের স্ক্রীণের আলো (brightness) যত বেশি থাকবে ততই তা চার্জ শেষ করতে থাকবে। এক্ষেত্রে প্রয়োজনের মুহুর্তে স্ক্রীনের আলো সহনীয় পর্য্যে কমিয়ে নিন। ফলে আরও কয়েক মিনিট বেশি সময় ধরে ল্যাপটপ ব্যবহার করতে পারবেন।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।