প্রচণ্ড শীতেও নিজেকে উষ্ণ রাখুন ৩টি সহজ উপায়ে

3 Ways To Keep Warm During Winterএ বছর শীতটা অনেক বেশি তীব্র হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এখনকার আবহাওয়া থেকে সে আভাসই পাওয়া যাচ্ছে।তীব্র শীতের সাথে মোকাবেলার জন্য সবাই যার যার সামর্থ্য অনুযায়ী ব্যবস্থা নিয়ে থাকেন। কিন্তু এমন অবস্থা হতে পারে, আপনি যেখানে বসবাস করছেন সেখানে শীতের হাত থেকে বাঁচার আধুনিক সুবিধাগুলো নেই। অথবা থাকলেও তা ক্রয় ক্ষমতার বাইরে। তাই এমন কিছু পদ্ধতি জানিয়ে দিচ্ছি যা খুবই কম খরচের এবং সহজে যে কেউ অনুসরণ করে তীব্র শীতের হাত থেকে নিজেকে রক্ষা করতে পারবেন।

১. জানালায় ব্যবহার করুন মোটা পর্দা (Thick curtains)

এই বিষয়টিকে খুব কম মানুষই গুরুত্ব দেন, অথচ ঘরের তাপমাত্রা ধরে রাখতে মোটা পর্দা (curtains) খুবই কার্যকরী। মোটা পর্দা ঘরের তাপমাত্রা বাইরে যেতে দেয় না, ফলে আমাদের শরীর বা ঘরের অন্যান্য স্থান থেকে যে তাপ (heat) উৎপন্ন হয় তা ঘরেই থেকে যায়। এছাড়া বাইরের ঠাণ্ডা বাতাসও প্রতিরোধ করে। মোটা পর্দা পাওয়া না গেলে সস্তার কম্বলগুলো জানালায় ব্যবহার করতে পারেন শীতের জন্য। এর উপর আপনার সাধারণ পর্দা দিয়ে ঢেকে দিলেই আর দেখতে খারাপ দেখাবে না।thick curtain

২. ব্যবহার করুন গরম টুপি ও গ্লাভস (Wear a Hat and Gloves)

ভারী জ্যাকেট আর সোয়েটারে পরেও ঠাণ্ডায় কাঁপতে দেখা যায় অনেককেই। এর মূল কারণ হাত এবং পা ঠাণ্ডা হয়ে যাওয়া। হাত এবং পা কে ঠাণ্ডার হাত থেকে রক্ষা করতে গ্লাভস এবং গরম টুপি ব্যবহার করুন। যখন আমাদের মাথা ঠাণ্ডা হতে থাকে, হাত ও পায়ের রক্ত সঞ্চালন কমে যায়। টুপি মাথাকে গরম থাকতে সাহায্য করে ফলে শরীর হাত ও পায়ের সুরক্ষার দিকে নজর দেয়ার অবকাশ পায়।Warm Winter Hat

৩. বিছানা গরম রাখুন (Heat Up Your Bed)

শীতের রাতে বিছানায় শোয়ার পর ঠাণ্ডায় কেঁপে ওঠেনি এমন কাউকে খুঁজে পাওয়া যাবে না। শোয়ার আগে বিছানা গরম করতে (warm bed)

  • কম্বল বা লেপ বিছানায় ছড়িয়ে দিন।
  • দুটি প্লাস্টিকের বোতলে গরম পানিতে পূর্ণ করে কম্বল/লেপের নিচে রাখুন। এতে করে শোয়ার সাথে সাথে ঠাণ্ডায় কেঁপে উঠতে হবে না।
  • আর শুয়ে যাওয়ার পর বোতল দুটি পায়ের দিকে ঠেলে দিন। বোতলের পানি সকাল পর্যন্ত গরম থাকবে আর আপনাকে আরামদায়ক উষ্ণতা পেতে সাহায্য করবে।plastic-bottles(2)

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।