ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইভিনিং এমবিএ-তে ভর্তির খুঁটিনাটিঃ পর্ব-০৩ (সাধারণ জ্ঞান)

DU-logo2013123120350811_5469d52db0643সুপ্রিয় পাঠকবৃন্দ, এই শীতে আপনাদের সবাইকে জানাচ্ছি একটুখানি উষ্ণ শুভেচ্ছা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইভিনিং এমবিএ’তে ভর্তির পরামর্শমূলক সিরিজের আজকের পর্বে আলোচনা করবো সাধারণ জ্ঞান (General Knowledge) নিয়ে। তাহলে আর দেরি নয়, শুরু করা যাক।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এমবিএ ভর্তি পরীক্ষায় বিগত বছরের মার্চ/এপ্রিল সেশন পর্যন্ত সর্বমোট ৮০ নম্বরের MCQ প্রশ্নে পরীক্ষা নেওয়া হতো। এর ভিতরে ১০ নম্বর বরাদ্দ থাকতো সাধারণ জ্ঞানের জন্য। জুলাই সেশন থেকে ৫৫ অথবা ৬০ নম্বরের MCQ এবং ২০ অথবা ২৫ নম্বরের Written Exam নেওয়া হয়। এই ৫৫ অথবা ৬০ এর ভিতরেও ১০ নম্বর থাকে সাধারণ জ্ঞানের জন্য। কাজেই প্রিয় পাঠক, বুঝতেই পারছেন সাধারণ জ্ঞানের গুরুত্ব আগের চেয়েও বেড়েছে বই কমেনি।

একমাত্র এই সাধারণ জ্ঞানই এমন একটা বিষয়, যেখানে আপনি একটু চোখ-কান খোলা রাখলে অথবা ভালোভাবে প্রস্তুতি নিলে একেবারে চোখের পলকে ১০ টা প্রশ্ন দাগিয়ে পুরো ১০ নম্বর নিশ্চিত করতে পারবেন। আবার যদি আপনি না পারেন, তাহলে অনন্তকাল সময় দেওয়া হলেও আপনি সঠিক উত্তর করতে পারবেন না। এখানে মাথা খাটানোর কিছু নেই। কোন বুদ্ধির খেলা নেই। কোন Grammatical কচকচানিও নেই। দরকার শুধু আপনার মনে রাখার ক্ষমতা।

আপনার মনে এখন হয়তো প্রশ্ন আসছে, কিভাবে এই ১০ নম্বর বন্টন করা হয়? কি কি বিষয়ে প্রশ্ন আসে? খুবই যৌক্তিক প্রশ্ন। আসছি সে বিষয়েই।

যা যা পড়তে হবে

সাধারণ জ্ঞান শুধু নামেই সাধারণ। আপনি যখনই পড়তে যাবেন, আপনার কাছে তা প্রতি মুহূর্তে “অসাধারণ”  হয়ে ধরা দিবে। কারণ এর কোন সিলেবাস নেই। সিলেবাস যদি থেকেও থাকে, তার কোন সীমা-পরিসীমা নেই। পড়তে বসলে আপনার এসব চিন্তা মাথায় আসবে। আর আপনি বিরক্ত হয়ে হয়তো বই বন্ধ করে টিভিতে খেলা দেখা শুরু করবেন। এমন হয়। কিন্তু সব সমস্যারই সমাধান থাকে। সব পথে যাবারই সঠিক রাস্তা থাকে। শুধু রাস্তাটা চিনে নেওয়ার অপেক্ষা। আর আপনাকে সেই পথ চেনানোই আমার উদ্দেশ্য।

তাহলে কিভাবে পড়বেন?

আপনি প্রথমেই, একেবারে সর্বপ্রথমেই নীলক্ষেত থেকে ১৫০/২০০ টাকা দিয়ে সাইফুর’স অথবা মেন্টরস এর “EMBA Admission Test Papers (Latest Edition)” কিনে ফেলুন। তারপর বাসায় গিয়ে ঠান্ডা মাথায় বিগত বছরের প্রশ্নগুলোর সাধারণ জ্ঞান অংশ দেখা শুরু করুন। দেখুন, আপনি কতগুলো পারেন। যেগুলো পারেন না, সেগুলো Answer Sheet থেকে শিখে নিন। এভাবে মনে রাখুন, অথবা খাতায় লিখে রাখুন। আপনার পড়ার সময় কম? ইচ্ছা কম? তাহলে শুধু এই কাজটাই করুন।

আপনি নিশ্চিত থাকুন, পরীক্ষায় আপনি কমপক্ষে ৫/৬ টা এখান থেকে Common পাবেনই। ভাগ্য ভালো থাকলে ৭ টাও পেতে পারেন। এটা পরীক্ষিত। Test Paper এর সাধারণ জ্ঞানই যদি শুধু মনে রাখতে পারেন, আপনি ৫/৬ পাবেনই।

কিন্তু আপনার তাতেও মন ভরবে না। আপনি চান ১০ এ ১০ পেতে, মেধাতালিকায় থাকতে। তাহলে আপনাকে একটু কষ্ট করতে হবে। কিন্তু সেই কষ্টও হতে হবে সুপরিকল্পিত। অনুমানে নয়। কিভাবে এই “কষ্ট” করবেন? নিচের টিপসগুলো অনুসরণ করুন।

  • সাধারণ জ্ঞানের ১০ নম্বরের ভিতরে ২/১ টা প্রশ্ন আসে সাম্প্রতিক বিষয়াবলী থেকে। এই নম্বর পাওয়ার জন্য আপনাকে পরীক্ষার আগের অন্তত তিন মাস আগে থেকে দৈনিক পত্রিকায় চোখ রাখতে হবে। সেইসাথে পরীক্ষার আগের অন্তত তিন মাসের “কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স” কিনে মুখস্ত করে ফেলতে হবে।
  • খেলাধুলা থেকে ১ টা প্রশ্ন থাকবেই। প্রতিদিন পত্রিকার খেলার পাতায় চোখ রাখুন।
  • বিশ্বের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সংস্থার সদর দপ্তর কোথায়, জেনে মুখস্ত করে ফেলুন। ১ টা প্রশ্ন আসবেই।

বাকি প্রশ্নগুলো বাংলাদেশের অর্থনীতি, ব্যাংকিং ব্যবস্থা, বাংলাদেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়াবলী, আন্তর্জাতিক বিষয়াবলী, শিক্ষা, বিশ্ব অর্থনীতি, সমুদ্র বন্দর, সার্ক (SAARC), বিভিন্ন বইয়ের লেখকের নাম, নোবেল প্রাইজ, এভারেস্ট বিজয় ইত্যাদি থেকে থাকতে পারে। এগুলো বিসিএস পরীক্ষার জন্য বাজারে যেসব সাধারণ জ্ঞানের বই রয়েছে যেমনঃ MP3 সাধারণ জ্ঞান গাইড এবং আজকের বিশ্ব/নতুন বিশ্ব এসব বই থেকে পড়লেই হবে।

তাহলে আর দেরি কেন, শুরু করে দিন সাধারণ জ্ঞানে “অসাধারণ” হয়ে ওঠার চেষ্টা।

আরো পড়ুন

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।