প্রিয়জনকে সাথে নিয়ে দেখতে পারেন যে ৫টি অসাধারণ রোমান্টিক সিনেমা

fgমনের মানুষটিকে আপনি সময় দিচ্ছেন না এই অভিযোগ সে প্রায়ই করে? কোন এক ছুটির দিনে নিচের যে কোন একটি সিনেমা ছেড়ে বসে যান তার সাথে। এইরকম চমৎকার একটি সময় উপহার দেয়ার জন্যে সে তার সব অভিযোগ তুলে নিবে। নিশ্চিত থাকুন।

১) Fifty first dates:
“ছবিটি সম্পর্কে আপনি যা ভাবছেন এটি তার চেয়েও বেশি। এটি আপনাকে একটি ইমোশনাল রোলার কোস্টারের উপর তুলে দিবে।”
-IMDB তে এই ছবির সম্পর্কে একজনের কমেন্ট।

Henry যদিও প্রেম নিয়ে খুব বেশি ভাবেনি Lucy এর সাথে দেখা হওয়ার পর সে বুঝতে পারে এই মেয়েই তার স্বপ্নের নায়িকা। প্রেম শুরু হওয়ার পর Henry জানতে পারে Lucy এর স্মৃতি বিলোপ রোগ রয়েছে। যার কারণে সে আগের দিনের কথা মনে রাখতে পারে না। হাল ছাড়ে না Henry। প্রতিদিনই Lucy কে নতুন করে তার প্রেমে ফেলবে, এই সংকল্প করে ফেলে সে।

এভাবেই এগিয়ে যায় সিনেমার কাহিনী। প্রেম আর হাস্যরসের এক অপূর্ব মিশেল সিনেমাটি। জেনে রাখুন, না দেখলে মিস করেছেন।

২) Before sunrise:

ধরুন অচেনা একজনের সাথে আজ আপনার ট্রেনে দেখা হলো। কাল সকালেই আপনারা যার যার গন্তব্যে চলে যাবেন। কিন্তু এর আগের দিন যদি একসাথে একটা শহরে ঘুরে বেড়ান, কেমন হবে দিনটি? কি কথা হতে পারে এই অল্প সময়ের মধ্যে দুজনের? এইরকমই একটি গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছে “Before sunrise” সিনেমাটি। ট্রেনে পরিচয় হওয়া আমেরিকার এক তরুণ আর ফ্রেঞ্চ এক তরুণী একদিনের জন্য ঘুরে বেড়ায় একটি শহরের সব দর্শনীয় স্থানে, আর একে অপরের সম্পর্কে জানতে থাকে। উঠে আসে ধর্ম, জীবন বোধ আর পুরনো প্রেমের গল্প। কি হবে যদি এই সম্পর্কটা ভালোবাসার দিকে মোড় নেয়? যেখানে তরুণটিকে পরদিনই সকালে ফ্লাইট ধরতে হবে। চমৎকার এই সিনেমাটি দেখার পর নিশ্চিত আপনার কাজ বেড়ে যাবে। দেখতে হবে এই সিনেমার পরবর্তী দুটি সিকুয়েল Before sunset, Before midnight.

৩) The notebook:

গরমের ছুটি কাটাতে সিব্রুকে আসে ১৭ বছরের Allie যেখানে এক কার্নিভালে তার দেখা হয় স্থানীয় তরুণ Noah এর সাথে। দুজনেই খুব দ্রুত একে অপরের প্রেমে পড়ে। কিন্তু Allie -এর অবস্থাপন্ন পরিবার এই সম্পর্ক তারা মেনে নেয় না। একসময় আলাদা হয়ে যায় দুজন। পরবর্তী সময়ে Allie কে ৩৬৫ টি চিঠি লিখে Noah, যার একটিও Allie পায় না তার মায়ের কারণে।

কেটে যায় সময়। অনেকদিন পর আবার দেখা হয় দুজনের। তারপর? সিনেমার একটা দৃশ্যে একটা অসাধারণ জায়গায় নৌকা করে ঘুরে বেড়ায় Allie আর Noah । ইস! এমন একটা জায়গায় যদি যাওয়া যেতো। সিনেমাটা যারা দেখেছে, এই একটা আফসোস তারা সবসময়ই করে। তো আর দেরি কেন? আফসোসকারিদের তালিকা বৃদ্ধি করে ফেলুন।

জেনে রাখা ভাল Nick Cassavetes পরিচালিত সিনেমাটি ২০০৫ সালে Teen Choice Award এর ৮ টি ক্যাটাগরির পুরস্কার জিতে নেয়।

৪) The Fault in our stars:
থাইরয়েড ক্যান্সারে আক্রান্ত ১৬ বছর বয়সী কিশোরী Hazel একটি ক্যান্সার সাপোর্ট গ্রুপে ভর্তি হয়। সেখানে একদিন তার সাথে দেখা হয় Augus নামের এক কিশোরের সাথে, হাড়ের ক্যান্সারের জন্যে যার একটি পা কেটে ফেলা হয়েছে। পরিচয় হওয়ার পর Augus বলে Hazel-কে দেখতে একটি থ্রিলার সিনেমার নায়িকার মত লাগছে। Hazel-কে তার বাসায় সিনেমাটি দেখার জন্যে আমন্ত্রন জানায় Augus এবং যেতে যেতে ক্যান্সার সম্পর্কে দুইজন দুইজনের ধ্যান ধারণা ব্যাখ্যা করে। ক্যান্সারে আক্রান্ত দুইজন কিশোর কিশোরীকে নিয়ে এগিয়ে চায় চমৎকার গল্পটি।

৫) A Walk to remember:
নিজের ভবিষ্যত সম্পর্কে চরম উদাসীন Landon-কে ক্লাসের পর সামাজিক কার্যক্রমে অংশ নিতে হয়, যা একটি শাস্তি প্রক্রিয়ার অন্তর্ভুক্ত। যেখানে গিয়ে তার চরিত্রের সাথে সম্পূর্ণ বিপরীত Jamie নামের এক তরুণীর সাথে পরিচিত হয় London এর। London সিদ্ধান্ত নেয় সে এখন থেকে এই সব সামাজিক কাজে মনোযোগ দিবে যদি Jamie তাকে সাহায্য করে। সাহায্য করতে রাজি হয় Jamie। খুব দ্রুত দুজনের একটি সম্পর্ক গড়ে উঠে। কিন্তু তাদের এই সম্পর্কের বন্ধনের পরীক্ষার জন্যেই যেন একটি অপ্রিয় সত্যের মুখোমুখি হয় দুজন, যখন তারা সত্যিকার ভালোবাসা আর ভাগ্যের অর্থ বুঝতে পারে।

আর দেরি না করে যে কোন একটি সিনেমা বেছে নিয়ে বসে পড়ুন। আর কোন সিনেমাটি বেশি ভাল লেগেছে জানান আমাদের।

মুভি নিয়ে আমাদের আরও লেখা দেখুনঃ


লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।