৩৫ তম বিসিএস প্রিলি. পরীক্ষা-আন্তর্জাতিক বিষয়াবলী ও ভূগোল, পরিবেশ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা

bcs-faধীরে ধীরে এগিয়ে আসছে বিসিএস পরীক্ষার সময়। তাই যারা পরীক্ষা দেবেন তাদের সহায়তা করতে পরামর্শ.কম এর ধারাবাহিক আয়োজন। আজকের বিষয়-আন্তর্জাতিক বিষয়াবলী ও ভূগোল, পরিবেশ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা

আন্তর্জাতিক বিষয়াবলী (২০ নম্বর)

সিলেবাসে যা লিখা আছে তা আসলে লিখিত পরীক্ষার সাথে মিলে, এমসিকিউর জন্য এতে কিছু বোঝার নেই। তাই আন্তর্জাতিক বিষয়াবলীতে সিলেবাসের কথা না ভেবে আগের প্রশ্নের আলোকেই প্রস্তুতি নিন যে কোন গাইড থেকে। তবে ‘পরিবেশগত ইস্যু ও কূটনীতি’ কথাটা উল্লেখ আছে। মানে জলবায়ু সম্মেলন ও চুক্তিগুলো বেশ গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়া আগের মতই জাতিসংঘ, অন্য সংগঠনগুলো বেশ গুরুত্বপূর্ণ। লাইন, প্রণালী, রাজধানী, মুদ্রা, জাতীয় প্রতীক এসব জিনিস কৌশল করে মনে রা্ষার চেষ্টা করা যায়। কোন দেশে কি সবচেয়ে বেশী জন্মে, কোন দেশ কি রপ্তানী করে- এমন জিনিস আগে অনেক এসেছে।

ভূগোল, পরিবেশ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা (১০ নম্বর)

সিলেবাসটা এমসিকিউর জন্য একটু দ্বিধা উদ্রেককারী। এখানে প্রাকৃতিক ভূগোল যেমন সৌরজগত, বায়ুমণ্ডল … এরকম কিছুর উল্লেখ নেই। এগুলো বিজ্ঞানে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ভূগোল বলতে যা আছে সেটা বাংলাদেশের প্রেক্ষিতে আঞ্চলিক ভূগোল। যাই হোক – এতে বাংলাদেশের সীমানা, সীমান্তবর্তী জেলা, ভুপ্রকৃতি গুরুত্বপূর্ণ। কোন জেলায় কোন প্রাকৃতিক সম্পদ জন্মে, খনিজ পাওয়া যায় এসব। ঘুর্ণিঝড়ের সংকেতসমূহের অর্থ (১ নং, ২নং…), অতীতের ঝড়গুলোর নাম ও নামের অর্থ গুরুত্বপূর্ণ। এখানে যা আছে সেটা সাধারণ জ্ঞানের গাইডেই হবে। ঘূর্ণিঝড়ের সংকেতের অর্থ – বা এমন কিছু জিনিস আলাদা লিখে নিতে পারেন।

আরো পড়ুন

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।