বৃষ্টির দিনে কেমন হবে আপনার সাজ

10391393_257107201140594_534834784675349410_nটানা গরমের পর থেমে থেমে হচ্ছে ঝির ঝির বৃষ্টি। শুরু হয়ে গিয়েছে বর্ষা। প্রকৃতির এই বিচিত্র খেলায় জীবনকে আরও রঙিন করতে পোশাকেও আনতে পারেন বৈচিত্র্য। আবার সাজগোজ করে বাইরে বেরিয়ে হঠাৎ বৃষ্টির ঝাপটায় যেন পুরোটাই ম্লান না হয়, সে দিকেও খেয়াল রাখতে হবে। তাই সাজ হতে হবে সময়োপযোগী। সকাল বেলা বাসা থেকে হয়তো বের হয়েছেন রোদ দেখে,কিন্তু বাইরে বের হওয়ার পর শুরু হলো বৃষ্টি। তাই সাজের ক্ষেত্রে বৃষ্টির কথা মাথায় রেখে আপনার সাজ হওয়া চাই।

বৃষ্টির দিনের সাজগোজের কিছু পরামর্শ

১) এখন যেহেতু বাইরে রোদ-বৃষ্টির খেলা, তাই সাজের ক্ষেত্রে উপকরণটি অবশ্যই যেন পানিরোধক হয়। এ সময়ে দিনের বেলা গরমে গাঢ় সাজ যেমন মানানসই নয়, তেমনি অন্যদের চোখেও তা দৃষ্টিকটু লাগে। তাই সব মিলিয়ে সাজসজ্জায় স্নিগ্ধভাব থাকা চাই। এ জন্য হালকা মেকআপই ভালো।

২) দিনের বেলায় ফাউন্ডেশন না লাগিয়ে হালকা কোনো ফেইস পাউডার লাগানো যেতে পারে। এতে ত্বক অনেক বেশি মসৃণ ও সুন্দর দেখাবে। আবার ফাউন্ডেশন ব্যবহার করতে চাইলে, ম্যাটিফায়িং ফাউন্ডেশন লাগানো উচিত। এতে ত্বক কম ঘামবে এবং কম তৈলাক্ত হবে।

৩) পোশাকের সঙ্গে মেকআপে মিল রেখে হালকা বাদামি রংয়ের আইশ্যাডো লাগিয়ে নিলে অনেক বেশি ন্যাচারাল বা স্বাভাবিক দেখাবে। তবে রাতের বেলায় একটু গাঢ় করেই চোখ দুটো সাজালে ভালো। সে ক্ষেত্রে মেরুন, কফি, সবুজ, নীলচে রংয়ের শেইডগুলো ব্যবহার করা যেতে পারে।

৪) যারা একটু বেশি রঙিনভাবে সাজতে চান তারা পোশাকের রংয়ের বিপরীত রংও বেছে নিতে পারেন। এটি চোখের কাজল, শ্যাডো, লিপস্টিক সব ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। দিনের বেলা ব্লাশন এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করুন। পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে কপালে টিপ দিতে পারেন।

৫) এ সময় অবশ্যই ওয়াটারপ্রুফ মাশকারা এবং পেনসিল আইলাইনার ব্যবহার করুন। দিনের সাজে চোখের নিচের পাতায় আইলাইনার অথবা মাশকারা না লাগানোই ভালো। পোশাকের রংয়ের সঙ্গে মিলিয়ে বেছে নিতে পারেন রঙিন কাজল। নীল, সবুজ, গোলাপি, লাল কাজলের রেখা টেনে নিতে পারেন চোখের কোণে।

৬) বর্ষায় পোশাক নির্বাচনের ক্ষেত্রে জর্জেট,শিফন টাইপের পোশাক নির্বাচন করা উচিৎ। এতে বৃষ্টিতে ভিজে গেলেও তাড়াতাড়ি শুকিয়ে যাবে।

৭) বর্ষার সাজে স্নিগ্ধ ভাব থাকা চাই। এসময় হালকা মেকআপ নেওয়া ভালো। চুলটা বাঁধা থাকলেই বরং সুবিধা হবে। হাতে খোঁপা করে তাতে গুঁজে দেওয়া যেতে পারে কদম,বেলি বা চাঁপা ফুল। কপালে গাঢ় রঙের গোল টিপ পরলে দেখতে দারুণ লাগবে।

৮) বর্ষায় প্রকৃতি যেমন সেজে ওঠে তেমনি তার সঙ্গে মেতে ওঠে প্রকৃতি প্রিয় মানুষ। প্রকৃতির সঙ্গে মিলিয়ে মেয়েরা গাঢ় নীল সবুজ রঙের পোশাক পড়ে। ভাদ্রের গরমে পাতলা কোটা শাড়ি এড়িয়ে চলুন। এখন মাঝে মাঝেই বৃষ্টি হয়। তাই সাদা কাপড় যেমন বৃষ্টির দিনে মানানসই নয়, কালো কাপড়ও তেমনি পরা উচিত নয়। কারণ কালো কাপড় ভিজে গেলে ছোপছোপ দাগ হতে পারে।

৯) কামিজ পরুন একটু খাটো। কাদায় ময়লা হওয়ার আশঙ্কা যাতে না থাকে। আর সালোয়ারও আঁটসাঁট হওয়া চাই। তবে পোশাক যাই পরুন না কেন, ছাতাকে সঙ্গী করতে ভুলবেন না। তাহলে হঠাৎ বৃষ্টির ছাঁট আপনার সাজ পোশাক নষ্ট করতে পারবে না একদমই।

বর্ষার প্রকৃতির সৌন্দর্য ফুটে ওঠে তার সজীবতায়। সেই সজীব ও সতেজ ভাব যেন থাকে আপনার সাজসজ্জাতেও।

পরামর্শ.কম এ স্বাস্থ্য ও রূপচর্চা বিভাগে প্রকাশিত লেখাগুলো সংশ্লিষ্ট লেখকের ব্যক্তিগত মতামত ও সাধারণ তথ্যের ভিত্তিতে লিখিত। তাই এসব লেখাকে সরাসরি চিকিৎসা বা স্বাস্থ্য অথবা রূপচর্চা বিষয়ক বিশেষজ্ঞ পরামর্শ হিসেবে গণ্য করা যাবে না। স্বাস্থ্য/ রূপচর্চা সংক্রান্ত যেকোন তথ্য কিংবা চিকিৎসার জন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের/বিউটিশিয়ানের শরণাপন্ন হোন।


লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।